সরকারের এই নতুন চালে বিপদে পড়েছে চীনা স্মার্টফোন কোম্পানি, আপনি জানলে খুশি হবেন

indian-department-of-customs-taking-much-time-to-check-chinese-product

এই মুহূর্তে অনেক ভারতীয় চাইনিজ প্রোডাক্ট, স্মার্টফোন বা অ্যাপ বর্জন করার যে দাবি তুলেছেন। কিন্তু আপনি যদি এখনও চীনা ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন কিনতে চান তবে আপনাকে কিছুটা অপেক্ষা করতে হতে পারে। কারণ ভারত এবার চীন থেকে আসা প্রতিটি চালান পরীক্ষা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, যার প্রভাব চীন থেকে আসা ইলেকট্রনিক প্রোডাক্টের ওপরেও পড়বে এমনটাই মনে করা হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে চীন থেকে আসা স্মার্টফোন, ট্যাবলেট, কম্পিউটার এবং টেলিভিশনে সরবরাহ বিলম্বিত হতে পারে। এই সময়ে মার্কেটে ডিভাইসের ব্যাপক চাহিদা থাকলেও সাপ্লাই নেই।

মোবাইল কিনতে এখানে ক্লিক করুন

স্মার্টফোন শিল্পের সাথে যুক্ত ব্যক্তিরা বলেছেন এই ঘটনা অ্যাপল, শাওমি, অপ্পো, ভিভো, ওয়ানপ্লাস, রিয়েলমি, লেনোভো এবং অনলাইন ফোকাসযুক্ত অনেক ব্র্যান্ডকে প্রভাবিত করবে। যেহেতু বেশিরভাগ চালান শুল্ক বিভাগের কাছে আটকে আছে, সুতরাং এখন গ্রাহকদের তাদের প্রিয় ডিভাইস কিনতে অপেক্ষা করতে হবে।

আগে এই জাতীয় চালানগুলি দ্রুত ট্র্যাক করা হত এবং খুব বেশি সময় লাগত না। কিন্তু এখন এই জাতীয় চালানগুলির ছাড়পত্র পেতে বেশ সময় লাগছে। পুরোপুরি চেকিংয়ের পরেই এগুলি অগ্রসর হতে পারছে। একটি বড় চীনা কোম্পানির আধিকারিকরা বলছেন, চীন থেকে আমদানি করা স্মার্টফোন কম্পোনেন্টগুলির লভ্যতা না থাকায় ভারতে উৎপাদন ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

মোবাইল কিনতে এখানে ক্লিক করুন

চীন ভারতের বৈদ্যুতিন শিল্পের বৃহত্তম সোর্স বা বেস। মোবাইল ফোন এবং টেলিভিশনের জন্য ৬৫-৭০ শতাংশ কম্পোনেন্ট এবং পার্টস চীন থেকে আসে। একইভাবে, ওয়াশিং মেশিনের উপাদানগুলির ২৫ শতাংশ চীন থেকে আসে। পার্শ্ববর্তী দেশ চীন থেকে ভারতে ৪০ শতাংশ লাইট আসে এবং প্রায় ৭৫ শতাংশ এয়ার কন্ডিশনার আমদানি হয়। এছাড়া ল্যাপটপ এবং ফোনের মতো প্রোডাক্ট-তো চীন থেকে আসেই।

মোবাইল কিনতে এখানে ক্লিক করুন