ইসিজি ফিচার সহ লঞ্চ হল Huawei Watch GT 2 Pro ECG স্মার্টওয়াচ ও Huawei Band 6 Pro ফিটনেস ব্যান্ড

huawei-watch-gt-2-pro-ecg---huawei-band-6-pro
Huawei GT 2 Pro ECG ও Band 6 Pro লঞ্চ হল

চীনা টেক জায়ান্ট, Huawei নতুন দুটি ওয়্যারেবল প্রোডাক্ট লঞ্চ করলো। যার মধ্যে একটি হল GT 2 Pro ECG নামের স্মার্টওয়াচ এবং অন্যটি হল Band 6 Pro নামের একটি ফিটনেস ব্যান্ড। GT 2 Pro ECG ওয়াচটি প্রকৃতঅর্থে GT Pro ওয়াচের উত্তরসূরী। নতুন এই ওয়াচটিতে ইলেক্ট্রোকার্ডিওগ্রাম রিডিং সংযোজন করা হয়েছে। এছাড়া ওয়াচটিতে পাওয়া যাবে ১০০ টির বেশী স্পোর্টস মোড, ব্লাড অক্সিজেন স্যাচুরেশন, স্লিপ ট্র্যাকিং এবং ১২ দিনের ব্যাটারী লাইফ। অপরদিকে, সম্পূর্ণ রঙিন ডিসপ্লে বিশিষ্ট Band 6 Pro ফিটনেস ব্যান্ডটির মাধ্যমে শরীরের উষ্ণতা পরিমাপ করা যায়। আসুন Huawei GT 2 Pro ECG এবং Band 6 Pro ওয়্যারেবলদুটির দাম, প্রাপ্যতা এবং স্পেসিফিকেশন জেনে নিই…

Huawei Watch GT 2 Pro ECG এবং Huawei Band 6 Pro এর দাম এবং প্রাপ্যতা

হুয়াওয়ে ওয়াচ জিটি ২ প্রো ইসিজি স্মার্টওয়াচটির দাম ৩,০৮৮ ইউয়ান যা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৩৫,৫০০ টাকা। এটি অবসিডিয়ান ব্ল্যাক রঙের একটি ভ্যারিয়েন্টে এসেছে। আগামী ১২ ই আগস্ট থেকে ওয়াচটির বিক্রি শুরু হবে।

অন্যদিকে হুয়াওয়ে ব্যান্ড ৬ প্রো ফিটনেস ব্যান্ডটির দাম ৪৪৯ ইউয়ান, যা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৫,১০০ টাকা। এটি ম্যাজিক নাইট ব্ল্যাক এবং মাইকা গ্রে রঙের দুটি ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে। আগামী আগস্ট ২০ থেকে ব্যান্ডটির বিক্রি শুরু হতে চলেছে।

Huawei Watch GT 2 Pro ECG স্মার্টওয়াচের স্পেসিফিকেশন

হুয়াওয়ে ওয়াচ জিটি ২ প্রো ইসিজি হল সংস্থার প্রথম স্মার্টওয়াচ যেটি চীনের ন্যাশনাল মেডিক্যাল প্রোডাক্ট অ্যাডমিনিস্ট্রেশন কর্তৃক দ্বিতীয় শ্রেণীর মেডিক্যাল ডিভাইস রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট প্রাপ্ত। ওয়াচটি ইলেক্ট্রোকার্ডিওগ্রাম রিডিংকে ব্যাখ্যা করতে পারে। ওয়াচটি ৪৫৪ x ৪৫৪ রেজোলিউশন ও ৩২৬ পিপিআই ডেন্সিটি বিশিষ্ট ১.৩৯ ইঞ্চির গোলাকার অ্যামোলেড কালার ডিসপ্লের সাথে এসেছে। পাশাপাশি ওয়াচটিতে আছে টাইটেনিয়াম অ্যালয় বডি ও সেফিয়ার গ্লাস।

হুয়াওয়ে ওয়াচ জিটি ২ প্রো ইসিজি ওয়াচটিতে রয়েছে অক্সিজেন লেভেল মনিটারিংয়ের সুবিধা। এছাড়া ওয়াচটিতে একগুচ্ছ সেন্সর উপস্থিত, যেমন অ্যাক্সিলিরিওমিটার, গাইরোস্কোপ, জিওম্যাগনেটিক সেন্সর, অপটিক্যাল হার্ট রেট সেন্সর, অ্যাম্বিয়েন্ট লাইট সেন্সর, ব্যারোম্যাট্রিক প্রেশার সেন্সর এবং ক্যাপাসিটিভ সেন্সর।

উল্লেখ্য, Huawei Watch GT 2 Pro ECG ওয়াচটিতে পাওয়া যাবে কাইলিন এ১ প্রসেসর এবং ৪ জিবি অনবোর্ড স্টোরেজ। এতে একটি পাওয়ার বাটন এবং একটি নেভিগেশন বাটন দেওয়া হয়েছে। ওয়াচটি ৫এটিএম ওয়াটার-রেজিস্ট্যান্ট, ফলে ৫০ মিটার জলের নীচে পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে। তবে, সংস্থার তরফে ডাইভিং, হট শাওয়ার থেকে বিরত থাকার জন্য এবং সমুদ্রে স্নানের সময় ব্যবহার করলে পরে পরিষ্কার জল দিয়ে ধুয়ে, মুছে নেবার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

এতে কানেক্টিভিটি অপশনের মধ্যে আছে, ব্লুটুথ ভার্সন ৫.১। পাশাপাশি এটিতে জিপিএস, এনএফসি সাপোর্ট করে। এছাড়া মাইক্রোফোন এবং স্পিকারের সুবিধা আছে। ব্যাটারি লাইফের কথা বলতে গেলে, একবার চার্জে ওয়াচটিকে ১২ দিন পর্যন্ত ব্যবহার করা যায়। আবার এই ওয়াচে মিলবে ১০০ টির বেশী স্পোর্টস মোডের পাশাপাশি স্ট্রেস ও স্লিপ মনিটারিংয়ের মতো ফিচার। এটিকে অ্যান্ড্রয়েড ৫.০ ও আইওএস ৯.০ ডিভাইসের সঙ্গে সংযুক্ত করা সম্ভব হলেও হুয়াওয়ে জানিয়েছে আইওএস ডিভাইসে ইসিজি ফিচার সাপোর্ট করবে না। ওয়াচটির ওজন ৫২ গ্রাম এবং এটির পরিমাপ ৪৬.৭ x৪৬.৭ x১১.৪ মিমি।

Huawei Band 6 Pro ফিটনেস ব্যান্ডের স্পেসিফিকেশন

হুয়াওয়ে ব্যান্ড ৬ প্রো ফিটনেস ব্যান্ডটিতে আছে ১.৪৭ ইঞ্চির অ্যামোলেড ফুল টাচ স্ক্রিন। ব্যান্ডটির ওজন ১৮ গ্রাম এবং পরিমাপ ৪৩ x২৫.৪ x১০.৯৯ মিমি। ফিটনেস ব্যান্ডটি একটি পলিমার ফাইবার নির্মিত ওয়াচ কেস এবং সিলিকন স্ট্র্যাপ সহ এসেছে। সেন্সর হিসেবে আছে অ্যাক্সিলিরিওমিটার, গাইরোস্কোপ এবং অপটিক্যাল হার্ট রেট সেন্সর।

এটি ৫এটিএম ওয়াটারপ্রুফ ফলে ৫০ মিটার পর্যন্ত গভীর জলে ব্যবহার করা যাবে। এটিতে আছে একটি ম্যাগনেটিক থিম্বেল চার্জিং পোর্ট। কানেক্টিভিটির জন্য পাওয়া যাবে, ওয়াই-ফাই এবং ব্লুটুথ ভার্সন ৫। কোম্পানির তরফে দাবি করা হয়েছে Huawei Band 6 Pro সাধারণ ব্যবহারে ১৪ দিন পর্যন্ত ব্যাটারি লাইফ অফার করবে। অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ ও আইওএস ৯.০ ডিভাইসের সঙ্গে এটিকে সংযুক্ত করা সম্ভব।

Huawei Band 6 Pro ফিটনেস ব্যান্ডটিতে ৯৬ টি স্পোর্টস মোড বর্তমান, যেমন রোপ স্কিপিং, রানিং, সুইমিং, এলিপটিক্যাল মেশিন, রোয়িং মেশিন ইত্যাদি এবং ফিটনেসকে আলাদা মাত্রায় নিয়ে যাবার জন্য আছে ১১ টি সাধারণ, পেশাদার মোড। এছাড়া ৮৫ টি কাস্টম মোড উপলব্ধ, যেমন টেনিস, যোগা, স্ট্রিট ডান্সিং, রক ক্লাইম্বিং। বিভিন্ন স্বাস্থ্য সম্পর্কিত ফিচারের মধ্যে আছে বডি টেম্পারেচার ট্র্যাকিং, হার্ট হেলথ ম্যানেজমেন্ট, স্লিপ ট্র্যাকিং, মেন্সট্রুয়াল ট্র্যাকিং এবং অক্সিজেন লেভেল মনিটারিং। এছাড়া, ব্যান্ডটিতে এনএফসি, ওয়ান-টাচ পেমেন্ট, রিমোট ফটো শুট, মেসেজ অ্যালার্ট, ওয়েদার চেক এবং মিউজিক কন্ট্রোলের সুবিধা রয়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।