চাহিদা নেই সস্তা iPhone 12 mini এর, বন্ধ হতে পারে উৎপাদন

iphone-12-mini-productions-discontinuations-due-to-poor-sale.jpg

গত সপ্তাহে প্রকাশিত বেশ কয়েকটি রিপোর্টে দাবি হচ্ছিলো নতুন iPhone 12 সিরিজ অন্যান্য বারের মত প্রত্যাশা পূরণ করতে পারিনি। কেবল 5G কানেক্টিভিটি ছাড়া এইবারের আইফোন সিরিজে নতুন কোনো ফিচার নেই বলেও অনেকে অ্যাপল কে সমালোচনা করেছেন।সম্প্রতি সামনে আসা আরেকটি রিপোর্টে এই দাবি কে সমর্থন জানালো হল। আসলে জল্পনা শুরু হয়েছে যে, চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকের মধ্যেই এই নতুন আইফোন সিরিজের অধীনস্থ একটি হ্যান্ডসেট, iPhone 12 mini-র উৎপাদন বন্ধ করা হতে পারে। মূলত গ্রাহকদের মধ্যে ওই হ্যান্ডসেটটির তেমন চাহিদা না থাকার কারণেই প্রিমিয়াম ডিভাইস নির্মাতা Apple এই বড় সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে বলে মনে করছে সংস্থার একটি সাপ্লাই চেন। আসুন এই বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নিই।

৬৫,৯০০ টাকা দামের (MRP ৬৯,৯০০ টাকা) iPhone 12 mini, বাজারে উপলব্ধ iPhone 12 সিরিজের সবচেয়ে সস্তা এবং ছোট নতুন 5G আইফোন। এই সিরিজের বাকি তিনটি ফোন অর্থাৎ iPhone 12, iPhone 12 Pro এবং iPhone 12 Pro Max-র দাম সাধারণ মানুষের কাছে তুলনামূলকভাবে অনেকটাই বেশি। সেক্ষেত্রে যারা নতুন আইফোন পকেটস্থ করার কথা ভাবছিলেন তাদের মধ্যে অনেকেরই সস্তা, ছোট অথচ শক্তিশালী ডিভাইস – বিকল্প হিসেবে প্রয়োজন ছিল। কিন্তু iPhone 12 mini, গ্রাহকদের সেই প্রত্যাশা পূরণ করতে সক্ষম হয়নি, এমনটাই অভিমত কিছু গবেষণা সংস্থার।

স্পেসিফিকেশনের কথা বললে, উক্ত সিরিজের সস্তা সংস্করণ আইফোন ১২ মিনি ফোনটিতে ৫.৪ ইঞ্চি সুপার রেটিনা এক্সডিআর ডিসপ্লে, ২৩৪০×১০৮০ পিক্সেল স্ক্রিন রেজোলিউশন এবং প্রায় ৪৭৬ পিপি পিক্সেল ডেন্সিটি রয়েছে। এছাড়াও আছে ১২ মেগাপিক্সেলের ওয়াইড ক্যামেরা এবং ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা সেন্সর যুক্ত ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ। আবার ফোনটি কোম্পানির A14 বায়োনিক চিপসেট দ্বারা চালিত এবং এটি ৬৪ জিবি, ১২৮ জিবি এবং ২৫৬ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া যায়। তদুপরি, ফোনটি অ্যাপলের লেটেস্ট আইওএস ১৪ সফ্টওয়্যার চলে। কিন্তু তাতেও যে গ্রাহকরা সন্তুষ্ট নন তা সাম্প্রতিক জল্পনা থেকেই স্পষ্ট।

অ্যাপল ইনসাইডারের সাম্প্রতিক একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, অ্যাপলের জেপি মরগান (JP Morgan) সাপ্লাই চেইনের বিশ্লেষক উইলিয়াম ইয়াং, আগামী দিনে আইফোন ১২ মিনি ডিভাইসটির উৎপাদন প্রায় ১১ মিলিয়ন ইউনিট কমতে চলেছে বলে মনে করছেন। পাশাপাশি কমছে আইফোন ১২-র উৎপাদনও। তবে ইয়াংয়ের মতে, আইফোন ১২ মিনি হ্যান্ডসেটটির চাহিদা এতই কম যে, সাপ্লাই চেইন ২০২১ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিকেই এই আইফোনের উৎপাদন বন্ধ করে দিতে পারে।

জানিয়ে রাখি, গত মাসে কনজিউমার ইন্টেলিজেন্স রিসার্চ পার্টনার্স (CIRP) নামক মার্কেট রিসার্চ সংস্থাও জানিয়েছে যে আইফোন ১২ মিনি, লঞ্চের পর অক্টোবর এবং নভেম্বর মাসে মোট আইফোন বিক্রির মাত্র ছয় শতাংশ দখল করেছিল। এমনকি অ্যাপল বিশ্লেষক মিং-চি কুও গত বছরেই উল্লেখ করেছিলেন যে আইফোন ১২ মিনি এবং আইফোন ১২ ডিভাইস দুটি – প্রত্যাশিত চাহিদা পূরণ করতে পারেনি। এখন দেখার বিষয় এটাই যে সত্যিই লঞ্চের মাত্র কয়েক মাসের মধ্যেই উক্ত আইফোন মডেলটি বাজার থেকে হারিয়ে যায় কিনা!

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন