Fuel Demand in India: পেট্রোলের চাহিদা তুঙ্গে, ডিসেম্বরে ডিজেলের বিক্রি বিগত দু’বছরে সর্বোচ্চ

indias-fuel-demand-hits-a-nine-month-high-in-december

ভারতে পেট্রোপণ্যের মূল্য গত কয়েক মাস ধরেই মধ্য গগনে রয়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের ব্যারেলের দামের সাথে সামঞ্জস্য রেখে ভারতে পেট্রোল-ডিজেলের দর ওঠানামা করে। যদিও কেন্দ্রীয় সরকার পেট্রোপণ্যের শুল্কে ছাড় দিয়েছে, তৎসত্ত্বেও লিটার প্রতি জ্বালানি তেলের মূল্য মধ্যবিত্তের পকেটে টান ধরাচ্ছে। কিন্তু এহেন প্রেক্ষাপটেও এক আশ্চর্যজনক তথ্য সামনে নিয়ে এসেছে ভারত সরকার। যেখানে দেখা গেছে ২০২১-এর ডিসেম্বরে দেশে পেট্রোপণ্য ব্যবহারের পরিমাণ গত ৯ মাসে সর্বাধিক। হ্যাঁ এমনটাই দাবি করা হয়েছে। করোনার প্রকোপের কালেও এই বৃদ্ধি সত্যিই অবাক করার মতই!

পেট্রোলিয়াম প্ল্যানিং অ্যান্ড অ্যানালাইসিস সেল-এর রিপোর্টে উঠে এসেছে, ডিসেম্বরে সমগ্র দেশে মোট ১৮.৪৩ মিলিয়ন টন জ্বালানি তেলের ব্যবহার হয়েছে। যা নভেম্বর এবং ২০২০-র ডিসেম্বরের তুলনায় যথাক্রমে ৭.৬ শতাংশ এবং ০.৪ শতাংশ বেশি। যদিও কোভিড শুরু হওয়ার আগের বছর অর্থাৎ ২০১৯-এর ডিসেম্বরের চাইতে গত বছরে জ্বালানি তেলের ব্যবহারের পরিমাণ অনেকটাই কম। তবে করোনাভাইরাসের তৃতীয় ঢেউয়ের প্রভাব দেশে জ্বালানির চাহিদার পরিমাণ অনেকটাই কম করে দিতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

এদিকে সমগ্র বিশ্বে নভেম্বরের তুলনায় ডিসেম্বরে পেট্রোলের বিক্রি শতকরা ৬.৪ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে, পরিমাণে যা ২.৮২ মিলিয়ন টন। ১৯৯৮ সালের পর এখনো পর্যন্ত যা রেকর্ড বৃদ্ধি। আবার ২০১৯ ও ২০২০-র ডিসেম্বরের তুলনায় যা যথাক্রমে ১৩.৯ শতাংশ ও ৪.১ শতাংশ বেশি। অন্যদিকে ভারতে গত বছর নভেম্বরে তুলনায় ডিসেম্বরে ডিজেলের চাহিদা বৃদ্ধি পেয়েছে ১২.২ শতাংশ। পরিমাণে যা ৭.৩১ মিলিয়ন টন বেশি। ২০১৯-এর পর এটিই ছিল সর্বাধিক। ২০২০-র চাইতে যা আবার ১.৬ শতাংশ অধিক।

প্রসঙ্গত, কেন্দ্রীয় সরকার বারংবার যেখানে বিদ্যুৎ চালিত ও ফ্লেক্স ফুয়েল যানবাহনের ওপর জোর দেওয়ার কথা বলে আসছে, সেখানে জীবাশ্ম জ্বালানির চাহিদা বৃদ্ধির খবর পরিবেশবিদদের কপালে চিন্তার ভাঁজ বাড়াতে পারে। তবে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন-এর সংক্রমণ যেভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে তাতে ২০২২-এ এর চাহিদা অনেকটাই কমবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

শুভদীপ টেকগাপে অটোকার বিষয়ক লেখালিখি করে। এর আগে বিভিন্ন পোর্টালের সাথে যুক্ত থাকলেও, অটোকার নিয়ে টেকগাপে তার হাতেখড়ি। দিনকে দিন সে টেকগাপের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হয়ে উঠেছে।