কাজ করবেনা Tiktok সহ ফোনে থাকা সমস্ত চাইনিজ অ্যাপও, কি ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার জানুন

কেন্দ্র সরকারের নির্দেশে গতকাল রাতে ভারতে ব্যান করা হয়েছে TikTok, UC Browser, Shareit এবং Camscanner এর মত জনপ্রিয় চীনা অ্যাপগুলিকে। ব্যবহারকারীদের তথ্যের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে ভারত সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সরকারের তরফে জানানো হয়েছে দেশের সুরক্ষা ও ঐক্যকে বজায় রাখার জন্য এটি একটি প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ। প্রসঙ্গত ভারত ও চীনের মধ্যে সীমান্ত বিরোধ শুরু হওয়ার পর থেকে চীনা অ্যাপ এবং চীনা পণ্য বয়কটের দাবি জানাচ্ছিল ভারতীয়রা।

ফোন কিনতে এখানে ক্লিক করুন।

চীনা অ্যাপগুলির বিরুদ্ধে এই পদক্ষেপটি তথ্য প্রযুক্তি আইন, ২০০৯ এর ৬৯এ ধারার (যে কোনও কম্পিউটার সংস্থান থেকে যে কোনও তথ্যের সর্বজনিক ব্যবহার নিষিদ্ধ করার অধিকার) অধীনে নেওয়া হয়েছে। তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রক বলেছে, “আমরা একাধিক সূত্র ও রিপোর্ট থেকে মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে ডেটা চুরি এবং ভারতের বাইরে অবস্থিত সার্ভারে অনুমতি ছাড়াই ডেটা ট্রান্সফারের কথা জানতে পেরেছি।” যেহেতু এটি ভারতের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতার উপর আক্রমণ, তাই তাৎক্ষণিক পদক্ষেপ নেওয়া দরকার ছিল।

ফোন কিনতে এখানে ক্লিক করুন।

যারা এই অ্যাপগুলি ব্যবহার করছেন তাদের কি হবে :

ইতিমধ্যেই গুগল প্লে স্টোর ও অ্যাপল অ্যাপ স্টোর থেকে টিকটক ও হেলো অ্যাপকে সরানো হয়েছে। বাকি অ্যাপগুলিকেও শীঘ্রই অপসারিত করা হবে। অর্থাৎ নতুন করে এই অ্যাপগুলি আর ডাউনলোড করা যাবেনা। এমনকি সরকারের তরফে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার আদেশ দেওয়া হতে পারে যে এই অ্যাপগুলি আর অ্যাক্সেস করতে না দেওয়ার।

শীঘ্রই ব্যবহারকারীরা একটি মেসেজ পাবেন যে, ‘সরকারের আদেশে এই অ্যাপগুলিতে অ্যাক্সেস বন্ধ করা হয়েছে’। ফলে টিকটক, ইউসি নিউজের মতো অ্যাপ, যেগুলিতে ইন্টারনেট প্রয়োজন সেগুলো আর কাজ করবেনা। তবে অফলাইনে কাজ করা অ্যাপগুলি হয়তো এক্ষুনি বন্ধ সম্ভব নয়।

আমাদেরকে ফলো করুন ইনস্টাগ্রামে