সবাইকে পেছনে ফেললো iPhone 13 সিরিজ, একদিন প্রি-অর্ডার ছাড়ালো ৫০ লক্ষ ইউনিট

২৪ ঘন্টায় ৫ মিলিয়ন iPhone 13 সিরিজের ফোন প্রি-অর্ডার করা হয়েছে

iphone-13-series-pre-booking-cross-5-million-units-with-in-24-hours

কিছুদিন আগেই টেক জায়ান্ট Apple তাদের নেক্সট জেনারেশন আইফোন সিরিজ, iPhone 13 লঞ্চ করেছে। এই লেটেস্ট সিরিজের অধীনে চারটি মডেল এসেছে – iPhone 13, iPhone 13 mini, iPhone 13 Pro এবং iPhone 13 Pro Max। গত ১৭ই সেপ্টেম্বর থেকে এই সিরিজের ফোনগুলির প্রি-অর্ডার শুরু হয়েছিল এবং আগামীকাল থেকে ফোনগুলি রিটেল স্টোরের মাধ্যমে কেনা যাবে। চলতি সপ্তাহের শুরুতে, মার্কেট রিসার্চার ফার্ম, কাউন্টারপয়েন্টের রিপোর্ট অনুসারে আমরা ভারতে এই নয়া সিরিজ কতটা ‘ক্রেজ’ তৈরী করেছিল সেই সম্পর্কে আপনাদের জানিয়েছিলাম। আজ আরেকটি নতুন রিপোর্ট আমাদের হাতে এসেছে, যা চীনে iPhone 13 সিরিজের অভাবনীয় সাফল্য পাওয়ার দাবি করেছে।

২৪ ঘন্টায় ৫ মিলিয়ন iPhone 13 সিরিজের ফোন প্রি-অর্ডার করা হয়েছে

সম্প্রতি প্রকাশিত এই রিপোর্ট থেকে জানা গেছে, প্রি-অর্ডার শুরু হওয়ার প্রথম দিনেই (১৭ই সেপ্টেম্বর) আইফোন ১৩ সিরিজের ৫০ লাখেরও বেশি ইউনিট বুক করা হয়েছিল। আপনারা নিশ্চয়ই ভাবছেন এতে অবাক হওয়ার কি আছে? আসলে এটি হল চীনের থার্ড পার্টি ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মগুলি থেকে প্রাপ্ত মোট প্রি-অর্ডারের পরিসংখ্যান। এই ৫০ লাখের মধ্যে ৩০ লাখ ইউনিট JD.com থেকে বুক করা হয়েছে। চীনের অ্যাপল অনলাইন স্টোর থেকে প্রাপ্ত প্রি-অর্ডারের সংখ্যা এই গণনার মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। ফলে ভারতের মতো চীনেও যে অ্যাপলের লেটেস্ট আইফোন কেনার জন্য মানুষ মুখিয়ে আছে, তা এই পরিসংখ্যান প্রমাণ করে দেয়।

iPhone 13 মডেলগুলির ডেলিভারির তারিখ পরিবর্তন করা হয়েছে

জানিয়ে রাখি, ভারতে নতুন আইফোন মডেলের ব্যাপক চাহিদার কারণে ডেলিভারির তারিখ পরিবর্তন করা হয়েছে। এর আগে প্রি-অর্ডারকারীদের জন্য iPhone 13 Pro এবং iPhone 13 Pro Max মডেল দুটিকে ২৪শে সেপ্টেম্বর থেকে ডেলিভারি করা হবে বলে ঘোষণা করা হয়েছিল, যা পিছিয়ে ৩০শে সেপ্টেম্বর করে দেওয়া হয়েছে। তবে, iPhone 13 Pro Max মডেলের ২৫৬ জিবি স্টোরেজের গোল্ড কালার ভ্যারিয়েন্ট হাতে পেতে ক্রেতাদের হয়তো অক্টোবর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। অন্যদিকে, iPhone 13, iPhone 13 mini-কে আগামী ২৭শে সেপ্টেম্বর থেকে পাওয়া যাবে। সুতরাং, সেপ্টেম্বরের শেষ থেকে অক্টোবরের শেষ পর্যন্ত আইফোনের শিপিং সম্পন্ন হয়ে যাবে বলে আশা করা যায়।

লেটেস্ট আইফোন সিরিজ নিয়ে লঞ্চের আগে থেকেই নানা ধরণের কানাঘুষো ও গুজব রটেছিল। কিন্তু প্রকাশ্যে আসার পর, অ্যাপলের আইফোন ১৩ সিরিজের ফিচারে বিরাট কোনো চমক দেখা যায়নি। যা নিয়ে OnePlus সংস্থাও মশকরা করতে ছাড়েনি। এসত্ত্বেও দেখা যাচ্ছে, আন্তর্জাতিক বাজারে এই সিরিজের চাহিদা ব্যাপক, বিশেষত চীনে রেকর্ড সংখ্যক মানুষ এই নয়া সিরিজের ফোনগুলি প্রি-অর্ডার করেছেন।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

শুভেচ্ছা বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। তিনি একদিকে যেমন ফটোগ্রাফার, তেমনি পাশাপাশি লেখিকাও। এছাড়াও তার শখের মধ্যে আছে বই পড়া, গান গাওয়া, ছবি আঁকা এবং ওয়েব ডিজাইন। শুভেচ্ছা আমাদের টেকগাপ পরিবারের একজন নতুন সদস্য।