৫ বছরের ভারতে তৈরী হবে প্রায় ১০ লাখ কোটি টাকার ফোন, বিশেষ সাহায্য মোদী সরকারের

government-approves-16-companies-for-pli-scheme

ভারতের স্মার্টফোন বাজারে বৈদেশিক ব্র্যান্ডগুলি রাজত্ব করছে – একথা আপনারা ভালমত জানেন। সরকারের ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ প্রকল্পের সাহায্যে, ভারতীয় স্মার্টফোন নির্মাতা সংস্থাগুলি বাজারে জোরদার প্রত্যাবর্তন করতে পারে এমনটা শোনা গেলেও, কোনো ফলাফল দেখা যায়নি। তবে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে কোম্পানিগুলিকে যথেষ্ট সাহায্য করা হচ্ছে। মঙ্গলবার ভারত সরকার জানিয়েছে, ডোমেস্টিক স্মার্টফোন প্রোডাকশনের জন্য ৬.৬৫ বিলিয়ন ডলারের বিশেষ ইন্সেন্টিভ স্কিমের অনুমোদন করছে সরকার।

এই প্রোডাকশন লিঙ্কড ইন্সেন্টিভ (PIL) স্কিমের আওতায় মোট ১৬টি দেশীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থাকে কাজ করার অনুমোদন দিয়েছে সরকার। এই ১৬টি সংস্থার মধ্যে রয়েছে Foxconn, Wistron ও Pegatron-এর মত জনপ্রিয় সাপ্লায়ারগুলির নাম। অন্যদিকে, যে সমস্ত দেশীয় সংস্থাগুলির প্রস্তাব অনুমোদিত হয়েছে, তাদের মধ্যে রয়েছে Lava Micromax, Padget Electronics ইত্যাদি ৫টি ব্র্যান্ড।

সরকার আশা করছে, আগামী ৫ বছরের মধ্যে ভারতে প্রায় ১০ লাখ কোটি টাকার ফোন উৎপাদিত হবে, এবং ভারত, স্মার্টফোন উৎপাদন এবং রফতানির ক্ষেত্রে একটি বৃহত্তর কেন্দ্র হয়ে উঠবে।

ইলেকট্রনিক্স ও তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রক (MeitY), একটি অফিসিয়াল বিবৃতিতে বলেছে, PIL স্কিমের জন্য প্রায় ২৩টি সংস্থা আবেদন করেছিল। তার মধ্যে ১৬টি সংস্থাকে যোগ্য বিবেচনা করে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে ২ লক্ষেরও বেশি সরাসরি কর্মসংস্থান এবং প্রায় ৬ লক্ষ অস্থায়ী কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হবে।

এছাড়া, এই প্রকল্পের আওতায় অনুমোদিত সংস্থাগুলি ইলেকট্রনিক্স ম্যানুফ্যাকচারিংয়ে ১১,০০০ কোটি টাকা অতিরিক্ত বিনিয়োগ আনবে – এমনটাই জানিয়েছে MeitY। আসলে, PIL স্কিম পেতে সংস্থাগুলিকে বেশ কিছু টাকা বিনিয়োগ করতে হবে। সংবাদ মাধ্যম রয়টার্সের দাবি, Foxconn, Wistron এবং Pegatron – তিনটি সংস্থাই বিশেষ প্রকল্পের সুবিধা পেতে মোট ৯০০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করবে। এখন দেখার এটাই, স্মার্টফোন উৎপাদনে আগামী দিনে ভারত জগত সভায় শ্রেষ্ঠ আসন লাভ করে কিনা