ডিসপ্লের যেকোনো জায়গায় টাচ করলে ফোন হবে আনলক, Huawei আনছে অল-স্ক্রিন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর

Huawei তাদের নতুন ফোনে অল-স্ক্রিন ফিঙ্গারপ্রিন্ট অথেন্টিকেশন ফিচারের ওপর কাজ করছে।

Huawei
Huawei may bring all-screen fingerprint unlock feature

সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে স্মার্টফোনের ডিজাইন বা ফিচারে বেশ পরিবর্তন আসছে। বিভিন্ন সংস্থা তাদের নতুন ফোনগুলি আকর্ষণীয় করে তোলার চেষ্টা করছে। এখনকার দিনে আমরা মিড রেঞ্জ স্মার্টফোনে ইন-ডিসপ্লে ফ্রন্ট ক্যামেরা বা ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর দেখি। তবে এবার Huawei, তাদের স্মার্টফোনে এমন একটি ফিচারের ওপর কাজ করছে, যা হয়তো আগামী দিনে আমরা বাজারের অন্যান্য ফোনগুলিতেও দেখতে পাবো।

আসলে Huawei তাদের নতুন ফোনে অল-স্ক্রিন ফিঙ্গারপ্রিন্ট অথেন্টিকেশন ফিচারের ওপর কাজ করছে। অল-স্ক্রিন ফিঙ্গারপ্রিন্ট ফিচারের সাহায্যে ইউজাররা ডিসপ্লের যে কোনো জায়গায় স্পর্শ করে ফোন বা কোনো নির্দিষ্ট অ্যাপ আনলক করতে পারবেন। আসুন জেনে নিই হুয়াওয়ের এই অল স্ক্রিন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর সম্পর্কে।

বিশেষজ্ঞদের ধারণা অল-স্ক্রিন ফিঙ্গারপ্রিন্ট ফিচারের জন্য একাধিক সেন্সর প্রয়োজন, ফলে বদলে যেতে পারে স্মার্টফোনের ডিজাইন। শুধু তাই নয়, এই ফিচারটির জন্য ফোনের ব্যাটারি লাইফ কমে যেতে পারে, তাত্ত্বিক ক্ষেত্রে বাড়তে পারে বিদ্যুৎ খরচ। এই বিষয়ে সংস্থাটি জানিয়েছে, তারা বায়োমেট্রিক সেন্সরগুলির ব্যয় হ্রাস করার জন্য কাজ করছে এবং খুব তাড়াতাড়ি প্রযুক্তিটি বাজারে পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করছে। শুধু তাই নয়, একাধিক সেন্সরের প্রভাবে স্ক্রিনের দ্বারা ব্যাটারি কনজাম্পশন বাড়ার বিষয়টি নিয়েও ভাবছে হুয়াওয়ে।

এছাড়া, হুয়াওয়ে বলেছে, আঙুলের ব্যবহার করতে সেন্সরগুলি পুরো স্ক্রিনটি জুড়ে ব্যবহার হবেনা। এটি কেবলমাত্র স্ক্রিনের সেই অংশের বিদ্যুৎ শক্তি ব্যবহার করবে যেখানে আপনার থাম্ব অর্থাৎ আঙুল সবচেয়ে বেশি স্পর্শ করে। এর জন্য সংস্থাটি মেশিন লার্নিং ফিচার ব্যবহার করবে।

এই প্রযুক্তিসহ ইন-ডিসপ্লে ক্যামেরাযুক্ত ফোনগুলি কবে বাজারে আসবে সেবিষয়েও মোটামুটি ধারণা দিয়েছে হুয়াওয়ে। সংস্থাটি জানিয়েছে এখনো নির্দিষ্ট তারিখ নির্ধারণ করা হয়নি, তবে আগামী দু-একটি প্রজন্মের মধ্যেই এই ফিচারটি আসবে। প্রসঙ্গত, সংস্থাটি তার স্মার্ট চশমার দ্বিতীয় জেনারেশনের ওপরেও কাজ করছে বলে জানা গেছে। Huawei Eyewear II নামে পরিচিত এই উইয়ারেবল (পরিধানযোগ্য) প্রোডাক্টটি খুব শীঘ্রই লঞ্চ হবে।