ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁসে নাম জড়াল Google এর, প্রশাসনের কাছে মাথা নত করার অভিযোগ

Google এর বিরুদ্ধে ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য হংকং প্রশাসনের হাতে তুলে দেওয়ার অভিযোগ উঠলো

google-reportedly-gave-some-users-data-to-hk-authorities-in-2020

জনপ্রিয় সংস্থা গুগলের (Google) বিরুদ্ধে ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য অপরের হাতে তুলে দেওয়ার অভিযোগ উঠলো! গতবছর সংস্থাটি এই কাণ্ড ঘটিয়েছে। হংকং প্রশাসনের তরফে অপরাধমূলক কাজে জড়িত থাকা কিছু ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য চেয়ে গুগলের কাছে আবেদন করা হয়। এই আবেদন সম্পূর্ণরূপে অস্বীকার করা গুগলের পক্ষে সম্ভব হয়নি। ফলে প্রাইভেসি নীতির ঘেরাটোপ পেরিয়ে সংস্থাটি নির্দিষ্ট কিছু ইউজারের ডেটা উক্ত কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দিয়েছে। পুরে ঘটনাটি প্রকাশ্যে এনেছে সংবাদ সংস্থা হংকং ফ্রি প্রেস।

এর আগে Google বরাবর জানিয়েছে যে কোনমতেই তারা ব্যবহারকারীর গোপন তথ্য অপরের হাতে তুলে দিতে আগ্রহী নয়। এমনকি কোনো দেশের প্রশাসনের পক্ষ থেকে সেই তথ্য দাবী করা হলেও Google নিজেদের গোপনীয়তার শর্তাবলী বজায় রাখবে। এভাবেই সংস্থাটি সর্বদা ইউজার প্রাইভেসি সুরক্ষিত রাখার আশ্বাস দিয়েছে। ফলে হংকং প্রশাসনের অনুরোধে তাদের প্রাইভেসি নীতি কিভাবে শিথিল হলো, বিভিন্ন মহলে সেই প্রশ্ন উঠেছে। এক্ষেত্রে Google খুব স্পষ্টভাবে নিজেদের যুক্তি পেশ করেছে।

তারা জানিয়েছে, গত বছরের মে মাসে হংকং প্রশাসন তাদের কাছে বেশ কিছু ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য চেয়ে আবেদন জানায়। এরকম মোট ৪৩টি আবেদনের মধ্যে মাত্র ৩টির ক্ষেত্রে গুগল সাড়া দিয়েছে। কয়েকটি অপরাধমূলক ঘটনার তদন্তে সুবিধার জন্য সংস্থাটি প্রশাসনের প্রতি নরম হয়েছে বলে তাদের বক্তব্য।

যে তিনজন ব্যবহারকারীর তথ্য গুগল হংকং প্রশাসনের হাতে তুলে দিয়েছে তাদের মধ্যে একজনের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। অপর দু’জনের বিরুদ্ধে রয়েছে মানব পাচারের মতো ভয়ংকর অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ। ম্যাজিস্ট্রেটের সই করা সার্চ ওয়ারেন্ট দেখার পর তদন্তের স্বার্থে তাদের ব্যক্তিগত তথ্য পূর্বোক্ত প্রশাসনের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে বলে গুগলের দাবী। তাছাড়া এক্ষেত্রে কোনো ডেটার আদানপ্রদান হয়নি। রাষ্ট্র বা সরকারের অনুরোধের প্রেক্ষিতে সাড়া দেওয়ার আন্তর্জাতিক নীতি মেনে গুগল ডেটা সরবরাহ করেছে বলে সংস্থা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020