ভারতে বিনামূল্যেই ব্যবহার করা যাবে Google Pay, লেনদেনে লাগবেনা শুল্ক

কয়েকদিন আগে Google জানিয়েছে যে, তারা তাদের ডিজিটাল পেমেন্ট প্ল্যাটফর্ম Google Pay-এর ওয়েবসাইটটি আগামি বছরেই বন্ধ করতে চলেছে। সেই সঙ্গে পুরোনো গুগল পে অ্যাপের জায়গাতে নতুন গুগল পে অ্যাপ নিয়ে আসা হবে। উল্লেখ্য, আমেরিকায় ইতিমধ্যেই নতুন অ্যাপটি চালু হয়েছে। তবে এই অ্যাপে ইনস্ট্যান্ট ট্রান্সফারের ক্ষেত্রে ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে পেমেন্ট করলে ১.৫% অতিরিক্ত চার্জ কাটা হবে। যারপরে হইচই শুরু হয় যে গুগল পে এবার থেকে লেনদেনের জন্য শুল্ক নেবে। কিন্তু বুধবার Google কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এই চার্জ শুধু আমেরিকার ইউজারদের জন্য প্রযোজ্য। ভারতীয় ইউজারদের কোন অতিরিক্ত চার্জ লাগবে না।

প্রসঙ্গত, ভারতে ডিজিটাল পেমেন্ট প্ল্যাটফর্মের বিকল্প কম নয়। গুগল পে-র বিপরীতে Paytm, Phone Pe ইত্যাদির মতো বড় বড় প্রতিদ্বন্দ্বী বাজারে উপলব্ধ। এরা কেউই পেমেন্টের জন্য অতিরিক্ত চার্জ কাটে না। ফলে Google Pay যদি এই ধরনের কোন চার্জ কাটা শুরু করে, তাহলে মানুষ নির্দ্বিধায় অন্য বিকল্প বেছে নেবে। সেকারণে Google তড়িঘড়ি ভারতের জন্য তাদের অবস্থান স্পষ্ট করলো।

ভারতে Google Pay অ্যাপের ৬৭ মিলিয়ন ইউজার আছে। এই সংখ্যা থেকে বার্ষিক লেনদেনের পরিমাণটাও আন্দাজ করা যায়। সেপ্টেম্বর ২০১৯-এর হিসাব অনুযায়ী ভারতীয় ইউজারদের গুগল পে-র বার্ষিক পেমেন্ট ভ্যালু ছিল ১১০ মিলিয়ন ডলার। চলতি বছরের জুন মাসের হিসাব অনুযায়ী Google Pay for Business-এর ইউজারও বর্তমানে ৩ মিলিয়ন। ফলে বিপুল পরিমাণ লেনদেন প্রভাবিত হত গুগলের নতুন অ্যাপে। তবে খুশির খবর যে অতিরিক্ত চার্জ ভারতে প্রযোজ্য হচ্ছে না। ফলে ইউজাররা আগের মতোই মন খুলে লেনদেন করতে পারবেন।

গুগলের নতুন Google Pay অ্যাপটি অ্যান্ড্রয়েড এবং iOS উভয় ভার্সনের জন্যই ভারতে আসতে চলেছে। এতে পেমেন্ট ফিচার যেমন উন্নত হবে, সেই সঙ্গে সুরক্ষার দিকটিও মাথায় রাখা হয়েছে। তাছাড়া গুগল পে-র মধ্যে Plex নামে একটি মোবাইল-ফার্স্ট ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট তৈরির প্রচেষ্টাও চলছে। সব মিলিয়ে ২০২১ সাল Google Pay ইউজারদের জন্য চরম আকর্ষণীয় হতে চলেছে।