Hero Pleasure Plus Xtec: তাজ্জব করা ফিচার ও চোখ টানা ডিজাইনের সাথে হিরোর নয়া স্কুটার লঞ্চ হল

Hero Pleasure Plus Xtek-এর দাম রাখা হয়েছে ৬৯ হাজার ৫০০ টাকা

hero-pleasure-plus-xtec-launched-in-india-price-rs-69500-feature

উৎসবের মরসুমে নতুন স্কুটার বাজারে নিয়ে এল হিরো মোটোকর্প (Hero MotoCorp)। ভারতের বৃহত্তম টু-হুইলার সংস্থাটি খুব সম্প্রতি তাদের জনপ্রিয় Pleasure Plus স্কুটারের Xtek ভ্যারিয়েন্ট লঞ্চ করেছে। Hero Pleasure Plus-এর রেগুলার মডেলের থেকে এই নতুন রূপের স্কুটারের দাম ৭ হাজার ৬০০ টাকা বেশি পড়ছে। Hero Pleasure Plus Xtek-এর দাম রাখা হয়েছে ৬৯ হাজার ৫০০ টাকা (এক্স-শোরুম)।

Pleasure Plus-এর অন্যান্য মডেলের মতো এটি পোলেস্টার ব্লু, ম্যাট ভার্নিয়ার গ্রে, ম্যাট ব্ল্যাক, ম্যাট গ্রীন, মিডনাইট ব্ল্যাক, পার্ল সিলভার হোয়াইট, এবং স্পোর্টি রেডের মতো একগুচ্ছ রঙের বিকল্পে কেনা যাবে। এছাড়া কেবলমাত্র নতুন মডেলটির জন্য হলুদ রঙের একটি বিশেষ পেইন্ট স্কিম এনেছে হিরো, যার পোশাকি নাম জুবিল্যান্ট ইয়েলো।

Hero Pleasure Plus Xtek: ডিজাইন

হিরো প্লেজার প্লাস এক্সটেকের ডিজাইনে রেট্রো থিমের ছোঁয়া রয়েছে। রেগুলার মডেলের থেকে লুক অনেকটাই আলাদা। স্কুটারটির মিরর, মাফলার প্রটেক্টর, হ্যান্ডেল বার, সিট ব্যাকরেস্ট, এবং ফেন্ডার স্ট্রাইপে ক্রোম অ্যাকসেন্টের সংযোজন স্টাইলিংয়ে আলাদা মাত্রা এনেছে। সঙ্গে রয়েছে ডুয়াল-টোন সিট এবং রঙিন ইনার প্যানেল। পিলিয়ন সিটের জন্য ব্যাকরেস্ট দেওয়া হয়েছে, যার ফলে হিরো প্লেজার প্লাস এক্সটেকের সাথে আরামদায়ক সফরের গ্যারান্টি দিচ্ছে হিরো।

Hero Pleasure Plus Xtek: ফিচার

মেটাল দিয়ে তৈরি ফ্রন্ট ফেন্ডার হিরো প্লেজার প্লাস এক্সটেক স্কুটারকে টেকসই করে তুলেছে। ফলে মেটার ফ্রন্ট ফেন্ডার এবং ক্রোম এলিমেন্টের কারণে স্কুটারটি সলিড রাইড অফার করার দাবিদার। নতুন প্লেজার প্লাস এক্সটেকের সেমি-ডিজাটাল ইন্সট্রুমেন্ট কনসোল এখন ব্লুটুথ কানেক্টিভিটি সাপোর্ট করবে।

যার ফলে ব্লুটুথের সাহায্যে স্মার্টফোনের মাধ্যমে স্কুটারটি কানেক্ট করলেই স্পিডোমিটার ক্লাস্টার থেকেই জানা যাবে, কে কল করছে বা মেসেজ পাঠাচ্ছে। এছাড়াও ফোনে কতটা ব্যাটারি অবশিষ্ট বা নেটওয়ার্ক দেখা যাবে। সেফটির জন্য হিরো প্লেজার প্লাস এক্সটেকে সাইড-স্ট্যান্ড ভিজুয়াল ইন্ডিকেশন এবং সাইড-স্ট্যান্ড ইঞ্জিন কাট-অফ ফাংশন দেওয়া হয়েছে।

তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হল, এই সেগমেন্টে Hero Pleasure Plus Xtek স্কুটারে প্রথম প্রজেক্টর এলইডি হেডলাইট যোগ করা হয়েছে, যা ২৫ শতাংশ বেশি আলো ফেলে অন্ধকার রাস্তায় গাড়ি চালানোর সমস্যা এক চুটকিতে দূর করবে। আবার কুয়াশা অথবা যে কোনও পরিস্থিতিতে রাস্তা যাতে ভালভাবে দেখা যায়, তার জন্য এটি অ্যান্টি-ফগ প্রযুক্তির সাথে এসেছে।

Hero Pleasure Plus Xtek: মেকানিক্যাল স্পেসিফিকেশন

হিরো প্লেজার প্লাস-এর মতো নয়া এক্সটেক ভ্যারিয়েন্টও ১১০ সিসি-র এয়ার কুল্ড, ফুয়েল ইঞ্জেকটেড ইঞ্জিনে চলবে, যা ৭ হাজার আরপিএম গতিতে ৮ বিএইচপি ও ৮.৭০ এনএম টর্ক উৎপন্ন করবে। ইঞ্জিনের সাথে রয়েছে সিভিটি অটোমেটিক গিয়ারবক্স।

সাসপেনশেনের জন্য Hero Pleasure Plus Xtek-এর সামনে স্প্রিং-লোডেড হাইড্রোলিক ড্যাম্পার এবং সুইংআর্ম ও পিছনে হাইড্রোলিক ড্যাম্পার আছে। রয়েছে ১৩০ মিমি ডিস্ক ব্রেক৷ স্কুটারটির ফুয়েল ট্যাঙ্কে সর্বোচ্চ ৪.৮ লিটার তেল ধরবে। এর গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স ১৫৫ মিমি।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷