পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে বিশালাকার গ্রহাণু, কবে এবং ক্ষতির সম্ভাবনা কতটা জেনে নিন

huge-2016aj193-asteroid-set-to-fly-by-close-to-earth-reason-to-worry-know-all-about-it
গ্রহাণু 2016 AJ193 পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে

খুব শীঘ্রই পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে একটি বিশালাকার গ্রহাণু! ফলে ফের একবার পৃথিবীবাসী আতঙ্কে দিন কাটাতে শুরু করেছে। যদিও গবেষকরা প্রাথমিকভাবে জানাচ্ছেন যে, ভয়ের কিছু নেই, গ্রহাণুটি পৃথিবীর পাশ কাটিয়ে বেরিয়ে যাবে, ফলে পৃথিবীর আঘাতপ্রাপ্ত হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই; কিন্তু যদি কোনোভাবে গ্রহাণুটি তার গতিপথ পরিবর্তন করে, তাহলে এটি বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারে এবং বেশ বড়ো ধরনের মর্মান্তিক পরিণতি ঘটার ভালোরকম সম্ভাবনা রয়েছে।

অতীতেও আমরা পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসা এরকম প্রচুর গ্রহাণুর খবর পেয়েছি, যদিও সেগুলি কোনোটিই পৃথিবীর কোনো ক্ষতি করেনি। কিন্তু যদি কখনো কোনো গ্রহাণু পৃথিবীর ওপর আছড়ে পড়ে, তাহলে অনেক ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। সেই কারণে পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসা আসন্ন 2016 AJ193 নামক গ্রহাণুটিকে জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা ইতিমধ্যেই নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা শুরু করে দিয়েছেন। Nasa-ও এই গ্রহাণুটিকে ‘সম্ভাব্য বিপজ্জনক গ্রহাণু’ (potentially hazardous asteroid) হিসেবে শ্রেণীবদ্ধ করেছে। আসুন গ্রহাণুটি সম্পর্কে আপাতত কী কী তথ্য সামনে এসেছে জেনে নেওয়া যাক।

গ্রহাণুটি কবে পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে পৌঁছাবে?

এই গ্রহাণুটি ২১ আগস্ট পৃথিবীর সবচেয়ে কাছাকাছি আসবে বলে মনে করা হচ্ছে।

এই গ্রহাণুটি পৃথিবীর কতটা কাছাকাছি আসবে?

গ্রহাণুটি যে পৃথিবীর খুব কাছে আসবে এমনটা একেবারেই নয়। দূরত্বটি আমাদের পৃথিবী থেকে চাঁদের দূরত্বের প্রায় ৮.৯ গুণ বেশি হবে বলে জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা মনে করছেন, আর তাই তাঁরা ভয়ের কোনো কারণ দেখছেন না।

গ্রহাণুটি কত দ্রুত এগিয়ে আসছে?

EarthSky অনুসারে, গ্রহাণু 2016 AJ193 ঘন্টায় ৫৮,৫৩৮ মাইল গতিতে ধেয়ে আসছে, যা ঘন্টায় প্রায় ১০০,০০০ কিলোমিটার (আসলে ৯৪,২০৮ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা)-এর কাছাকাছি, অর্থাৎ প্রতি সেকেন্ডে ২৬.১৭ কিলোমিটার (প্রায়)।

গ্রহাণুটিকে কি খালি চোখে দেখা যায়?

না, দুঃখের বিষয় হল খালি চোখে গ্রহাণুটিকে দেখা কোনোভাবেই সম্ভব নয়। তবে EarthSky-এর রিপোর্ট অনুসারে, যাদের টেলিস্কোপ আছে তারা এটি দেখতে সক্ষম হবেন, এমনকি তারা যদি অপেশাদার হন তাহলেও দেখার ক্ষেত্রে কোনো সমস্যা হবে না।

এই গ্রহাণুটি কতটা বড়ো?

এটি ১.৪ কিলোমিটার চওড়া, যা এক মাইলেরও কম। গ্রহাণুটি রিফ্লেক্টিভ নয় এবং বেশ খানিকটা অন্ধকার।

গ্রহাণুটির কক্ষপথটি ঠিক কীরকম?

EarthSky অনুসারে, গ্রহাণুটি প্রতি ৫.৯ বছর অন্তর সূর্যের চারদিকে ভ্রমণ করে। আরও জানা গেছে যে, আগামী ৬৫ বছরের মধ্যে এটিই হল পৃথিবীর সবচেয়ে কাছাকাছি আসা বস্তু।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।