শেষের শুরু! Honor এর পর জনপ্রিয় P ও Mate ব্র্যান্ড বিক্রি করতে পারে Huawei

huawei-may-sale-p-and-mate-brands-after-honor-report.jpg

গত বছর থেকেই বিশ্ব বাজারে নানারকম বাধার মুখে পড়েছে Huawei। এমনকি সংস্থাটি কয়েক মাস আগেই নিজের সাব-ব্র্যান্ড Honor-এর স্বত্ব অন্য কোম্পানির হাতে তুলে দিয়েছে। তবে এবার জল্পনা শুরু হয়েছে, চীনা প্রযুক্তি জায়ান্টটি তার P এবং Mate স্মার্টফোন ব্র্যান্ড দুটিও বিক্রি করার কথা ভাবছে। এর জন্য সংস্থাটি বিনিয়োগকারীদের সাথে আলোচনা করছে বলেও জানা গেছে। অনেকেই মনে করছেন ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে নানা ধরনের প্রতিবন্ধকতার জন্য ব্র্যান্ডের ব্যবসার বড় একটা অংশের মায়া কাটাতে চলেছে Huawei।

হুয়াওয়ে (Huawei), বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম এবং জনপ্রিয় টেলিকম সরঞ্জাম নির্মাতা। অনেকেই এটিকে টেলিকম সরঞ্জাম প্রস্তুতির পাওয়ারহাউস বলে থাকেন। কিন্তু বিগত কয়েক মাস সংস্থাটি একাধিক নিষেধাজ্ঞার জালে বাঁধা পড়েছে। মার্কিন বাজার সহ বেশ কিছু অঞ্চলে হুয়াওয়ের ওপর নানা বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। যদিও বাজারে কোণঠাসা হওয়ার আভাস পেতেই নিজেদের ব্যবসার ভীত মজবুত করতে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে সংস্থাটি। ইতিমধ্যেই তারা নিজস্ব অপারেটিং সিস্টেম বিকাশ করেছে। পাশাপাশি নিজের সাব-ব্র্যান্ডগুলি বিক্রি করারও সিদ্ধান্ত নিচ্ছে।

রিপোর্টে জানানো হয়েছে, ২০১৯-এর তৃতীয় প্রান্তিক থেকে ২০২০-এর তৃতীয় প্রান্তিক অবধি এক বছর সময়ে হুয়াওয়ের Mate এবং P সিরিজের ফোনগুলি থেকে ৩৯.৭ বিলিয়ন ডলার আয় হয়েছে। কিন্তু এর মধ্যে নতুন মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হলেও, এই চীনা সংস্থার ওপর পূর্বে জারি করা নিষেধাজ্ঞা হ্রাস হবে – তেমন আশার আলো এখনও পর্যন্ত দেখা যায়নি। ফলে, আগামী দিনে Honor-এর মত উক্ত দুটি ব্র্যান্ডকেও বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছে হুয়াওয়ে।

তবে জানিয়ে রাখি, হুয়াওয়ে এখনও স্মার্টফোন ব্র্যান্ড দুটি বিক্রির চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি এবং সংস্থাটি এই বিষয়ে কোনো চুক্তি করেছে এমন সুস্পষ্ট তথ্যও পাওয়া যায়নি। শুধু তাই নয়, হুয়াওয়ে নিজেই এই ধরণের খবরগুলিকে গুজব বলে দাবি করেছে এবং নিশ্চিত করেছে যে সংস্থার মোবাইল ফোন ব্যবসা বিক্রির কোনো পরিকল্পনা নেই। এটি আগের মতই হাই-লেভেল ফোনের নির্মাণ চালিয়ে যাবে। এছাড়া এখন সংস্থাটি তার হাই-এন্ড কিরিন (Kirin) চিপগুলি বিকাশের কাজে মনোনিবেশ করেছে বলে জানিয়েছে।