HCPL বৈদ্যুতিক গাড়ির জন্য আগামী তিন বছরের মধ্যে ৫ হাজার চার্জিং স্টেশন তৈরি করবে

৩ বছরের মেয়াদে দেশজুড়ে ৫,০০০ ইলেকট্রিক ভেহিকেল চার্জিং স্টেশন তৈরি করবে হিন্দুস্থান পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন

hpcl-to-make-5-thousands-charging-station-for-electric-car

দেশে বৈদ্যুতিক গাড়ির সহায়ক পরিবেশ গড়ে তোলার জন্য সবার প্রথমে দরকার চার্জিং স্টেশনের। মাঝরাস্তায় চার্জ ফুরিয়ে গেলে বাড়ি ফিরবো কী করে! এই চিন্তা থেকে এখনও বৈদ্যুতিক গাড়ি কিনতে দ্বিধাবোধ করেন অনেকেই। তাহলে সেটা কাটানোর উপায়? পর্যাপ্ত চার্জিং স্টেশন তৈরি করতে হবে গোটা দেশে। দেশে পেট্রোল পাম্পের মতো চার্জিং স্টেশনের পরিকাঠামো গড়ে উঠলে তবেই বৈদ্যুতিক গাড়িতে উত্তোরণের পথ সহজ হবে। সেই লক্ষ্য থেকে এবার ৩ বছরের মেয়াদে দেশজুড়ে ৫,০০০ ইলেকট্রিক ভেহিকেল চার্জিং স্টেশন তৈরি করবে হিন্দুস্থান পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন বা এইচপিসিএল (HPCL)।

ইকনমিক টাইমসের এক সাক্ষাতকারে এইচপিসিএল-এর চেয়ারম্যান এবং ম্যানেজিং ডিরেক্টর এম কে সুরানা বলেছেন, “পরবর্তীকালে কেমিক্যাল, বায়োফুয়েলস, ইভি, হাইড্রোজেন ব্যবসা বৃদ্ধির গতিকে পরিচালনা করবে। তাই ভবিষ্যতের জন্য আমাদের তৈরি হতে হবে। বৈদ্যুতিক গাড়ি জনপ্রিয় হতে কিছুটা সময় লাগবে। কিন্তু যখনই সেই সময় আসবে, আমরা প্রস্তুত থাকতে চাই।”

তেলের চাহিদায় ভাটা পড়বে এই আশঙ্কা থেকেই কি চার্জিং স্টেশন তৈরির লক্ষ্য নিচ্ছে এইচপিসিএল?

সুরানা অবশ্য স্পষ্ট করে বলেছেন, এরকম ভাবার কারণ নেই যে তেলের চাহিদা হ্রাস পাবে। তিনি বলেন, “আমরা আমাদের আউটলেটে প্রতিটি শক্তির উৎস দিতে চাই যা একজন গাড়ি মালিকের প্রয়োজন। তা সে তেল হোক বা বৈদ্যুতিক শক্তি। পেট্রোলচালিত গাড়ি থাকলে আমাদের রিটেল আউটলেট থেকে যে যেমন তেল ভরে নিতে পারে, তেমনই বৈদ্যুতিক গাড়ি থাকলে তার চার্জ দেওয়ার ব্যবস্থা আমরা রাখতে চলেছি।”

এইচপিসিএল বৈদ্যুতিক গাড়ির চার্জিং স্টেশন তৈরি করার জন্য দেশজুড়ে তাদের ফুয়েল পাম্পের উপস্থিতি, মানুষের ভরসা, এবং গ্রাহকদের সেবা করার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাতে চাইছে। বর্তমানে ভারতে ১৯,০০০-এর উপরে ফুয়েল রিটেল আউটলেট রয়েছে সংস্থাটির। এইচপিসিএলের প্রস্তাবিত ৫,০০০ চার্জিং স্টেশন ফুয়েল রিটেল আউটলেটেই স্থাপন করা হবে। যাতে প্রথাগত গাড়িতে তেল ভরার পাশাপাশি সেখানেই পরিবেশবান্ধব বৈদ্যুতিন গাড়ি চার্জ দেওয়ার সুবিধা দেওয়া যায়। উল্লেখ্য, এখন ভারতজুড়ে এইচপিসিএলের ৮৫টি চার্জিং স্টেশন রয়েছে এবং প্রত্যেকটি পেট্রোল পাম্পেই অবস্থিত।

এছাড়া চার্জিং স্টেশন তৈরি করার জন্য টাটা পাওয়ার (Tata Power) এবং কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ মন্ত্রকের অধীনস্থ এনার্জি এফিসিয়েন্সি সার্ভিসেস লিমিটেড (Energy Efficiency Services Limited) বা EECL এর সহযোগী সংস্থা কনভারজেন্স এনার্জি সার্ভিসেস লিমিটেড (Convergence Energy Services Ltd) বা CESL-এর সঙ্গে পার্টনারশিপ রয়েছে হিন্দুস্থান পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷