দীপাবলিতে মোবাইল দিয়ে আলো-বাজির সেরা ছবি তুলতে কাজে লাগান এই ১১টি টিপস

কীভাবে দিওয়ালির আলোকোজ্জ্বল ছবিগুলিকে আপনার স্মার্টফোনে অত্যন্ত সুন্দরভাবে ক্যাপচার করবেন জেনে নিন

how-to-click-beautiful-photos-of-diwali-lights-and-firecrackers-on-your-smartphone

সারা দেশ আজ আলোর উৎসব দিওয়ালি খুব ধুমধাম করে উদযাপন করছে। দেশের প্রতিটি ছোটো-বড়ো শহর এবং গ্রামগুলিতে আজ আলোর রোশনাই এবং ঝলমলে আতশবাজি দেখা যাবে। আপনি যদি এই সুন্দর মুহুর্তগুলিকে ক্যাপচার করতে চান, তবে ব্যয়বহুল DSLR ক্যামেরার প্রয়োজন নেই, আপনি আপনার স্মার্টফোনেই এই দুর্দান্ত ছবিগুলি তুলতে পারেন। যদিও ছবির গুণমান বিভিন্ন ফোনে পরিবর্তিত হতে পারে, কিন্তু উৎসবের এই মনোমুগ্ধকর মুহূর্তগুলি ক্যামেরাবন্দি করার জন্য আপনার হাতের ডিভাইসটি যথেষ্ট। এই প্রতিবেদনে আমরা কীভাবে দিওয়ালির আলোকোজ্জ্বল ছবিগুলিকে আপনার স্মার্টফোনে অত্যন্ত সুন্দরভাবে ক্যাপচার করবেন, সে বিষয়ে কিছু টিপস শেয়ার করব। এগুলি অনুসরণ করলে কোনো দক্ষ ফটোগ্রাফার দুর্দান্ত ক্যামেরার সাহায্য নিয়ে ছবিগুলি তুলেছে বলে সবাই মনে করবে।

আপনার স্মার্টফোনটি ছবি তোলার জন্য যথার্থভাবে প্রস্তুত করুন

দিওয়ালির এই সুন্দর রঙিন মুহুর্তগুলি ক্যাপচার করার জন্য আপনাকে প্রথমে যে কাজটি করতে হবে তা হল আপনার স্মার্টফোনটি যথাযথভাবে প্রস্তুত করা। অর্থাৎ ছোটখাটো কিছু কাজ, যেমন – কিছুটা জায়গা খালি করতে আপনার ফোনটিকে ডিক্লাটারিং করা, লেন্সগুলিকে ঠিকভাবে পরিষ্কার করা, ফোনে যথোপযুক্ত চার্জ দিয়ে রাখা, ইত্যাদি। এইসব ছোটখাটো কাজগুলি আগে থেকে সারা থাকলে যথাসময়ে ছবি তুলতে আর কোনো সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে না।

সঠিক সেটিংস ব্যবহার করুন

আজকাল বেশিরভাগ স্মার্টফোনে বিভিন্ন পরিস্থিতিতে ছবি তোলার জন্য ডেডিকেটেড ক্যামেরা সেটিংস রয়েছে। দিওয়ালির ছবিগুলি তোলার আগে সেগুলি সঠিকভাবে সেট করতে ভুলবেন না। স্মার্টফোনে দুর্দান্ত ছবি তোলার জন্য কিছু ক্যামেরা সেটিংস মোড সেট করা একান্ত জরুরি। এগুলির মধ্যে রয়েছে Grid lines, HDR মোড, Low light মোড, Motion Tracking ফিচার এনাবেল করা, ইত্যাদি। আপনি যদি ম্যানুয়ালি সেটিংস পরিবর্তন নাও করতে চান, তাহলেও এই ডিফল্ট সেটিংসগুলি যদি আপনার ফোনে করা থাকে, তাহলে দুর্দান্ত ছবি তোলা আপনার কাছে এককথায় জলবৎ তরলং!

Night mode ব্যবহার করুন

বেশিরভাগ স্মার্টফোনের নাইট মোড, ফ্ল্যাশ ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা দূর করে এবং ফ্রেমের প্রতিটি অংশে সমানভাবে আলো বিতরণ করে। যদিও কেউ কেউ এই বিষয়টিতে একমত নাও হতে পারেন, কিন্তু রাতে ঝকঝকে ছবি তুলতে গেলে নাইট মোড ব্যবহার করাই শ্রেয়।

ডিজিটাল জুম ব্যবহার করবেন কি?

কোনো ছবির ক্লোজার শট পেতে হলে স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে ডিজিটাল জুম ব্যবহার করা একটু জটিল। আপনি যদি ডিজিটাল জুম ব্যবহার করে আপনার স্মার্টফোনে ছবি তোলেন, তাহলে ছবিটির গুণমান হ্রাস পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যদি আপনার ফোনে একটি ডেডিকেটেড টেলিফটো সেন্সর থাকে, তাহলে সেক্ষেত্রে আপনি ডিজিটাল জুম অপশনটি ব্যবহার করতেই পারেন, কিন্তু তা না হলে এই ফিচারটি ব্যবহার না করাই শ্রেয়।

আতশবাজির ছবি কীভাবে তুলবেন?

দিওয়ালির অন্যতম প্রধান আকর্ষণ হল আতশবাজি, তাই এর ছবি তোলা তো বাধ্যতামূলক। আজকাল স্মার্টফোনগুলি একটি Sports মোড সহ আসে, যা শাটার স্পিড বাড়ায় এবং এমনকি আপনি যার ছবি তোলার চেষ্টা করছেন তার স্পিডকেও ট্র্যাক করে। কিছু কিছু স্মার্টফোনে Burst মোডও রয়েছে, যেখানে আপনি পরপর একাধিক শাটার করতে পারেন। আবার, কিছু স্মার্টফোনে light trail মোড এবং firecracker মোড উপস্থিত, যা আপনাকে আতশবাজি ট্র্যাক করার পাশাপাশি সেগুলির ছবি তুলতে সহায়তা করবে। যদি আপনার ফোনে উল্লিখিত মোডগুলির কোনওটি না থাকে, তবে শাটার স্পিড ম্যানুয়ালি সেট করতে Manual বা Pro মোড ব্যবহার করার চেষ্টা করুন।

ফিল্টার ব্যবহার করুন

এখন সাধারণভাবে তোলা ছবির চেয়ে ফিল্টার করা ছবিগুলি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে পোস্ট করার চল বেড়েছে। পাশাপাশি আলোর এই উৎসবের অনুভূতিকে প্রাণবন্ত রাখতে ফিল্টার ব্যবহার করা একান্ত জরুরি। আপনি হয় এই ফিল্টারগুলি অন করে ফটো ক্লিক করতে পারেন অথবা ক্লিক করা ছবিগুলি এডিট করার সময় এই ফিল্টারগুলি ব্যবহার করতে পারেন।

Manual মোড ব্যবহার করার চেষ্টা করুন

Manual বা Pro মোড কোনো ছবির নিখুঁত রঙ বজায় রাখতে সহায়তা করে, ফলে ছবিগুলি পরবর্তীকালে দেখার সময় আরও আকর্ষণীয় হয়ে ওঠে। দুর্দান্ত ও আকর্ষক ছবি পেতে গেলে প্রতিটি ছবির জন্য সঠিক এক্সপোজার এবং শাটার স্পিড সেট করা প্রয়োজন। স্মার্টফোনের AI-এর উপর নির্ভর না করে যদি আপনি সুন্দর ছবি তুলতে চান, তাহলে অবশ্যই Manual মোড ব্যবহার করুন।

ব্রাইটনেস এবং এক্সপোজারের ওপর নজর দিন

দিওয়ালির রাতে যখন সমস্ত ঘরবাড়িগুলি প্রদীপ, মোমবাতি, ছোটো ছোটো LED বাল্ব, ইত্যাদি দিয়ে সাজানো হয় এবং ছোটো-বড়ো নির্বিশেষে সকলে আতশবাজি ফাটানোয় মত্ত হয়ে ওঠে, সেই সময়গুলি ক্যাপচার করে রাখাই এই উৎসবের দিনে মানুষের মূল লক্ষ্য হয়ে থাকে। রাতে কম আলোয় ভালো ছবি তুলতে গেলে আপনাকে ফ্রেমের ওভারঅল ব্রাইটনেস অ্যাডজাস্ট করতে হবে। যেহেতু দিওয়ালির রাতে আকাশে একরাশ আলোর রোশনাই দেখা যায়, তাই দুর্দান্ত ছবি পেতে হলে এক্সপোজার ম্যানুয়ালি অ্যাডজাস্ট করাই শ্রেয়।

স্লো মোশন ব্যবহার করুন

স্লো মোশন (স্লো-মো নামে পরিচিত) ফিচারটি ব্যবহার করে দুর্দান্ত ভিডিও তোলা যেতে পারে। আপনার ফোনে সঠিকভাবে এই মোডটি সেট করে রাখলে একটি আতশবাজির উৎক্ষেপণ থেকে শুরু করে আকাশে গিয়ে ফেটে যাওয়া পর্যন্ত পুরো ভিডিওটি আপনি দুর্দান্তভাবে এই ফিচারের সাহায্যে রেকর্ড করতে পারবেন। স্লো মোশন ভিডিও রেকর্ড করতে স্মার্টফোনের লেন্সকে ১২০ এফপিএস-এ সেট করা উচিত (বেশিরভাগ)। তাই ভিডিও রেকর্ড করার আগে আপনার ফোনে এই মোডটি এনাবেল করা আছে কি না সে বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে নিন।

দুর্দান্ত সেলফি তুলতে হলে চারপাশের পরিবেশকে ব্যবহার করুন

দিওয়ালি রাতে যেদিকেই তাকানো যায়, সেদিকেই শুধু আলো আর আলো। উজ্জ্বল, ঝকঝকে, সুন্দর সুন্দর প্রদীপ, আতশবাজি, ছোটো ছোটো LED বাল্ব দিওয়ালির মেজাজকে আরও প্রাণবন্ত করে এবং পারিপার্শ্বিক সৌন্দর্যকে বহুগুণে বাড়িয়ে তোলে। তাই এমত পরিস্থিতিতে আপনি যদি একটি সেলফি তুলতে চান, তাহলে ব্যাকগ্রাউন্ডে এই চারপাশের আলোকোজ্জ্বল পরিবেশকে রাখা একান্ত জরুরি। আর আপনার ফোনে যদি ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স থেকে থাকে, তাহলে তো সোনায় সোহাগা! কারণ এর মাধ্যমে আপনি চারপাশের পরিবেশের অনেকটা আপনার সেলফিতে ক্যাপচার করতে পারবেন।

প্রপস হিসাবে ল্যাম্প এবং ঝকঝকে আলো ব্যবহার করা

আমরা সবাই জানি যে, ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড তার উষ্ণতা ও সৌন্দর্যকে আরও বহুগুণে বাড়িয়ে তোলে। তাই দিওয়ালির রাতে আপনি আপনার তোলা যে কোনো ছবিতে যদি ঝকঝকে আলো এবং ল্যাম্পের মতো প্রপস ব্যবহার করেন, তাহলে সেই ছবিগুলি আরও চিত্তাকর্ষক হয়ে উঠবে। কিছু স্মার্টফোনে Bokeh মোড রয়েছে (আপনি portrait মোডও ব্যবহার করতে পারেন), যেখানে ফোকাল ব্লার ব্যাকগ্রাউন্ডের আলোগুলিকে ফুলের তোড়ায় পরিণত করে। এর ফলে ছবিগুলি আরও নান্দনিক ও আকর্ষণীয় হয়ে ওঠে, এবং ফলস্বরূপ মানুষ বারংবার এই ছবিগুলি দেখতে আগ্রহী হবে। তাই এমনি সাধারণভাবে ছবি তোলার চাইতে ছবিতে প্রপস ব্যবহার করা দিওয়ালির রাতে বেশ কার্যকর বলেই পর্যবসিত হতে পারে।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।