অর্ধেক দামে iPhone, ফ্রিডম ২৫১ স্ক্যামের কথা মনে করালো নতুন কেলেঙ্কারি

iphone-scam-fraudster-promoted-fake-deals-cheap-rate-smartphone

ভুয়ো ফোন কল, মেসেজ, ওয়েবসাইট ইত্যাদির মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে বোকা বানানোর কথা আমরা আকছার শুনে থাকি। স্ক্যামের ফাঁদে পা দিয়ে কেউ সর্বস্ব খুইয়েছেন এমন কথাও প্রায়ই সামনে আসে। কিন্তু এবার সামনে এল একটি আইফোন কেলেঙ্কারীর (iPhone Scam) কথা যা সাম্প্রতিক সময়ে ইন্টারনেটে ব্যাপকভাবে মোহজাল বিস্তার করেছে বলে জানা গিয়েছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, জালিয়াতরা ম্যাক্সিমাম রিটেল প্রাইসের অর্ধেক দামে আইফোন পকেটস্থ করার প্রলোভন দেখিয়ে ভুয়ো সেল আয়োজন করছে। সন্দেহ করা হচ্ছে, এই স্ক্যামে হিতেশ প্যাটেল ওরফে নীল প্যাটেল নামের এক ব্যক্তি জড়িত, যার ইতিমধ্যেই ভারত ছাড়াও অন্যান্য দেশে অসংখ্য জালিয়াতির রেকর্ড রয়েছে।

জানিয়ে রাখি, সম্প্রতি অল্ট নিউজ (ALT News) ফ্যাক্ট চেকিং ওয়েবসাইটের প্রতিষ্ঠাতা মহম্মদ জুবেইরের টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে এই আইফোন স্ক্যামের প্রচার করা হয়। পরিচিত জুবেইরের অ্যাকাউন্ট থেকে স্ক্যামাররা টুইট করে ‘বিগেস্ট সেল’ নামে একটি ভুয়ো সেলের কথা মানুষকে জানায়। এই সেলে ৫১,৯৯০ টাকা মূল্যের iPhone 11 হ্যান্ডসেটটি ২৬,৯৪৯ টাকায় এবং ১,১৯,৯৯০ টাকা মূল্যের iPhone 12 ফোনটি ৬৭,৪৪৯ টাকায় বিক্রি করার কথা বলা হয়। জুবেইরের টুইটার অ্যাকাউন্ট ছাড়াও, নীল প্যাটেল দ্বারা তৈরী স্কোয়াক্স মিডিয়া (Squeaks Media) নামে একটি অ্যাপের মাধ্যমেও এই ভুয়ো অফারের প্রচার করা হয়েছে। এই অ্যাপ্লিকেশনটিকে ‘স্বদেশী’ সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম হিসাবে পরিচয় দেওয়া হয়েছে এবং কম দামে আইফোন বিক্রির সপক্ষে কিছু যুক্তি দেওয়া হয়েছে।

উক্ত টুইট পোস্টটি ভালোভাবে দেখলেই বোঝা যায়, এই স্ক্যামের উদ্দেশ্য সফল করতে সাধারণ মানুষের স্বদেশ সম্পর্কিত আবেগটিকে ব্যবহার করা হয়েছে। প্রচারে বলা হয়েছে যে, বিপণনে ব্যয় করার পরিবর্তে জনগণকে কম দামে আইফোন কেনার সুযোগ দিচ্ছে সংস্থাটি। যেহেতু কোম্পানিটি সদ্য চালু হয়েছে, তাই এটি ব্যবসার প্রথম এক হাজার দিনের নিজের লাভ ভুলে সাধারণ মানুষের আস্থা অর্জন করতে চাইছে।

উক্ত ঘটনাটি আমাদের বছর ৫-৬ আগের ‘ফ্রিডম ২৫১’ স্ক্যামের কথা মনে করিয়ে দিতে পারে, যেখানে ২৫১ টাকার বিনিময়ে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন সরবরাহ করার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল। তবে সাম্প্রতিক জালিয়াতিটিতে টাকার অ্যামাউন্ট অনেকটাই বেশি এবং এটিতে ডিভাইসের নাম নেওয়া হয়নি! সেক্ষেত্রে এই নতুন স্ক্যামে ইতিমধ্যে ৮ হাজারেরও বেশি আইফোন অর্ডার হয়েছে বলে জানা গিয়েছে, যার মোট পরিমাণ প্রায় ৪০ কোটি টাকা। কিন্তু ক্রেতাদের বলা হয়েছে যে তারা আগামী তিন-চার সপ্তাহের মধ্যে অর্ডারটি হাতে পাবেন, কারণ সেলার এত অর্ডার একসাথে সরবরাহ করতে সক্ষম নন।

অতএব, ইন্টারনেটে ঘুরতে থাকা এই ধরণের যেকোনো সেল বা অফারে ভরসা করে নিজের টাকা খরচ করবেননা অথবা নিজের ব্যাংক ডিটেইলস শেয়ার করবেননা। মনে রাখবেন তৃতীয় রিপুর বশে সামান্য অসাবধান হলেই পকেট গড়ের মাঠ হতে বেশি সময় লাগবে না!

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন