597 টাকায় এয়ারটেল লঞ্চ করলো ধামাকা প্রিপেইড প্ল্যান

এয়ারটেলের এই প্লানের বৈধতা 168 দিন

  

সম্প্রতি রিলায়েন্স জিও মনসুন হাঙ্গামা উপলক্ষে 594 টাকায় একটি রিচার্জ প্ল্যান এনেছে যার বৈধতা 6 মাস।এই প্ল্যানটিকে  মোকাবিলা করার জন্য এয়ারটেল 597 টাকায় আরেকটি প্ল্যান লঞ্চ করছে। এই প্ল্যানটিতে ব্যবহারকারীরা ভয়েস কলিং, ডেটা এবং এসএমএস সুবিধা পাবেন ।আসুন জেনে নেওয়া যাক এই প্ল্যান দুটির মধ্যে পার্থক্য।

জিও 594 টাকার প্ল্যান :

এর প্ল্যানটির বৈধতা 6 মাস। এই প্ল্যান শুধুমাত্র সেই ব্যবহারকারীদের জন্য আনা হয়েছে যারা একটি জিও ফোন কিনবেন।ব্যবহারকারীদের প্রতি মাসে 99টাকা  (99 * 6 = 594) রিচার্জ করতে হবে। তারা প্রতিদিন 500 এমবি ডাটা এবং 300 টি এসএমএস পাবেন সাথে থাকবে আনলিমিটেড ভয়েস কলিং পুরো 28 দিনের জন্য। এ ছাড়াও, ব্যবহারকারীরা 101 টাকা মূল্যে একটি 6 জিবি বোনাস ডেটা ভার্চার পাবেন।সর্বমোট তারা 90 জিবি ডাটা পাবেন (500 এমবি প্রতিদিন * 168 দিন = 84 + 6 জিবি বোনাস = 90) 6 মাসের মধ্যে।

এয়ারটেল 597 টাকার প্ল্যান :

এয়ারটেলের এই প্লানের বৈধতা 168 দিন।এই প্ল্যানে আনলিমিটেড ভয়েস কলিং এর কথা বলা হয়েছে,একই সাথে 100 টি এসএমএসও দৈনিক পাওয়া যাবে । এছাড়াও 10 জিবি  ইন্টারনেট ডাটা দেওয়া হবে। এই প্ল্যানটি শুধুমাত্র নির্বাচিত কয়েকজন ব্যবহারকারীরা পাবেন ।

Jio vs. Airtel: দুটো পার্থক্য 

1.জিও শুধুমাত্র প্ল্যানটি জিও ফোন ক্রেতাদের জন্যই বাজারে এনেছে।এই প্ল্যানের সুবিধা তারাই পাবেন যারা 501 টাকা দিয়ে পুরোনো জিও ফোন বদলে নতুন জিও ফোন নেবেন।যদিও এয়ারটেলের এমন কোনো নিয়ম নেই।

2.এয়ারটেল শুধুমাত্র 10 জিবি ইন্টারনেট ডাটা দিচ্ছে 168 দিনের জন্য।সেখানে জিও প্রতিদিন 500 এমবি ইন্টারনেট ডাটা দিচ্ছে পুরো 180 দিনের জন্য।