Greta E-Scooter: দাম শুরু 60 হাজার থেকে, এক চার্জে দৌড়বে 100 কিমি, পাবেন 22টি রঙে

Greta আনল Harper, Harper ZX, Evespa, এবং Glide ইলেকট্রিক স্কুটার

greta-launches-harper-harper-zx-evespa-glide-electric-scooter-in-india-price-rs-60000-starting

যন্ত্রপাতির সংখ্যা কম থাকার কারণে পেট্রোলচালিত গাড়ির চেয়ে বিদ্যুৎচালিত গাড়ি তৈরি অনেকটাই সহজ। বিশেষ করে দু’চাকা গাড়ি। এর ফলে নতুন স্টার্টআপ বলুন কিংবা প্রযুক্তি সংস্থাগুলি এই সেগমেন্টকে পাখির চোখ করছে। সম্প্রতি ইলেকট্রিক টু-হুইলারের বাজারে এবার প্রবেশ করেছে Greta বলে গুজরাতের একটি সংস্থা। ৬০-৯০ হাজার টাকার মধ্যে চারটি বৈদ্যুতিক স্কুটার লঞ্চ করেছে তারা – Harper, Harper ZX, Evespa, এবং Glide৷ প্রতিটি ই-স্কুটারের ডিজাইন আলাদা এবং পাওয়া যাবে একগুচ্ছ রঙের বিকল্পে।

Harper, Harper ZX, Evespa, এবং Glide

Harper, Harper ZX স্পোর্টি ডিজাইনের সঙ্গে এসেছে। বডি প্যানেল শার্প। টার্ন সিগন্যালগুলি স্লিক। দু’টি স্কুটারের মধ্যে একটি চোখে পড়ার মতো পার্থক্য হল, Harper ডুয়াল হেডল্যাম্প ও Harper ZX সিঙ্গেল হেডল্যাম্প ইউনিট পেয়েছে। যাত্রী বেশ আরাম করেই বসতে পারবেন৷ কারণ ব্যাকরেস্ট রয়েছে দু’টি মডেলেই।

Vespa-র ধাঁচে Evespa-র ডিজাইন করা হয়েছে। আবার নামেও আছে মিল। রেট্রো স্টাইলের এই ই-স্কুটারে ক্লাসিক ফ্ল্যাট ফ্রন্ট অ্যাপরন, কার্ভি বডি প্যানেল, গোল হেডল্যাম্প, এবং অ্যাপরন মাউন্টেড টার্ন সিগন্যাল রয়েছে। ডিজাইনের দিক থেকে প্রথম তিনটি স্কুটারের চেয়ে Glide একদম আলাদা। ফিউচারিস্টিক স্টাইল, ইউনিবডি ডিজাইন, ফ্ল্যাট হ্যান্ডেলবার, কমপ্যাক্ট ফ্লাইস্ক্রিন, এবং পিলিয়ন ব্যাকরেস্ট আছে এতে।
Harper, Harper ZX, Evespa, এবং Glide ফ্লাট ফ্লোরবোর্ড সহযোগে এসেছে। এক চার্জে স্কুটারগুলি ৭০ কিলোমিটার থেকে ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত চলতে সক্ষম। ব্যাটারি সম্পূর্ণ চার্জ হতে সময় লাগে ৪ ঘন্টার কম। ব্যাটারি প্যাকের বিভিন্ন কনফিগারেশন থাকছে। ই-স্কুটারগুলির কমন ফিচারগুলির মধ্যে ডিজিটাল ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার, এটিএ সিস্টেম, রিভার্স মোড, অ্যান্টি থেফ্ট এলার্ম, কী-লেস স্টার্ট, স্মার্ট শিফ্ট উল্লেখযোগ্য।

ভারতের বাইরে নেপালে ইতিমধ্যেই ব্যবসার পরিধি বাড়িয়েছে গ্রেটা। আবার ইউরোপের বাজারে ই-স্কুটার নিয়ে আসার জন্য প্রয়োজনীয় ছাড়পত্র জোগাড়ের কাজ করছে সংস্থাটি।

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷