করোনা নিয়ে ভুল তথ্য শেয়ার করলেই ব্যান, Facebook ও Tiktok কে নির্দেশ তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রকের

ভারত সরকারের ইলেকট্রনিক ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রক ফেসবুক ( Facebook) এবং টিকটককে (Tiktok) তাদের প্ল্যাটফর্ম থেকে এমন ব্যবহারকারীদের সরানোর জন্য নির্দেশ দিল, যারা সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্রমাগত করোনার ভাইরাস সম্পর্কিত ভুল তথ্য শেয়ার করছে। সরকার মনে করছে ভাইরাস সম্পর্কে সঠিক তথ্য মানুষের কাছে পৌঁছেছে না। পাশাপাশি এই ভুয়ো পোস্টের কারণে সরকারের ক্যাম্পেইনগুলোতেও সাড়া মিলছে না।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলিকে ব্যবহারকারীদের তথ্য শেয়ার করতে হবে :

সরকারের তরফে সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিকে সমস্ত ব্যবহারকারীদের তথ্য জোগাড় করে রাখতে বলা হয়েছে, যারা এই ভুয়ো খবর ছড়ানোর সাথে যুক্ত। প্রয়োজনে সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থাগুলিকে ব্যবহারকারীদের তথ্য পুলিশ এবং তদন্তকারীদলের শেয়ার করতে হতে পারে। যাতে যারা জাল খবর ছড়ায় তাদের আটকানো যায়। সরকারের এই পদক্ষেপটি ভাইরাস সম্পর্কে সঠিক তথ্য জনগণের কাছে পৌঁছে দেবে।

কড়া বার্তা ইলেকট্রনিক ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রকের :

ভারত সরকারের ইলেকট্রনিক ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রক বলেছে যে, মিথ্যা তথ্য সম্বলিত অডিও এবং ভিডিও মেসেজগুলি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে রাখা হচ্ছে, যা মানুষকে বিভ্রান্ত করছে। মন্ত্রক ফেসবুক এবং টিকটকের মতো প্ল্যাটফর্মকে ভুয়ো মেসেজ এবং ভিডিওগুলি সরিয়ে দিতে এবং করোনার বিরুদ্ধে চলমান প্রচার আরও জোরদার করতে বলেছে। অন্যদিকে আইএএমএআই জানিয়েছে যে, ভিডিও এবং মেসেজ অপসারণের জন্য সরকারকে আইনি ব্যবস্থা নিতে হবে।

এদিকে গুজব রুখতে হোয়াটসঅ্যাপ গতকাল জানিয়েছে যে এবার থেকে ফরওয়ার্ড মেসেজ একটি চ্যাটের সাথে শেয়ার করা যাবে। অর্থাৎ আপনি এবার থেকে কেবল একজনকেই একটি মেসেজ ফরওয়ার্ড করতে পারবেন। WhatsApp এই ফিচার শীঘ্রই রোল আউট করবে। 

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।