ভারতে বন্ধ হল চীনা অ্যাপ Baidu ও Weibo, প্লে স্টোর ও অ্যাপ স্টোর থেকেও সরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ

govt-orders-internet-service-provider-to-ban-baidu-and-weibo-all-we-know

গত জুন মাসে ৫৯টি চীনা অ্যাপ্লিকেশন ব্যান হওয়ার পর, সেগুলি বাজারে ফিরবে কিনা তা নিয়ে জল্পনা তো চলছিলই। এরই মধ্যে ২৭ জুলাই ভারত সরকার আরো ৪৭টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করে। জানানো হয়েছিল এই অ্যাপগুলি আগের ৫৯ টি অ্যাপের ক্লোন ভার্সন ছিল।

সম্প্রতি জানা গিয়েছে, এই ৪৭ টি নিষিদ্ধ অ্যাপের তালিকায় রয়েছে Weibo এবং Baidu Search-এর বহুল প্রচলিত চীনা অ্যাপ্লিকেশনও।
যারা এই অ্যাপ্লিকেশন দুটি সম্পর্কে জানেন না তাদের বলি, ওয়েইবো এবং বাইডু সার্চ আসলে টুইটার এবং গুগল সার্চের বিকল্প প্ল্যাটফর্ম। এমনকি এই অ্যাপদুটিকে গুগল প্লে স্টোর ও অ্যাপল অ্যাপ স্টোর থেকেও শীঘ্রই সরিয়ে দেওয়া হবে।

টাইমস অফ ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারদের ওই দুটি অ্যাপ্লিকেশন ব্লক করতে বলা হয়েছে। এছাড়া একটি সরকারী সূত্র নিশ্চিত করেছে জুলাই মাসের শেষে ভারত সরকার কর্তৃক নিষিদ্ধ হওয়া ৪৭ টি নতুন অ্যাপের মধ্যে Weibo এবং Baidu Search রয়েছে। বলা হয়েছে, সরকার আগামী দিনে আরো কয়েকটি অ্যাপ্লিকেশন নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

এছাড়া ৪৭টি নতুন নিষিদ্ধ অ্যাপের মধ্যে রয়েছে TikTok Lite, Likee Lite, Bigo Live Lite, Shareit Lite, and CamScanner HD ইত্যাদি অ্যাপ। এই অ্যাপ্লিকেশনগুলি মূলত গত ২৯ শে জুনে নিষিদ্ধ হওয়া অ্যাপ্লিকেশনগুলির ক্লোন ভার্সন।

এই প্রসঙ্গে বলে রাখি, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ওয়েইবো-তে অ্যাকাউন্ট ছিল, তবে ভারত-চীন উত্তেজনার পর তিনি সেই অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছিলেন। ভারতের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতা বজায় রাখতে এবং নাগরিকদের তথ্য সুরক্ষিত রাখতেই এতগুলি জনপ্রিয় চীনা অ্যাপ্লিকেশন নিষিদ্ধ করেছে সরকার।


কয়েকদিন ধরে এমন কথাও শোনা যাচ্ছে, PUBG Mobile গেম সহ আরো ২৭৫ অ্যাপ্লিকেশনের তালিকা তৈরি করেছে সরকার। অ্যাপগুলি সম্পর্কে তদন্ত করে দেখা হবে, নেতিবাচক কিছু মিললেই জুটবে ‘ব্যান’ তকমা!