স্যামসাংকে টপকে বিশ্বের নম্বর ওয়ান স্মার্টফোন কোম্পানি হল হুয়াওয়ে : রিপোর্ট

আমেরিকা দেশীয় স্বার্থে হুয়াওয়েকে কিছু সময়ের জন্য জন্য ব্যান করলেও, তার প্রভাব পড়লো না বললেই চলে এই চীনা স্মার্টফোন কোম্পানির উপর। সম্প্রতি প্রকাশিত একটি রিপোর্টে দেখা গেছে, Huawei গ্লোবাল স্মার্টফোন মার্কেট দখলে দক্ষিণ কোরিয়ান কোম্পানি স্যামসাংকেও পিছনে ফেলে দিয়েছে। এই রিপোর্ট এপ্রিল মাসের ডেটা সংগ্রহ করে বানানো হয়েছে। আমেরিকায় ব্যান হওয়ার পর কেউ হয়তো ভাবতেও পারিনি হুয়াওয়ে এই কামাল করতে পারে।

কাউন্টারপয়েন্ট এর রিসার্চার বিপি নীল শাহ জানিয়েছেন, এপ্রিল মাসে হুয়াওয়ের মার্কেট শেয়ার ১৯ শতাংশে পৌঁছেছে। যারপরে তারা স্যামসাং কে টপকে নম্বর ওয়ান স্মার্টফোন কোম্পানিতে পরিণত হয়েছে। এই সময় স্যামসাংয়ের মার্কেট শেয়ার ছিল ১৭ শতাংশ। হুয়াওয়ের এই এত ভালো পারফরম্যান্সের পিছনে চীনের নাগরিকদের কোম্পানির প্রতি ভালোবাসা প্রধান কারণ হিসাবে উঠে এসেছে। কারণ আমেরিকায় ব্যান হওয়ার পর অনেকেই বেশি করে হুয়াওয়ের প্রোডাক্ট কিনে কোম্পানিকে সাপোর্ট করেছে।

আসলে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ এবং বিশ্বব্যাপী লকডাউনের জেরে ব্যবসায় বিরাট প্রভাব পড়েছে স্যামসাং সহ বাকি স্মার্টফোন কোম্পানির। ভারত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, লাতিন আমেরিকা এবং ইউরোপের কিছু অংশে স্যামসাংয়ের ব্যবসা তলানিতে ঠেকেছে। এও জানা গেছে কঠোর লকডাউনের কারণে কয়েকটি শহরে সংস্থার স্মার্টফোনের চাহিদা হ্রাস পেয়ে দাঁড়িয়েছে শূন্যতে। তবে, ২০২০ সালের মার্চে চীনের বাজার ব্যবসার জন্য খুলে দেওয়া হয় আর এই সুযোগেই হুয়াওয়ে অধিক স্মার্টফোন বিক্রি করে স্যামসাংকে টপকে যায়।

আপনাকে জানিয়ে রাখি হুয়াওয়ে বাকি দেশগুলিতে অতটা জনপ্রিয় না হলেও, চীনে তারা সবার শীর্ষে। অন্যান্য দেশগুলিতে কোম্পানির জনপ্রিয়তা কম হওয়ার পিছনে গুগল মোবাইল সার্ভিস না ব্যবহার একটি বড় কারণ। এখন দেখার লকডাউন উঠলেও হুয়াওয়ে তাদের এই বাজার ধরে রাখতে পারে কিনা।