৭ দিন পর গায়েব হবে মেসেজ, কিভাবে ব্যবহার করবেন হোয়াটসঅ্যাপ ডিসঅ্যাপেয়ারিং মেসেজ ফিচার

মাসের শুরুতেই WhatsApp তার FAQ পৃষ্ঠার মাধ্যমে জানিয়েছিল, খুব তাড়াতাড়ি তারা তাদের ইউজারদের জন্য ‘Disappearing Messages’ নামের একটি মজাদার ফিচার আনতে চলেছে। এমনকি সেইসময় WhatsApp-এর বিটা ভার্সনে ‘Disappearing Messages’ ফিচার সংক্রান্ত কিছু আপডেটও দেওয়া হয়েছিল। তবে গতকাল ফেসবুকে মালিকানাধীন সংস্থাটি আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে যে, এই মাসের মধ্যেই সমস্ত ইউজারদের জন্য উপলব্ধ হবে বহুল প্রতীক্ষিত ফিচারটি। রিপোর্ট অনুযায়ী, অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস এবং লিনাক্স-বেসড কাইওএস (KaiOS), সমস্ত প্ল্যাটফর্মের ইউজাররা হোয়াটসঅ্যাপ ডিসঅ্যাপেয়ারিং মেসেজ ব্যবহার করতে পারবেন।

কীভাবে কাজ করবে এই ‘ডিসঅ্যাপেয়ারিং মেসেজ’ ফিচার

রিপোর্ট অনুযায়ী, ‘ডিসঅ্যাপেয়ারিং মেসেজ’ অপশনটি অন করে রাখলে সাধারণ চ্যাট বা গ্রুপ চ্যাটগুলি সাত দিনের পর স্বয়ংক্রিয়ভাবে অদৃশ্য হয়ে যাবে। ইউজাররা যেকোনো সময় অপশনটি এনাবেল বা ডিসাবেল করতে পারবেন, এবং নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে চ্যাটের টেক্সট মেসেজ বা মিডিয়া ফাইলগুলি সেভ করে রাখতে পারবেন। আপাতত এই ফিচারটি চালু হলে মেসেজ স্বয়ংক্রিয়ভাবে ডিলিট হওয়ার জন্য ৭ দিনের সময়সীমা থাকবে, ইউজাররা নিজের ইচ্ছেমত সময় সেট করতে বা কাস্টমাইজ করার জন্য কোনো বিকল্প পাবেননা।

জানিয়ে রাখি, ফিচারটি উপলব্ধ হওয়ার আগে যে সমস্ত চ্যাট করা হয়েছে সেক্ষেত্রে ফিচারটি কার্যকরী হবেনা। এছাড়া নতুন মেসেজগুলি ফরওয়ার্ড করা হলে সেক্ষেত্রেও নির্দিষ্ট সময় ফরওয়ার্ডেড মেসেজগুলি অদৃশ্য হবেনা। আবার ইউজাররা যদি মেসেজ ডিলিট হওয়ার আগে চ্যাট ব্যাকআপ নিয়ে রাখেন সেক্ষেত্রেও মেসেজগুলি থেকে যাবে। অন্যদিকে কোনো ইউজার ‘ডিসঅ্যাপেয়ারিং মেসেজ’ আপনাকে পাঠালে আপনি যদি সেটির রিপ্লাই দেন এবং আপনার যদি ডিসঅ্যাপেয়ারিং অপশন অন না থাকে তাহলে আপনার করা মেসেজটি ৭ দিন পরেও থেকে যেতে পারে।

কীভাবে ‘ডিসঅ্যাপেয়ারিং মেসেজ’ ফিচারটি ব্যবহার করবেন

ফিচারটি উপলব্ধ হওয়ার পর ‘ডিসঅ্যাপেয়ারিং মেসেজ’ অন বা অফ করতে প্রথমে যেকোনো হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট খুলতে হবে। এরপর সেই ইউজারের নামের ওপর ট্যাপ করলেই দেখা যাবে ‘Disappearing messages’ অপশন। সেখান থেকে ‘Continue’ অপশনে ক্লিক করে ফিচারটি অন-অফ করা যাবে।

প্রসঙ্গত, গতকাল রাতেই জানা গিয়েছে কেন্দ্রীয় সংস্থা NPCI-এর তরফে সবুজ সংকেত পাওয়ায় আসন্ন দিনগুলিতে হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট বা কলিং ছাড়াও করা যাবে UPI পেমেন্ট। ফলে ডিজিটাল পেমেন্টের জন্য অন্য কোনো অ্যাপ্লিকেশন ফোনে ইন্সটল না রাখলেও চলবে। সুতরাং, হোয়াটসঅ্যাপ যে বলে বলে ছক্কা মারছে তাতে কোনো সন্দেহ নেই!

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।