নতুন বছরের শুরুতেই লঞ্চ হবে iQOO 7, থাকবে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর

এই মাসের গোড়ায় ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হওয়া স্ন্যাপড্রাগন সামিটে Vivo জানিয়েছিল, আগামী বছরেই স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ চিপসেটের সাথে তারা ফোন লঞ্চ করতে চলেছে। এরপর বেশ কিছুদিন কেটে গেলেও ফোনটির ব্যাপারে বিশেষ কিছু জানা যায় নি। তবে ভিভোর সাবব্রান্ড iQOO এবার অফিসিয়ালি জানিয়ে দিল, সংস্থার আপকামিং ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনের নাম হবে iQOO 7। সুতরাং এটিই যে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ চিপসেটে চলবে, সেই বিষয়ে সন্দেহের কোনো অবকাশ রইলো না।

iQOO, চীনা মাইক্রোব্লগিং সাইট উইবোতে ফোনটির অফিসিয়াল পোস্টারও শেয়ার করেছে। পাশাপাশি সংস্থাটি বলেছে, iQOO 7 ফোনটি KPL-এর অফিসিয়াল গেমিং স্মার্টফোন হবে। জানিয়ে রাখি, KPL বা King Pro Leauge চীনের বৃহত্তম ই-স্পোর্টস ইভেন্টের মধ্যে অন্যতম। পূর্বে iQOO 3 ফোনটিকেও KPL সার্টিফায়েড গেমিং ফোন হিসেবে বাজারে আনা হয়েছিল।

অফিসিয়াল পোস্টার অনুযায়ী, আইকো ৭ ফোনটির পিছনে ট্রিপল ক্যামেরা থাকবে। ক্যামেরা মডিউলে সেন্সর তিনটি ত্রিকোণভাবে অবস্থান করেছে। মডিউলের নীচে ডুয়াল কালার ফ্ল্যাশ ও iQOO-এর লোগো রাখা হয়েছে। ফোনটির রিয়ার হোয়াইট প্যানেলের ডানদিকে ব্লু, ব্ল্যাক ও রেড স্ট্রাইপ লম্বালম্বিভাবে উপস্থিত রয়েছে। স্মরণ করিয়ে দিই, চলতি বছরেই iQOO জার্মান প্রিমিয়াম গাড়ি নির্মাতা সংস্থা BMW-এর সাথে হাত মিলিয়ে iQOO 5 Pro ফোনটির একটি স্পেশাল এডিশান মডেল বাজারে এনেছিল। যার সাদা রঙের ব্যাক প্যানেলে নীল, কালো ও লাল রঙের স্ট্রাইপ ছিল। ফলে iQOO 7-কে BMW স্পেশাল এডিশন হিসেবে লঞ্চ করার সম্ভাবনার কথাও একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যায় না।

এই প্রসঙ্গে বলে রাখি, সম্প্রতি V2049A মডেল নম্বরের সাথে ভিভোর একটি ফোন চীনের 3C-এর ছাড়পত্র পেয়েছে। এই ফোনটি ১২০W ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। এটি iQOO 7 সিরিজের ফোন হবে বলে জল্পনা শুরু হয়েছে। তবে এই বিষয় সম্পর্কে সঠিক তথ্য পেতে আগামীদিনে iQOO-এর আনুষ্ঠানিক ঘোষণার জন্য অপেক্ষা করা ছাড়া উপায় নেই।