এক চার্জে চলবে ২৮০ কিমি, অক্টোবরে বাজারে আসছে Honda e Electric Hatch

honda-e-electric-hatch-to-launch-in-october-in-global-market

এখন অনেক গাড়ি নির্মাতাই জীবাশ্ম জ্বালানী চালিত গাড়ির ওপর নির্ভরতা কমিয়ে বৈদ্যুতিক গাড়ি বানানোর দিকে অগ্রসর হচ্ছে। পরিবেশ দূষণ কমানোর উদ্দেশ্যে এখন এই বৈদ্যুতিক গাড়িই যে একমাত্র বিকল্প তা নিয়ে সন্দেহের অবকাশ নেই। বহু সংস্থাই সেডান এবং এসইউভি শ্রেণীর বৈদ্যুতিক গাড়ির ম্যানুফ্যাকচারিং এর দিকে ঝুঁকছে। তবে কিছু সংস্থা এমনও আছে যারা বিপরীত পথে হেঁটে অপেক্ষাকৃত সস্তা এবং হ্যাচব্যাক শ্রেণীর বৈদ্যুতিক গাড়ি বাজারে আনার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেছে।

জাপানী অটোমেকার Honda এমনই একটি বৈদ্যুতিক গাড়ি ইউরোপের বাজারে অক্টোবরে লঞ্চ করবে। Honda e নামের এই EV (Electric vehicle) একটি হ্যাচব্যাক মডেল যেটি মূলত শহরে চালানোর জন্য উপযুক্ত। তবে যেখানে Tesla, Audi বা Hyundai এর মতো গাড়ি নির্মাতারা দীর্ঘ ড্রাইভিং রেঞ্জের এসইউভি গাড়ির ডেভলপমেন্টের ওপর কাজ করছে, সেখানে চার মিটারের চেয়েও কম দৈঘ্যসম্পন্ন ও কমপ্যাক্টনেসকে প্রাধান্য দিয়ে ম্যানুফ্যাকচার করা Honda e যে বেশ ব্যতীক্রমী তা নিঃসন্দেহে বলা যেতে পারে ৷

বৈদ্যুতিক গাড়িতে ব্যবহৃত ব্যাটারি বেশ খরচসাপেক্ষ হওয়ার জন্য EV এখনো প্রিয়িমাম শ্রেণীর গাড়ি হিসেবেই থেকে গেছে। টেসলার Model 3 গাড়িটি, ব্যাটারি EV এর বাজারে আধিপত্য বিস্তার করে আছে। তুলনা করলে Honda e এর ব্যাটারি ক্যাপাসিটি Tesla Model 3 এর অর্ধেক। সিঙ্গেল চার্জে Honda e গাড়িটি ২৮০ কিলোমিটার পর্যন্ত চলতে পারে।

Honda e এর রেট্রো এবং আল্ট্রা কমপ্যাক্ট ডিজাইনের সাথে অনেকে হোন্ডার classic N360 and N600 গাড়ির সাদৃশ্য পাবেন। Honda e এর দাম রাখা হয়েছে ৩৩,০০০ ইউরো অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ২৮.৯১ লক্ষ টাকা। হোন্ডা জানিয়েছে, গাড়িটির ইঞ্জিনিয়ারিং এমনভাবে করা হয়েছে যাতে তীক্ষ্ণ হ্যান্ডেলিং এর মাধ্যমে গাড়িটি সহজেই সংকীর্ণ রাস্তায় ইউ-টার্ন নিতে সক্ষম হয়। গাড়ির সাইড মিরর গুলি যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হতে পারে সেজন্য সেগুলি ইন্টেরিয়র ডিসপ্লের সাথে প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া গাড়িটিতে ফাইভ ইন্ট্রিগেটেড হাই রেজুলেশানের কালার স্ক্রিন সহ ডিজিট্যাল ড্যাশবোর্ড থাকছে।

তবে গাড়িটির উপলব্ধতা এখন ইউরোপ মহাদেশ এবং জাপানের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রাখা হয়েছে। Honda ইউরোপে গাড়িটির ১০,০০০ ইউনিট এবং জাপানে ১,০০০ ইউনিট অ্যানুয়াল সেলের লক্ষ্য রেখেছে।