ফেক অ্যাকাউন্টের বাড়বাড়ন্ত, ভেরিফিকেশনের জন্য ভিডিও সেলফি চালু করার পথে Instagram

ফেক অ্যাকাউন্ট কমাতে ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে Video Selfie চেয়ে নেবে Instagram

instagram-asking-users-for-video-selfies-to-verify-identity-take-a-break-feature-coming

আরো একবার অ্যাপ্লিকেশনে নতুন ফিচার সংযোজনের পথে হাঁটছে ইনস্টাগ্রাম (Instagram)। Meta -অধিকৃত এই ফটো শেয়ারিং অ্যাপে মোট দুটি ফিচার জুড়তে চলেছে বলে জানা গেছে। এর মধ্যে একটি ব্যবহারকারীদের প্রাইভেসি সুরক্ষাকে আরো উন্নত করার পাশাপাশি প্লাটফর্ম থেকে ফেক অ্যাকাউন্টের সংখ্যা কমাবে। অন্যদিকে দ্বিতীয় ফিচার ব্যবহার করে Instagram ইউজারেরা দীর্ঘক্ষণ সোশ্যাল মিডিয়ায় বিচরণের অভ্যাস থেকে রেহাই পাবেন। ইতিমধ্যেই কিছু ইনস্টা-ব্যবহারকারী প্রথম ফিচারের দেখা পেয়েছেন। তবে আগামী দিনে এটি আরো বিস্তৃতভাবে ছড়িয়ে দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে।

ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে Video Selfie চেয়ে নেবে Instagram

আজ্ঞে হ্যাঁ, এমন একটি ফিচার সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে হাজির হয়েছে। একারণে জনপ্রিয় এই অ্যাপ্লিকেশন কিছু কিছু ইউজারের কাছে ভিডিও সেলফি চেয়ে অনুরোধ জানাচ্ছে। সেলফি গ্রহণের সময় ব্যবহারকারীদের বিভিন্ন অ্যাঙ্গেল থেকে মুখের ছবি তুলতে বলা হচ্ছে। এই পদক্ষেপ ইউজারের অ্যাকাউন্ট ভেরিফিকেশনে সাহায্য করবে বলে ইনস্টাগ্রামের দাবী। উল্লেখ্য, গত বছরেই সংস্থা ফিচারটিকে সামনে আনার চেষ্টা করে। তবে প্রযুক্তিগত সীমাবদ্ধতার কারণে সেটা সম্ভব হয়নি।

ভিডিও সেলফির মাধ্যমে অ্যাকাউন্ট ভেরিফিকেশনের ফিচার ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে দেওয়া গেলে ইনস্টাগ্রামে ফেক ও স্প্যাম অ্যাকাউন্টের রমরমা অনেকটাই কমে যাবে। এজন্য সেলফি ভিডিও গ্রহণের পর ইউজার সেটি সংস্থার কাছে জমা করবেন। সংবাদ সূত্রে জানা গিয়েছে যে ব্যবহারকারী-প্রদত্ত ভিডিওটি কখনোই ইনস্টাগ্রামে দৃশ্যমান হবেনা। বরং সেটি ৩০ দিনের মধ্যেই ইনস্টা-সার্ভার থেকে মুছে যাবে।

Instagram থেকে ‘Take a Break’

এই টেক আ ব্রেক ফিচারটিকে নিয়ে ইনস্টা-অনুরাগীদের মধ্যে আগ্রহের অন্ত নেই। এজন্য ইনস্টাগ্রামের সুনাম করা উচিত নাকি সমালোচনা, সে ব্যাপারেও অনেক মানুষ দ্বিধাবিভক্ত। ফটো শেয়ারিং অ্যাপের কর্ণধার অ্যাডাম মসেরির দাবী, ইনস্টাগ্রামের নেশা থেকে ইউজারদের রেহাই দিতে তারা ‘টেক আ ব্রেক’ ফিচার নিয়ে হাজির হয়েছেন! ফলে দীর্ঘক্ষণ ইনস্টাগ্রামে সময় খরচ করলে আলোচ্য ফিচার ইউজারকে সেকথা মনে করিয়ে দেবে। এমন উদ্যোগকে কি আর যেচে নিন্দা করা যায়!

আসলে নবীন বয়সীদের জন্য ইনস্টাগ্রাম কতটা বিপজ্জনক সে কথা নিয়ে বারবার বিতর্ক দানা বেঁধেছে। অস্বীকার করার উপায় নেই যে কিশোর-কিশোরীদের মনের উপরে এই প্ল্যাটফর্মের প্রভাব অত্যন্ত গভীর। সেজন্য এর আগে সচেতন মানুষের একাংশ ইনস্টাগ্রাম কর্তৃপক্ষকে দুষেছেন। তাই এবার সংস্থা নিজে থেকেই টেক আ ব্রেক ফিচার নিয়ে হাজির হচ্ছে বলে অনেকের ধারণা। সংস্থার কর্তা মসেরি জানিয়েছেন, আগামী ডিসেম্বর নাগাদ ‘Take a Break’ ফিচার ব্যাপকভাবে রোল-আউট হতে পারে।

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020