এই ছোট্ট কাজগুলো করুন আর ফোনের ব্যাটারি ব্যাকআপ বাড়ান কয়েকগুন

  

গত কয়েকবছরে স্মার্টফোনে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। ডিজাইন থেকে সফটওয়্যার সবকিছুই এখন আগের থেকে অনেক উন্নত। তবে কোনো ফোনের ব্যাটারি যদি খারাপ হয় তাহলে ফিচার এবং হার্ডওয়্যার যতই ভালো হোক সব বেকার। সমস্ত কিছুতে আপডেট দেখতে পেলেও ব্যাটারির ক্ষেত্রে তেমন কোনো আপডেট আসেনি। যদিও বেশি ক্ষমতা সম্পন্ন ব্যাটারি বা ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি এসেছে ঠিক কথা, কিন্তু ব্যাটারির সমস্যা আমাদের তবুও যায়নি। তবে আমরা চাইলে কিছু সেটিং ও মোড বদলে আমাদের ফোনের ব্যাটারি ব্যাকআপ কয়েকগুন বাড়িয়ে নিতে পারি। আসুন জেনে নেই ফোনের ব্যাটারি লাইফ বাড়ানোর কিছু ট্রিক।

অ্যান্ড্রয়েড 6.0 বা তার পরের সমস্ত অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে ডজ মোড পাওয়া যায়। এই মোডটি ফোন ব্যবহার না করার সময় ব্যাটারি সংরক্ষণের জন্য অ্যাপ্লিকেশন এবং প্রসেসিংকে ব্যাকগ্রাউন্ডে চলতে বাধা দেয়। এমন পরিস্থিতিতে, কিছু অ্যাপ্লিকেশনের জন্য নেটওয়ার্ক অ্যাক্সেসও বন্ধ করে দেয়। যদিও আপনি সেটিং এ গিয়ে নিজেই সিলেক্ট করতে পারেন কোন অ্যাপটি ব্যাকগ্রাউন্ডে চলবে। আসুন জেনে নেই সেই পদ্ধতি।

ডজ মোড :

আপনার অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে সেটিংসে যান এবং ‘অ্যাপ অ্যান্ড নোটিফিকেশন’ সিলেক্ট করুন। এর নীচের দিকে একটি অ্যাডভান্স অপশন পাবেন, যেখানে আপনি বিশেষ অ্যাপ অ্যাক্সেস নির্বাচন করতে পারেন। এখানে আপনি ব্যাটারি অপ্টিমাইজেশন সিলেক্ট করে সেই সমস্ত অ্যাপের একটি তালিকা দেখতে পাবেন, যেগুলো ডজ মোডে অপ্টিমাইজেশন হয়না। এখানে উপরে উল্লিখিত ‘নট অপ্টিমাইজেশন’ বিকল্পে ক্লিক করতে হবে এবং ‘অল অ্যাপ্লিকেশন’ নির্বাচন করতে হবে। এখানে বেশিরভাগ অ্যাপ্লিকেশনগুলিতে আপনি ‘অপ্টিমাইজিং ব্যাটারি ব্যবহার’ লেবেলটি দেখতে পাবেন। এই তালিকায় আপনি যে অ্যাপ্লিকেশনগুলি ডোজ মোড থেকে দূরে রাখতে চান সেগুলি নির্বাচন করতে পারেন।

ব্রাইটনেস :

স্মার্টফোনের স্ক্রিন সর্বাধিক ব্যাটারি গ্রহণ করে। ফোনের স্ক্রিন যত বড় হবে, উজ্জ্বল এবং হাই রেজোলুশনের হবে, এর বেশি পাওয়ার প্রয়োজন হবে। যদি আপনার ফোনের স্ক্রিন ব্রাইটনেসের জন্য অটো মোড থাকে, তবে এটি ব্যবহার করুন। এখনকার ফোনগুলোতে এডোপটিভ ব্যাটারি ও এডোপটিভ ব্রাইটনেসের অপশন পাওয়া যায়। সেটিং থেকে ব্যাটারি তে গিয়ে এডোপটিভ ব্যাটারি এবং ডিসপ্লেতে গিয়ে এডোপটিভ ব্রাইটনেসে ট্যাপ করতে পারেন।

থার্ড পার্টি অ্যাপ :

আপনি যদি ফোনের ব্যাটারি ব্যাকআপ বাড়াতে চান তবে থার্ড পার্টি অ্যাপগুলির সাহায্য নিতে পারেন। প্লে স্টোরে এমন অনেকগুলি অ্যাপ রয়েছে যা ব্যাটারি ব্যাকআপ বাড়ানোর দাবি করে ,যার মধ্যে অনেকগুলি সত্যিই কাজ করে। এরমধ্যে AccuBattery এবং Greenify উল্লেখযোগ্য।

আপডেট আবশ্যিক :

আপনার ফোনের সফটওয়্যার এবং অ্যাপ্লিকেশনগুলিকে ক্রমাগত আপডেট করে রাখুন। যদি আপনি আপনার ফোনের সফটওয়্যার বা অ্যাপ আপডেট না করেন, তবে এর মানে হল যে আপনার ফোন বা অ্যাপগুলি বর্তমান সময়ের বাগ বা ভাইরাসগুলির তুলনায় পুরোনো। এই ক্ষেত্রে আপনার ফোন হ্যাকার থেকে,ভাইরাস থেকে আক্রান্ত হতে পারে।অ্যাপ্লিকেশন বা সফ্টওয়্যার আপডেট না করলে ফোনের কার্যকারিতায় প্রভাব ফেলে, যাতে আপনার ফোনের ব্যাটারি গরম এবং দ্রুত শেষ হয়ে যায়।

পুরানো apps ডিলিট করুন :

আপনি যে অ্যাপ্লিকেশনগুলি ব্যবহার করছেন না তা আপনার ফোন থেকে ডিলিট করে ফেলুন । এছাড়াও, কোনো অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করার আগে, তার রিভিউ পড়ুন।

Amazon প্রোডাক্ট কিনতে এখানে ক্লিক করুন

পড়ুন : স্যামসাংয়ের নতুন চমক, 48MP ক্যামেরার সাথে ভারতে আসছে Samsung Galaxy M30s

সব খবর পড়তে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন