এয়ারটেল ও ভোডাফোন আইডিয়াকেও চীনা প্রযুক্তি ব্যবহার বন্ধের আদেশ দিতে পারে কেন্দ্র

বর্তমানে সারাবিশ্বে চীনা দ্রব্য বর্জন করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এই তালিকায় পিছপা নয় ভারতও। ভারতের জনগণ ইতিমধ্যেই চীনের পণ্য বর্জন করা শুরু করেছে। এরপর মনে করা হচ্ছে ভারত সরকার বেসরকারি টেলিকম সংস্থা Airtel এবং Vodafone Idea কে আদেশ দিতে পারে যেন চীনের টেলিকম দ্রব্য প্রস্তুতকারকদের সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করে। এই টেলিকম প্রস্তুতকারকদের মধ্যে রয়েছে Huawei এবং ZTE। ইতিমধ্যেই বিএসএনএলের ৪জি টেন্ডারে জেডটিই কে পুরোপুরিভাবে ব্যান করে দেওয়া হয়েছে। পূর্ব লাদাখের গালওয়ান সীমান্তে সেনা জওয়ানদের মধ্যে সংঘর্ষের পরে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত সরকার।

ফোন কিনতে এখানে ক্লিক করুন।

হুয়াওয়ে ভোডাফোন আইডিয়ার সঙ্গে জোড় সংখ্যার সার্কেল গুলিতে কাজ করে। এবং জেডটিই ভোডাফোন আইডিয়ার সঙ্গে কাজ করে পাঁচটি সার্কেলে। দুটি টেলিকম পণ্য প্রস্তুতকারক সংস্থাই এয়ারটেলের তিনটি করে সার্কেলে কাজ করছে। ভারত সরকারের শীর্ষস্থানীয় একজন আধিকারিক একটি সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকারে জানান, ” আমরা বেসরকারি চিনা পণ্য প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলি কে ভবিষ্যতে আমাদের দেশে পণ্য সরবরাহ করতে সম্পূর্ণরূপে বাধা দিতে চলেছি। তার পরিবর্তে ভারতের নিজস্ব টেলিকম দ্রব্য প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলি টেলিকম কোম্পানি অর্থাৎ এয়ারটেল, ভোডাফোন কে সাহায্য করবে।”

ফোন কিনতে এখানে ক্লিক করুন।

একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, যদি চীনের সংস্থাগুলি ভারতে ব্যবসা করতে না আসে তাহলে এই সমস্ত দ্রব্য প্রস্তুতের খরচ ১০ থেকে ১৫ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে। আমেরিকার সরকার ভারত সরকারকে ক্রমাগত প্রভাবিত করে চলেছে যেন তারা ৫জি নেটওয়ার্ক নিয়ে আসার সময় হুয়াওয়েকে সম্পূর্ণরূপে ব্যান করে। তাদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, হুয়াওয়ে চোরাগোপ্তা পদ্ধতিতে মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করে। অস্ট্রেলিয়া নিউজিল্যান্ড এবং জাপানের মতো দেশগুলিও ইতিমধ্যেই চীনের কোম্পানিগুলিকে ৫জি টেকনোলজি নিয়ে আসার ক্ষেত্রে ব্যান করেছে। গ্রেট ব্রিটেনও কিছুদিনের মধ্যে তাদের দেশে হুয়াওয়েকে ব্যান করতে চলেছে।

ভারত বর্তমানে চীনের কোম্পানিগুলিকে ব্যান করার পরিকল্পনা নিয়েছে। এই কোম্পানীগুলির মধ্যে রয়েছে হুয়াওয়ে জেডটিই এবং ইউটিস্টারকম। এই কোম্পানিগুলি বেসরকারি টেলিকম সংস্থা ছাড়াও সরকারি বিএসএনএল এবং এমটিএনএল এর মত কোম্পানির জন্য কাজ করত। ইতিমধ্যেই জেডটিই এবং ইউটিস্টারকম বিএসএনএল এর অষ্টম দফার নেটওয়ার্ক বৃদ্ধির জন্য কাজ করছে।

আমাদেরকে ফলো করুন ইনস্টাগ্রামে