স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসরের দ্বিতীয় ফোন হতে পারে iQOO 7, কবে লঞ্চ হবে জেনে নিন

iqoo-7-snapdragon-888-soc-and-120w-fast-charging-confirmed-launch-imminent

ইতিমধ্যে ভিভোর সাবব্রান্ড iQOO ঘোষণা করেছে, তারা নতুন বছরে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ চিপসেট দ্বারা চালিত একটি ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন লঞ্চ করতে চলেছে। সংস্থার পক্ষ থেকে iQOO 7 নামে এই ফোনটির অফিসিয়াল রেন্ডার সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম উইবোতে শেয়ার করা হয়েছে। সম্প্রতি কিছু রিপোর্টে বলা হচ্ছে, ১২ই ফেব্রুয়ারি চীনের স্প্রিং ফেস্টিভালের আগেই ফোনটি অফিসিয়ালি লঞ্চ হয়ে যেতে পারে। সেখানকার একটি রিটেল আউটলেটে আইকো ৭ ফোনটির প্রি-সেল পোস্টার লাগানো আছে বলে এবার খবর পাওয়া গেল। পোস্টারটি গত শুক্রবার একজন উইবো ব্যবহারকারীর নজরে আসে।

সেই উইবো ইউজার দাবী করেছেন, iQOO 7 ফোনটির বিষয়ে তিনি স্টোরটির এক কর্মচারীর সাথে কথা বলেছিলেন। কর্মচারী তাঁকে জানিয়েছেন, iQOO-এর আপকামিং ফ্ল্যাগশিপ ফোনটির স্টক আর দিন পনেরোর মধ্যেই উপলব্ধ হবে। অর্থাৎ জানুয়ারির মাঝামাঝি সময়েই ফোনটির লঞ্চ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। সেক্ষেত্রে আইকো ৭ স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসরের দ্বিতীয় ফোন হতে পারে।

অফিসিয়াল রেন্ডারে ফোনের ব্যাক প্যানেলের ছবি সামনে এলেও এর ফ্রন্ট ডিজাইন ও স্পেসিফিকেশনের বিষয়ে এখনও IQOO কিছু বলেনি। অফিসিয়াল পোস্টারে, iQOO 7 ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরার সাথে দৃশ্যমান হয়েছিল। যার প্রাইমারি ক্যামেরা ৪৮ মেগাপিক্সেলের হতে পারে। তাছাড়া সূত্রের খবর, এতে Vivo X60 সিরিজের ফোনে থাকা ৬.৫৬ ইঞ্চির অ্যামোলেড প্যানেল দেওয়া হবে। যার সেলফি ক্যামেরার কাটআউট ডিসপ্লের ওপরের দিকে মাঝখানে থাকবে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি V2049A মডেল নম্বরের সাথে ভিভোর একটি ফোন চীনের 3C-এর ছাড়পত্র পেয়েছে। সেখান থেকে জানা গেছে যে, ফোনটি ১২০W ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। এটি iQOO 7 সিরিজের ফোন হবে বলে এখন জল্পনা চলছে। জানিয়ে রাখি ১২০ ওয়াট চার্জিং টেকনোলজি একটি ৪,০০০ এমএএইচ ব্যাটারিকে ১৫ মিনিটে ফুল চার্জ করে দেয়। iQOO ফোনটির লঞ্চ ডেট ও অফিসিয়াল স্পেসিফিকেশন শীঘ্রই ঘোষণা করতে পারে বলে ধরে নেওয়া যায়।