হোয়াটসঅ্যাপ পে তে লুকিয়ে বিপদ? আশঙ্কা সরকারের

  

শীঘ্রই ভারতে আসছে হোয়াটসঅ্যাপের নতুন পরিষেবা হোয়াটসঅ্যাপ পে। কিন্তু এই পরিষেবা নিয়ে তৈরী হচ্ছে অসন্তোষ। অনেকেই আশঙ্কা করছেন WhatsApp এর এই পেমেন্ট সার্ভিস থেকে তাদের অন্যান্য কোম্পানি ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রাম ডেটা সংগ্রহ করতে পারে। যদিও এই আশঙ্কা তৈরী হওয়ার পর সরকার, জাতীয় পেমেন্ট কর্পোরেশন অব ইন্ডিয়া কে (এনপিসিআই) এই বিষয়ে নজর রাখার নির্দেশ দিয়েছে।

এছাড়াও সরকার হোয়াটসঅ্যাপ পে এবং গুগল পে এর মতো পেমেন্ট পরিষেবাদির মাধ্যমে ব্যবহারকারীর ডেটা যে বাইরে যাবেনা তা নিশ্চিত করার উপায় এনপিসিআই কে খুঁজে বার করতে বলেছে। আপনাকে জানিয়ে রাখি এনপিসিআই হলো দেশের রিটেল পেমেন্ট ও সেটেলমেন্ট সিস্টেম পরিচালনার নডাল সংস্থা।

Amazon প্রোডাক্ট কিনতে এখানে ক্লিক করুন

হোয়াটসঅ্যাপের এই পেমেন্ট সার্ভিস ইউনাইটেড পেমেন্টস্ ইন্টারফেস (ইউপিআই) ভিত্তিক। এই সিস্টেমে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে খুব সহজেই টাকা অন্য অ্যাকাউন্টে পাঠানো যায়। একজন আধিকারিক জানিয়েছেন, “হোয়াটসঅ্যাপ আমাদেরকে বলেছে, ফেসবুক এবং তার অন্যান্য সংস্থা কোন বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে ইউপিআই লেনদেনের তথ্য ব্যবহার করবে না।”

তবে চিন্তার বিষয় হলো হোয়াটসঅ্যাপের ক্লাউড সার্ভার প্রদানকারী সংস্থার নাম ফেসবুক। এর ফলে একটা আশঙ্কা থেকেই যায় ফেসবুক এই ডেটা ব্যবহার করে কিনা। দেশে ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষা বিল নিয়ে এমনিতেই বিতর্ক রয়েছে। এরই মধ্যে হোয়াটসঅ্যাপ পে যে সেই বিতর্ক বাড়ালো তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা।

আপনাকে জানিয়ে রাখি হোয়াটসঅ্যাপ পে নিয়ে শুরু থেকেই সমস্যা ছিল। শুরুর সময়ে তাদের সবচেয়ে বড় অসুবিধা ছিল ডেটা লোকালাইজেশন। এই ডেটা লোকালাইজেশন এর জন্য ভারতের টেলিকম মিনিস্ট্রির সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপের সমস্যাও চলছিল বহুদিন । তবে কিছুদিন আগেই হোয়াটসঅ্যাপের এই ডেটা লোকালাইজেশন সমস্যাটির সমাধান হয়। এবং তার পরেই হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ সাধারণ মানুষের উপর হোয়াটসঅ্যাপ পে এর ট্রায়াল টেস্টিং এর ছাড়পত্র পায়।

পড়ুন : গার্লফ্রেন্ডকে রাখুন নজরে, একটি হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট চলবে দুটো ফোনে

প্রযুক্তির সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা Whatsapp গ্রুপে যুক্ত হোন আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.

সব খবর পড়তে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন