স্মার্টফোনের পাশাপাশি ৩০ মিনিটে চার্জ হয়ে যাবে ল্যাপটপ, Huawei আনছে 135W ফাস্ট চার্জার

huawei-13w-fast-charger-coming-soon-could-charge-laptop-smartphone-with-in-30-minutes

আজকালকার কর্মব্যস্ত জীবনে মানুষের হাতে সময় খুবই কম। ফলে গুরুত্বপূর্ণ কাজের মাঝে ঘন্টাখানেক ধরে মোবাইল বা ল্যাপটপ চার্জ করার ধৈর্য এখন কারোরই প্রায় নেই। তাই এই সমস্যার সমাধান করতে বিভিন্ন ট্রেক ব্র্যান্ড গুলি ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তির ওপর কাজ করছে। এবার এই সমস্ত ব্র্যান্ডের তালিকায় নাম লেখাতে চলেছে Huawei। আসলে প্রিমিয়াম স্মার্টফোন ব্র্যান্ডটি খুব শীঘ্রই স্মার্টফোন এবং ল্যাপটপের জন্য ১৩৫ ওয়াট ফাস্ট-চার্জিং টেকনোলজি (Huawei 135W Fast Charging technology) নিয়ে আসার ঘোষণা করেছে। বিশেষত্বের কথা বললে, এটি আধ ঘন্টারও কম সময়ের মধ্যে ল্যাপটপ সহ স্মার্টফোনকে ফুল চার্জ করবে বলে দাবি করেছে সংস্থাটি। আসুন এই চার্জারটির বিষয় কি কি তথ্য সামনে এসেছে জেনে নেওয়া যাক।

Huawei স্মার্টফোন ও ল্যাপটপ চার্জার :

বিগত বেশ কিছু সময় ধরে, Lenovo, Xiaomi -এর মতো নামিদামি সংস্থাগুলি ফাস্ট-চার্জিং টেকনোলজি নিয়ে কাজ করছে এবং সেই সংক্রান্ত কয়েকটি প্রোডাক্টও তারা ইতিমধ্যেই লঞ্চ করেছে। এবার এই তালিকায় নাম লেখাতে চলেছে চীনা টেক সংস্থা হুয়াওয়ে। সংস্থাটির আসন্ন ১৩৫ ওয়াট ফাস্ট-চার্জার মডেলটির বিশেষত্ব হলো, এটি স্মার্টফোনের পাশাপাশি ল্যাপটপকেও চার্জ করবে মাত্র ৩০ মিনিটের মধ্যেই। ফলে হুয়াওয়ে এই চার্জারটি লঞ্চ হওয়ার আগেই রীতিমত সাড়া ফেলে দিয়েছে ইলেক্ট্রনিক্স বাজারে।

IMG-20210607-WA0000

সম্প্রতি মাইক্রো-ব্লগিং সাইট Weibo তে একজন টিপস্টারের পোস্ট থেকে হুয়াওয়ের এই আপকামিং ডিভাইসটির সম্পর্কে বেশ কিছু তথ্য জানা গেছে। উক্ত হুয়াওয়ে ফাস্ট-চার্জারটির মডেল নম্বর : HW-200A00P00 এবং এটি ২০V/৬.৭৫A (১৩৫.০ ওয়াট) ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ আসবে। এছাড়া, ১৩৫ ওয়াট ক্যাপাসিটির এই শক্তিশালী চার্জারটি সাদা রঙ এবং স্প্লিট পিন স্ট্রাকচারের সাথে লঞ্চ হতে পারে। স্মার্টফোন এবং ল্যাপটপকে চার্জ করতে এতে একটি ইউএসবি টাইপ-সি ইন্টারফেস দেওয়া হয়েছে। চার্জারটিকে মূলত নোটবুক সিরিজের ল্যাপটপগুলির জন্য বিশেষ ভাবে তৈরী করা হলেও, বাজারে উপলব্ধ অধিকাংশ ডিজিটাল প্রোডাক্টকে চার্জ করতে এটিকে ব্যবহার করা যাবে। তদুপরি, PD, DCP, QC2.0, QC4, FCP, SCP সহ একাধিক প্রোটোকলের সাথেও এই আসন্ন ডিভাইসটি সামঞ্জস্যপূর্ণ। জানিয়ে রাখি, হুয়াওয়ের এই স্মার্টফোন ও ল্যাপটপ চার্জারটি ইতিমধ্যেই FCC সার্টিফিকেশন পেয়ে গেছে। তাই অনুমান করা যাচ্ছে এটিকে খুব শীঘ্রই বাজারে লঞ্চ করা হবে।

প্রসঙ্গত হালফিলে শাওমি ২০০ ওয়াট ফাস্ট-চার্জিং টেকনোলজি (Xiaomi 200W HyperCharge technology) লঞ্চ করেছে, যা শুধুমাত্র স্মার্টফোনকেই চার্জ করে। যদিও এটি এখনও বাজারে আসেনি। অন্যদিকে, হুয়াওয়ে -এর আসন্ন চার্জারটি ১৩৫ ওয়াট ক্যাপাসিটির হলেও, এটি স্মার্টফোনের সাথে ল্যাপটপকেও চার্জ করবে। তাই হুয়াওয়ে -এর এই প্রযুক্তি দ্রুত জনপ্রিয়তা পাবে বলে আমাদের অনুমান।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।