5G সাপোর্টের সাথে Google Pixel 5 ফোনে থাকবে স্ন্যাপড্রাগন ৭৬৫জি প্রসেসর

google-pixel-5-spotted-on-ai-benchmark-site-with-snapdragon-765g-soc

কয়েকদিন আগেই সার্চ ইঞ্জিন Google গ্লোবাল মার্কেটে Pixel 4A স্মার্টফোনটি লঞ্চ করেছিল৷ যে ফোনটি চলতি বছরের অক্টোবরে ভারতে আসবে। ওই ইভেন্টে কোম্পানি Pixel 5 ও Pixel 5A এর টিজারও সামনে এনেছিল। এর মধ্যে গুগল হয়তো শীঘ্রই Pixel 5 ফোনটি কে বাজারে আনবে৷ আসলে সম্প্রতি Pixel 5 ফোনটিকে এআই বেঞ্চমার্ক ওয়েবসাইটে দেখা গিয়েছে৷ কোম্পানীর পক্ষ থেকে অবশ্য ফোনটির স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানানো হয়নি৷ তবে বেঞ্চমার্ক সাইটে গুগল পিক্সেল ৫ ফোনের কিছু স্পেসিফিকেশন সামনে এসেছে।

এআই বেঞ্চমার্ক ওয়েবসাইট অনুযায়ী, Google Pixel 5 ফোনে অক্টা কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৬৫জি প্রসেসর থাকবে। অর্থাৎ ফোনটি ৫জি কানেক্টিভিটির সাথে আসবে। এতে ৮ জিবি র‍্যাম দেওয়া হয়েছে। মনে করা হচ্ছে অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে এই ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ এর সাথে লঞ্চ হতে পারে। যদিও এই ফোন সম্পর্কে আর কোনো তথ্য সামনে আসেনি। জানিয়ে রাখি এই ফোনটি ভারতে আসবে না। আসুন গুগল পিক্সেল ৪এ এর দাম ও স্পেসিফিকেশন জেনে নিই।

Google Pixel 4A দাম:

গুগল পিক্সেল ৪এ ফোনটি একটি স্টোরেজের সাথে লঞ্চ হয়েছে। এর ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম রাখা হয়েছে ৩৪৯ ডলার, যা প্রায় ২৬,২৫৪ টাকার সমান। যদিও জার্মানিতে ফোনটি ৩৪০ ডলারে পাওয়া যাবে। জানিয়ে রাখি ভারতে Pixel 3a এর দাম ছিল ৩৯,৯৯৯ টাকা।

Google Pixel 4A স্পেসিফিকেশন:

গুগল পিক্সেল ৪এ ফোনে ৫.৮১ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস OLED ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। এর আসপেক্ট রেশিও ১৯.৫:৯ এবং পিক্সেল রেজুলেশন ১,০৮০ x ২,৩৪০। এতে HDR সাপোর্ট আছে। সাথে এই ফোনে পাবেন মডার্ন পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে (বাম দিকে কোনায়) ডিজাইন, যেখানে এফ/২.০ অ্যাপারচারের সাথে ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা উপলব্ধ। এই ফ্রন্ট ক্যামেরায় অটো ফোকাস নেই।

এবার আসি হার্ডওয়্যারের কথায়, Pixel 4A ফোনটি কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৩০জি প্রসেসরের সাথে এসেছে। ফোনটিতে পাবেন ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ। যদিও মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ বাড়ানো যাবেনা। এতে ৩,১৪০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। সাথে আছে ১৮ ওয়াটের এডাপ্টার। কোম্পানির দাবি ফোনটি ২৪ ঘন্টা পর্যন্ত ব্যাকআপ দেবে। যদিও এই ফোনে ওয়্যারলেস চার্জিং সাপোর্ট পাবেন না। চার্জিংয়ের জন্য এতে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট দেওয়া হয়েছে। এই ফোনে পাবেন ৩.৫ এমএম হেডফোন জ্যাক, দুটি মাইক্রোফোন ও স্টেরিও স্পিকার।

ফটোগ্রাফির কথা বললে এই ফোনের পিছনে আছে ১২.২ মেগাপিক্সেল এফ/১.৭ ডুয়েল পিক্সেল ফেস ডিটেকশন। এর সাথে এলইডি ফ্ল্যাশ পাওয়া যাবে। এই ক্যামেরায় সাপোর্ট করে অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন (ওআইএস), ইলেক্ট্রনিক ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন (ইআইএস), এবং একটি ৭৭ ডিগ্রি ফিল্ড অফ ভিউ। ইউজাররা এতে ৩০,৬০ ও ১২০ এফপিএস এ ১০৮০পি ভিডিও এবং ৩০,৬০ ও ২৪০ এফপিএস এ ৭২০পি ভিডিও রেকর্ড করতে পারবে।

এছাড়াও ক্যামেরা অন্যান্য বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে লাইভ এইচডিআর +, ডুয়েল এক্সপোজার কন্ট্রোল, নাইট সাইট এবং পোর্ট্রেট মোড অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। গুগল পিক্সেল ৪এ তে লক স্ক্রিনের জন্য অলওয়েজ অন ডিসপ্লে ও প্ল ফিচার আছে। ফোনটি Titan M Security মডিউলের সাথে এসেছে। অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে এতে আছে অ্যান্ড্রয়েড ১০।