3.42 কোটি টাকা হাতালো হ্যাকাররা, বন্ধ হলো এই পেমেন্ট অ্যাপ

টেকনোলজি জগতের অন্যতম উন্নত দেশ জাপানও এখন আর সুরক্ষিত রইল না। কিছুদিন আগেই জাপানে একটি অ্যাপ থেকে একজন ব্যবহারকারী 5 লাখ ডলার (ভারতীয় মুদ্রায় 3.42 কোটি টাকা) চুরি হয়ে যায়। এই ঘটনার পরেই তৎক্ষণাৎ সেই অ্যাপটিকে বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। গত সপ্তাহেই বৃহস্পতিবার সেভেন ইলেভেন জাপান তার সম্প্রতি লঞ্চ হওয়া 7পে পেমেন্ট ফিচারটি বন্ধ করে দেয়। কারণ এটির মাধ্যমে একদল লোক বহু সেভেন ইলেভেন ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট থেকে জালি লেনদেন দেখিয়ে লাখ লাখ ডলার চুরি করে নিয়েছিল। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য নতুন এই ফিচারটি গত 1লা জুলাই লঞ্চ করা হয়েছিল।

এই নতুন ফিচারটি থেকে তাদের শুধুমাত্র বারকোড স্ক্যান করতে হতো। তারপরে সেভেন ইলেভেন অ্যাপের সঙ্গে যুক্ত ব্যাংক অ্যাকাউন্ট দিয়ে পেমেন্ট করতে হতো। কিউআর কোড স্ক্যান, ওটিপি ও পিন দেওয়া এতগুলি ধাপ সম্পূর্ণ করার প্রয়োজন হতো না। ফিচারটি লঞ্চ হওয়ার ঠিক পরের দিনই কোম্পানির কাছে 5 লক্ষ ডলার চুরির খবরটি পৌছায়। তারপরেই এই ফিচারটি স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেয় সেভেন ইলেভেন।

জাপান ইয়াহু নিউজের খবর অনুযায়ী এই অ্যাপে কিছু সমস্যা আগে থেকেই ছিল। হ্যাকাররা খুব সহজেই এই অ্যাপটি থেকে যে কোন ব্যক্তির ইমেইল আইডি এবং পাসওয়ার্ড জেনে নিতে পারছিল। এছাড়াও কিছু কিছু ব্যবহারকারীর অভিযোগ যে নিজের সঠিক জন্ম তারিখ দেওয়ার পরেও আপনা আপনি সেটি 1লা জানুয়ারি 2019 হয়ে যাচ্ছিল এই অ্যাপটিতে। এর ফলে হ্যাকারদের পক্ষে তাদের কাজ হাসিল করা অনেক সুবিধার হয়ে যাচ্ছিল।

সেভেন ইলেভেন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে প্রায় 900 জন ব্যবহারকারীর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে লাখ লাখ টাকা চুরি করে নেওয়া হয়েছে এই অ্যাপের মাধ্যমে। সেভেন ইলেভেন আপাতত তার এই নতুন ফিচারটিকে সম্পূর্ণ বন্ধ রেখেছে। ফলে এখন থেকে কোন সেভেন ইলেভেন ব্যবহারকারী এই অ্যাপের লিঙ্ক করা কার্ড দিয়ে পেমেন্ট করতে পারবেন না।

পড়ুন : ব্যাটারি বাঁচিয়ে ফোন এবং TV-র ডিসপ্লে হবে আরো ব্রাইট, জানুন নতুন আবিষ্কার সম্পর্কে

প্রযুক্তির সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা Whatsapp গ্রুপে যুক্ত হোন আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.

Last Updated on