ভারতে শীঘ্রই আসছে Hero Xtreme 160R 100 Million Limited Edition মোটরসাইকেল

hero-xtreme-160r-100-million-limited-edition-launching-soon

Hero-র মোটরবাইক নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই। বিশ্বের বৃহত্তম এই মোটরবাইক নির্মাতা বরাবরই জনসাধারনকে সাশ্রয়ী মূল্যের পরিবহন মাধ্যম এবং পরিষেবা দেওয়ার মাধ্যমে গ্রাহকদের ভরসা আদায় করে নিয়েছে। এমনকি বিক্রির নিরিখে Hero Moto Corp ভারতে অন্যান্য টু-হুইলারের নির্মাতাদের পিছনে ফেলে বাজারে এখনও এক নম্বর স্থান নিজের দখলে রেখেছে। Hero সম্প্রতি বিরল একটি নজির গড়েছিল। সংস্থাটি ১০০ মিলিয়ন (১০ কোটি) প্রোডাকশনের মাইলফলক অতিক্রম করার কৃতিত্ব স্থাপন করে। যা উদযাপন করতে সংস্থার পক্ষ থেকে ছ’টি লিমিটেড এডিশন মডেল লঞ্চ করার কথা ঘোষণা হয়। যার মধ্যে অন্যতম ছিল Xtreme 160R 100 Million Limited Edition।

লিমিটেড এডিশনের এক্সট্রিম ১৬০ আর মোটরসাইকেলটিকে এখন হিরো-র অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে তালিকাভুক্ত অবস্থায় দেখা গেছে। যা এর খুব তাড়াতাড়ি লঞ্চ হওয়ার দিকে ইঙ্গিত করছে। লিমিটেড এডিশন মডেলে নতুনত্ব হিসেবে নয়া কালার স্কিম থাকবে। হিরোর লোগোতে থাকা কালারের সাথে সামঞ্জস্য রেখে এক্সট্রিম ১৬০ আর ১০০ মিলিয়ন লিমিটেড এডিশন মডেলে সাদা-লাল পেইন্ট ওয়ার্ক থাকবে। ‘১০০’ মিলিয়ন গ্রাফিক্স মোটরসাইকেলের শরীরের বিভিন্ন অংশে দেওয়া হবে। এছাড়া, এগজিস্টিং মডেলের সাথে এর অন্য কোনো পার্থক্য থাকবে না।

Hero Xtreme 160R এখন দুটি ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাচ্ছে। সিঙ্গেল ডিস্ক ব্রেক এবং ডুয়াল ডিস্ক ব্রেক। ফ্রন্ট ডিস্ক ভ্যারিয়েন্টের দাম ১,০৩,৭০০ টাকা (এক্স-শোরুম, কলকাতা)। অপরদিকে ডুয়াল ডিস্ক ব্রেক ভ্যারিয়েন্ট কেনার জন্য খরচ করতে হয় ১,০৬,৭০০ টাকা (এক্স-শোরুম, কলকাতা)। নতুন কালার সংযুক্ত করার ফলে বাইকটির স্পেশাল এডিশন মডেলের দাম সামান্য কিছু বাড়ানো হবে বলে অনুমান করা যায়।

Hero Xtreme 160R মোটরবাইকে রয়েছে অত্যাধুনিক XSens প্রোগ্রাগড ফুয়েল ইনজেকটেড প্রযুক্তির ১৬৩ সিসি ইঞ্জিন। যা সর্বোচ্চ ১৫ বিএইচপি (১১.২ kwh) শক্তি এবং ১৪ এনএম পর্যন্ত টর্ক জেনারেট করতে পারে। ৬০ কিমি গতিবেগ তুলতে বাইকটি কেবল ৪.৭ সেকেন্ড সময় নেয়। বাইকটির অন্যান্য ফিচারের মধ্যে পাবেন সিঙ্গেল চ্যানেল এবিএস, ফুল-এলইডি লাইটিং, ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার, প্রভৃতি।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন