এই বছরই লঞ্চ হতে পারে পোর্টলেস iPhone 13, প্রস্তুতি শুরু করলো Apple

iphone-13-may-be-portless-as-apple-testing-wireless-data-recovery-feature

মাত্র চার-পাঁচ মাস আগেই বাজারে পা রেখেছে নতুন আইফোন সিরিজ (iPhone 12)। এই সিরিজের ডিভাইসগুলির দাম বা অন্যান্য কারণের জন্য, ইচ্ছে থাকলেও অনেকেই এখনো পর্যন্ত এগুলিকে পকেটস্থ করে উঠতে পারেননি। কিন্তু ঘড়ির কাঁটার সাথেই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মানুষের চাহিদা, প্রতি মুহূর্তে সবার চাই নতুন কিছু! ফলে বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরেই প্রিমিয়াম ডিভাইস প্রেমীদের মধ্যে পরবর্তী আইফোন হ্যান্ডসেট নিয়ে উৎসুকতা দেখা যাচ্ছে। iPhone 12-র সাকসেসর বা উত্তরসূরী iPhone 13 সিরিজ নিয়ে ইতিমধ্যে নেটদুনিয়ায় বেশ জল্পনাও শুরু হয়েছে, যেখানে আসন্ন আইফোনগুলির সম্ভাব্য কিছু ফিচার বা চেহারা প্রকাশিত হয়েছে। তবে আজ টেক জায়ান্ট Apple-এর আগামী হ্যান্ডসেটগুলির এমন একটি নতুন ফিচারের কথা আমাদের সামনে এসেছে, যা শুনলে আইফোন ভক্তরা খুশিতে ডগমগ হয়ে উঠবেন! আসলে সাম্প্রতিক রিপোর্ট বলছে যে, এই বছরের শেষ দিকে গতানুগতিক সময়ে iPhone 13 তো লঞ্চ হবেই, একই সাথে বাজারে আসবে এই ডিভাইসগুলির ‘পোর্টলেস’ সংস্করণও। সোজা কথায় বললে এবার, নতুন আইফোনে কোনো পোর্ট না থাকার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে!

তবে অনেকেই এই খবরটি শোনা মাত্র প্রশ্ন তুলেছেন যে, পোর্টলেস আইফোনে কিভাবে ডেটা রিকভার হবে। কারণ, এখনো পর্যন্ত আইফোন ইউজাররা তাদের পিসি (পার্সোনাল কম্পিউটার) থেকে ফোনের হারানো বা ডিলিট হয়ে যাওয়া ডেটা পুনরুদ্ধার করতে পারেন। কিন্তু, এই ডেটা রিকভার প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করার জন্য সাধারণত ইউএসবি টাইপ-এ তারের সাথে ল্যাপটপ পোর্টের বৈদ্যুতিন সংযোগ স্থাপন করা হয়। সেক্ষেত্রে ফোনে কোনো লাইটনিং পোর্ট না থাকলে হারানো ডেটা রিকভার করা যাবে কিনা সেই নিয়ে সংশয় থাকা স্বাভাবিক!

এই বিষয়ে অ্যাপলোসফি (Appleosophy) ওয়েবসাইট তাদের একটি প্রতিবেদনে জানিয়েছে যে, অ্যাপল (Apple), তার পরবর্তী পোর্টলেস আইফোনের হার্ডওয়ার এবং সফটওয়্যার – উভয় প্যারামিটারের ওপর কাজ করবে এবং ওয়্যারলেস চার্জিং বা ওয়্যারলেস অডিও সংযোগের সুবিধা দেবে। সেক্ষেত্রে ডেটা রিকভারের সমস্যা মেটানোর জন্য সংস্থাটি ‘ইন্টারনেট রিকভারি’ নামে কোনো অপশন আনতে পারে।

অ্যাপলোসফির এক কর্মকর্তা ম্যাকগুইয়ার উডের মতে, আগামী দিনে আইফোন ইউজাররা তাদের ডিভাইসের ডেটা ম্যানুয়ালি পুনরুদ্ধার করার জন্য সেটিকে রিকভারি মোডে রাখলেই একটি ইন্টারনেট রিস্টোর ব্রডকাস্ট ফিচার ট্রিগার হবে, যা ডেটা ফাইন্ড বা স্ক্যানের জন্য একটি আপডেট এনাবেল সক্ষম করবে। সেক্ষেত্রে ইউজাররা প্রক্রিয়াটি সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য প্রম্পট গাইডের সুবিধাও পেতে পারেন বলে জানিয়েছেন উড।

উক্ত প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে যে, ডেটা রিকভারের জন্য অ্যাপল আরো কিছু বিকল্প রাখতে পারে যেখানে ডিভাইসটিকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে রিকভারি মোডে নিয়ে যেতে হবে অথবা, ব্লুটুথ ব্যবহার করে ইন্টারনেট পুনরুদ্ধার প্রম্পটের সাহায্য নিতে হবে। তবে তৃতীয় উপায়টি অপেক্ষাকৃত ধীর এবং অনিরাপদ হতে পারে বলেও দাবি করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, আগামী দিনে সত্যিই পোর্টলেস আইফোন লঞ্চ হবে কিনা সে বিষয়ে কোনো নির্দিষ্ট তথ্য আপাতত টেকগাপের কাছে নেই। তবে যেহেতু অ্যাপল, ওয়্যারলেস ইকোসিস্টেমের দিকে ধীরে ধীরে এগোচ্ছে কিংবা হ্যান্ডসেটের রিটেল বক্স থেকে হেডফোন-চার্জারের মত অ্যাক্সেসরিজগুলিকে সরিয়ে দিচ্ছে – তাই পরবর্তী আইফোনে পোর্টলেস প্রযুক্তি দেখা গেলেও অবাক হওয়ার কিছু নেই!

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন