ভারতে Hero বা Mahindra -র সাথে জোট বেঁধে মোটরবাইক আনবে Harley Davidson: রিপোর্ট

Harley Davidson might join hands with hero Moto corp or classic legends
ছবি : indiacarnews.com

গত জুলাই মাসে Harley Davidson এর সেকেন্ড কোয়ার্টার রেজাল্ট প্রকাশ করার সময় সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়, “যেখানে বিনিয়োগের তুলনায় বিক্রীর পরিমান এবং লাভ দুটোই কম, কোম্পানির ফিউচার স্ট্রাটেজীর অংশ হিসেবে Harley Davidson সেইসব মার্কেট থেকে বেরিয়ে আসার পরিকল্পনা নেবে।”

ভারতেও তাদের মোটরবাইক বিক্রীর পরিমান আশানুরূপ না হওয়ায়, Harley Davidson এদেশ থেকে ব্যবসা গোটানোর কথা চিন্তাভাবনা করছে। এমনকি সংস্থা ভারত থেকে কোম্পানির অ্যাসেম্বলি ফেসিলিটি সরিয়ে, থাইল্যান্ড থেকে তাদের মোটরবাইক এদেশে আমদামি করতে পারে বলে অনেক রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে।

এবার ইন্টারনেটে প্রকাশিত সাম্প্রতিক একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, Harley Davidson ভারতের বাজারে কৌশলগত অংশীদারিত্বের জন্য কয়েকটি সংস্থার সাথে আলোচনারত। কোম্পানির সম্ভাব্য একজন পার্টনার হিসেবে উঠে আসছে Hero Moto Corp এবং Mahindra & Mahindra এর সাবসিডারি Classic Legends (যাদের কাছে ভারত সহ পূর্ব এশিয়ায় Jawa ব্রান্ডের মোটরবাইক ম্যানুফ্যাকচারিং এবং লঞ্চ করার লাইসেন্স বর্তমান) এর নাম ৷

আলোচনা ফলপ্রসূ হলে সম্পর্কটি TVS-BMW Motorad বা KTM-Bajaj জোটের মতো হতে পারে। তবে পার্টনারশীপের জন্য আপাতত Classic Legends কে প্রথম পছন্দ হিসেবে গণ্য করা হচ্ছে। কারণ Mahindra প্রিমিয়াম টু-হুইলার সেগমেন্টে নিজেদের প্রভাব ফেলতে উদগ্রীব। অপরদিকে Hero মোটো কর্পও নতুন পার্টনারশীপের জন্য সবসময় রাজি। যেহেতু এন্ট্রি লেভেল কমিউটির সেগমেন্টেই সংস্থার উপস্থিতি বেশী, সেক্ষেত্রে Harley Davidson এর সাথে চুক্তি হলে সেটি প্রিমিয়াম সেগমেন্টেও Hero এর অবস্থান আরো দৃঢ় করবে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, Harley Davidson মূলত সাব-৫০০ সেগমেন্টে লাইটওয়েট মোটরবাইক উৎপাদনের জন্য পার্টনারের সন্ধানে আছে, এবং এই সর্ম্পকিত চুক্তিগুলি নিয়ে বর্তমানে কাজ করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, চীনে Harley Davidson এবং Benelli এর প্যারেন্ট অর্গানাইজেশন Zhejiang Qianjiang যৌথ প্রকল্পের অংশ হিসেবে ৩৫০ সিসির একটি বাইক Harley Davidson 338 ডেভলপ ও ম্যানুফ্যাকচারিং করেছে ৷ যার কয়েকটি ফটোও সম্প্রতি ফাঁস হয়েছে ৷ ফলে ভারতেও অনুরূপ উদ্যোগের সম্ভাবনা একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যায়না।

তাছাড়া, একজন লোকাল পার্টনারের উপস্থিতি হার্লে ডেভিডসনের ওপর চাপ অনেকটাই হ্রাস করবে। এদিকে Hero, Mahindra এবং Harley Daviadson আলোচনার স্থিতি নিয়ে এখনও কোনো মন্তব্য করতে চায়নি।