নির্দোষ প্রমাণ করতে অভ্যন্তরীণ প্রযুক্তি দেখাতেও প্রস্তুত Huawei

huawei-wants-to-reveal-inner-workings-to-prove-no-security-threat

ভারতে হোক কিংবা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র – বিশ্বের বেশির ভাগ বাজার, চীনা কোম্পানিগুলিকে মোটেই ভালো চোখে দেখছেনা। আশঙ্কা করা হচ্ছে, চীনা অ্যাপ্লিকেশন বা চীনা সংস্থাগুলি থেকে দেশের নিরাপত্তা এবং নাগরিকদের গোপনীয়তা সংক্রান্ত ঝুঁকি রয়েছে। এই কারণে ইতিমধ্যেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতে, 5G নেটওয়ার্ক সংক্রান্ত ব্যবসায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে চীনা প্রযুক্তি সংস্থা Huawei-র ওপর। ফলে, এই সংস্থাটি, অন্যান্য টেলিকম সংস্থাগুলিকে 5G নেটওয়ার্ক বিকাশের সরঞ্জামাদি সরবরাহ করতে পারবেনা।

কিন্তু নিজেদের নির্দোষ প্রমাণ করে আগের মত নিজেদের ব্যবসা বজায় রাখতে আপ্রাণ চেষ্টা করছে Huawei। আজ, সংস্থার ইতালীয় ইউনিটের প্রধান লুইগি ডি ভেকচিস (Luigi De Vecchis) বলেছেন, হুয়াওয়ে নিখরচায় পরীক্ষা করে দেখাতে প্রস্তুত যে, কোনো দেশ এই সংস্থার প্রযুক্তি ব্যবহার করলে তাদের জন্য কোনো ঝুঁকি বা সমস্যার কারণ নেই। এছাড়াও তারা তাদের অভ্যন্তরীণ প্রযুক্তিও দেখাতে প্রস্তুত বলে তিনি জানিয়েছেন।

রোমে সংস্থার একটি অনুষ্ঠানে তিনি হতাশার সাথে জানিয়েছেন, আমেরিকার মত একটি দেশ কিভাবে ভিত্তিহীন অভিযোগের মাধ্যমে অন্য একটি বৈদেশিক সংস্থাকে ধ্বংসের দিকে ঢেলে দেয়, তা দেখে তিনি অবাক। তবে Huawei, সবসময় এই সমস্ত রাজনৈতিক চাপের প্রতিক্রিয়া জানায়, আর এবারেও তেমনটাই করছে।

এদিকে, একই দিনে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও দু-দিনের ইতালি সফর শুরু করেছেন বলে জানা গিয়েছে। ফলে, জল্পনা শুরু হয়েছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, পরবর্তী প্রজন্মের নেটওয়ার্কগুলিতে হুয়াওয়ের সরঞ্জাম ব্যবহার এড়াতে ইতালি এবং অন্যান্য ইউরোপীয় দেশগুলিকে উস্কে দিচ্ছে। এখন দেখার বিষয় এটাই, রাজনৈতিক চাপ কাটিয়ে হুয়াওয়ে আবার বাজারে আগের মত ব্যবসা করতে পারবে, নাকি সরকারের দাবার চালে বাজার থেকে পাততাড়ি গোটাতে হবে সংস্থাটিকে।