ভারতের বাজারে এল Hero Cycle-এর ইলেকট্রিক সাইকেল Lectro F6i

hero-cycle-lectro-f6i-electric-cycle-launched-price-in-india-rs-49000

ফেব্রুয়ারি মাসে দিল্লির প্রগতি ময়দানে অনুষ্ঠিত হওয়া 2020 Auto Expo ইভেন্টে প্রথম জনসমক্ষে আসার পর, ভারতে এবার অফিসিয়ালি লঞ্চ হয়ে গেল Hero Cycle-এর Lectro F6i ই-সাইকেল (ইলেকট্রিক সাইকেল)। আধুনিক প্রযুক্তি ও আকর্ষণীয় ডিজাইনের এই বৈদ্যুতিন সাইকেল প্রিমিয়াম রেঞ্জের মডেল হিসেবে মার্কেটে এসেছে। ভারতে এখন দ্রুত ই-সাইকেলের চাহিদা বাড়ছে, ফলে Hero Cycle-এর Lectro F6i অল্পদিনেই জনপ্রিয়তা লাভ করবে বলেই মনে হয়।

একদম হালকা ওজনের অ্যালয় ফ্রেমের এই ই-সাইকেলের অন্যতম হাইলাইট, ফ্রেমের ওপর অবস্থিত এর ব্যাটারি। এই ব্যাটারি প্যাক সহজেই খুলে আলাদা চার্জ দেওয়া যাবে। ব্যাটারি IP67 রেটেড হওয়ায় এটি জল ও ধূলিকণা প্রতিরোধী। এই ই-সাইকেলে ২৫০ ওয়াটের শক্তিশালী হাব মোটর রয়েছে৷ Lectro F6i-এর উভয় প্রান্তে থ্রোটল রয়েছে। ব্যাটারি একবার সম্পুর্ণ চার্জ হয়ে গেলে এটি ৬০ কিমি পর্যন্ত রাইডিং রেঞ্জ দেবে। এই ইলেকট্রিক সাইকেলের সর্বোচ্চ গতি ২৫ কিমি/ঘন্টা। স্মার্টফোন চার্জ দেওয়ার জন্য এখানে ইউএসবি  চার্জিং পোর্টও পাওয়া যাবে।

Lectro F6i-এর পিছনের চাকায় সেভেন স্পিড Shimano Altus গিয়ারবক্স রয়েছে। মসৃণ যাত্রার জন্য এই ই-সাইকেলে টেলিস্কোপিক সাসপেনশন দেওয়া হয়েছে। Kenda K Shiled টেকনোলজি এর টায়ারগুলির স্থায়িত্ব ও গুণমানকে বাড়িয়ে তুলেছে। এছাড়া দুই চাকাতেই থাকা ডিস্ক ব্রেক যেকোনো রাস্তাতেই যাত্রা আরও নিরাপদ করবে। ব্লুটুথ কানেক্টিভিটি ফিচার থাকায় Hero Lectro অ্যাপের সাথে Lectro F6i কানেক্ট করে ব্যবহারকারি লাইভ ট্র্যাকিং, ডিসট্যান্স, লোকেশন, স্পিডোমিটার, ওয়েদারের মতো রিডআউট পাবেন।

প্রিমিয়াম রেঞ্জে আসা এই বৈদ্যুতিন সাইকেল কেনার জন্য খরচ করতে হবে ৪৯,০০০ টাকা। হিরো সাইকেলের ওয়েবসাইট এবং সংস্থার যে কোনো ডিলারশিপে ৫,০০০ টাকা পেমেন্ট করে এটি এখন বুক করা যাচ্ছে। Lectro F6i ইয়েলো/ব্ল্যাক ও রেড/ব্ল্যাক, ডুয়াল টোন কালার স্কিমে উপলব্ধ।

Shuvro primarily writes about smartphone and automobile industry. He is an assistant editor for techgup. Shuvro has a bachelor degree in English literature. His interest also includes cosmopolitan affairs, scientific discoveries, and quizzing.