মোদীর ঘোষণার পরেই সিদ্ধান্ত, স্ট্যাচু অফ ইউনিটি ও তার পাশ্ববর্তী এলাকায় চলবে কেবল ইলেকট্রিক যানবাহন

india-s-first-electric-vehicles-only-zone-now-gujrats-statue-of-unity

শুধুমাত্র বৈদ্যুতিক গাড়ি (Electric Vehicle) চালানোর অনুমতি পাওয়া যাবে। পেট্রোল/ডিজেল গাড়ির ব্যবহার হবে নিষিদ্ধ। ভারতবর্ষের প্রথম ইলেকট্রিক ভেহিকেল অনলি জোন হিসেবে গড়ে তুলতে গুজরাতের নর্মদা জেলার কেভাদিয়াতে (Kevadia) অবস্থিত বিশ্বের উচ্চতম মূর্তি স্ট্যাচু অফ ইউনিটি (Statue Of Unity) এবং তার সন্নিহিত স্থানগুলির জন্য ভবিষ্যতে গাড়ি চলাচলের ক্ষেত্রে এমনটাই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গত শনিবার বিশ্ব পরিবেশ দিবসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) উক্ত পদেক্ষেপের কথা স্পষ্ট করেছিলেন। আর তারপরেই স্ট্যাচু অফ ইউনিটি এরিয়া ডেভলপমেন্ট অ্যান্ড ট্যুরিজম গর্ভনেন্স অথরিটি বলেছে, গুজরাটের কেভাদিয়া শহরে অবস্থিত এই অঞ্চলটিকে যানবাহনের থেকে দূষণমুক্ত জোন হিসেবে তারা গড়ে তুলবে।

তারা একটি বিবৃতিতে জানিয়েছে, কেভাদিয়ার ১৮২ মিটার লম্বা স্ট্যাচু অফ ইউনিটির আশেপাশের অঞ্চলটি ধাপে ধাপে বৈদ্যুতিক যানবাহন অনলি জোন হিসেবে গড়ে তোলা হবে অর্থাৎ সেখানে সমস্ত পেট্রোল/ডিজেল গাড়ি নিষিদ্ধ করা হবে। প্রসঙ্গত, পরিবেশ দিবসে বক্তব্যে রাখতে গিয়ে মোদী বলেছিলেন, কেভাদিয়া শহরে কেবল ব্যাটারি চালিত বাস, চারচাকা ইলেকট্রিক গাড়ি এবং টু-হুইলার চালানোর পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। এই ঘোষণার আগেও অবশ্য ২০১৯ সালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কেভাদিয়ায় শুধুমাত্র বৈদ্যুতিন যানবাহনকে অগ্রাধিকার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।

স্ট্যাচু অফ ইউনিটি এবং তার সন্নিহিত অঞ্চলকে কেবল বৈদ্যুতিন যানবাহন জোনে পরিণত করতে কর্তৃপক্ষ এখন প্রস্তুত৷ পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করতে প্রথমেই স্থানীয়দের বৈদ্যুতিক গাড়ি কিনতে সহায়তা করা হবে। তাছাড়া স্ট্যাচু অফ ইউনিটি এরিয়া ডেভলপমেন্ট অ্যান্ড ট্যুরিজম গর্ভনেন্স অথরিটির কর্মীদের বৈদ্যুতিন যানবাহন কেনার জন্য ভর্তুকি দেওয়া হবে।

আবার যারা ভর্তুকি পাচ্ছেন তাঁদের গ্যারান্টি দিতে হবে যে ইন্টারনাল কম্বাশন ইঞ্জিন দ্বারা চালিত গাড়ি তাঁরা এলাকায় চালাতে পারবেন না। পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ৫০টি ই-রিকশা এলাকায় চালানোর অনুমতি দেওয়া হবে এবং রিকশা চালক হিসেবে মহিলারা অগ্রাধিকার পাবেন। ডেভেলপমেন্ট অথরিটি এই মহিলা চালকদের জন্য প্রশিক্ষণের জন্য কর্মশালার আয়োজন করবে। পাশাপাশি, ইলেকট্রিক গাড়ির জন্য চার্জিং স্টেশনের পরিকাঠামো এলাকাতে প্রস্তুত করা হবে।

ঘটনাচক্রে, কেভাদিয়ায় কিন্তু কোনও দূষণকারী শিল্প নেই এবং পরিবেশ-বান্ধব বিদ্যুত উৎপাদন করে এমন দু’টি জলবিদ্যুত কেন্দ্র রয়েছে। ফলে কেবলমাত্র বৈদ্যুতিন যানবাহনের জন্য এই অঞ্চল সংরক্ষণ করলে বায়ু এবং শব্দ দূষণ হ্রাস পাওয়ার পাশাপাশি, পর্যটন শিল্পেও অনেক উন্নতি আসবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷