Reliance Jio-র জাদু অব্যাহত, Airtel, Vi কে পিছনে ফেলে মে মাসে জুড়লো ৩৫ লক্ষ নতুন গ্রাহক

jio-gains-35-lakhs-subscribe-in-may-airtel-and-vodafone-idea-lost-over-40-lakh-subscribers-trai-report
মে মাসে ৩৫.৫ লক্ষ নতুন গ্রাহক পেল Reliance Jio

রিলায়েন্স জিও (Reliance Jio) বাদে দেশের অন্যান্য টেলিকম পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থাগুলি আপাতত গ্রাহক হারানোর প্রতিযোগিতায় মেতে উঠেছে! নতুন মানুষ আকর্ষণ তো দূরস্থান, নিজেদের স্থায়ী উপভোক্তাদের ধরে রাখতেও দেশের টেলিকম কোম্পানীগুলি হিমশিম খাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে ভারতের টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া বা ট্রাই (TRAI) মে মাসের টেলিকম গ্রাহক সংক্রান্ত যে তথ্য সামনে এনেছে তা এয়ারটেল (Airtel) বা ভিআই (Vi) -এর মতো প্রতিষ্ঠানের নাক কাটানোর পক্ষে যথেষ্ট! শুধুমাত্র চলতি বছরের মে মাসেই সংস্থা দুটি রেকর্ড পরিমাণ গ্রাহক হারিয়েছে।

মে মাসে ৩৫.৫ লক্ষ নতুন গ্রাহক পেল Reliance Jio

ট্রাইয়ের (TRAI) মে মাসের পরিসংখ্যান ভারতের টেলিকম ক্ষেত্রে রিলায়েন্স জিও’র একচেটিয়া আধিপত্যকে আরও স্পষ্ট করেছে। জিও ছাড়া অন্য কোন সংস্থাই সাম্প্রতিককালে নতুন গ্রাহক সংগ্রহে সফল হয়নি। উপরন্তু তাদের পূর্বের জনপ্রিয়তা ধসে পড়েছে। ভোডাফোন-আইডিয়াকে টেক্কা দিয়ে মে মাসে সবথেকে বেশি গ্রাহক হারিয়েছে এয়ারটেল। প্রায় ৪৩.১৬ লক্ষ উপভোক্তা উক্ত সময়ে এয়ারটেলের সঙ্গ ত্যাগ করেছেন। অন্যদিকে একই সময়ে ভোডাফোন-আইডিয়া হারিয়েছে ৪২.৮ লক্ষ গ্রাহক। সেই জায়গায় রিলায়েন্স জিও ৩৫.৫ লক্ষ নতুন উপভোক্তা নিজের পকেটে পুরে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

বাজার শেয়ার পরিমাণ ব্যাখ্যার মাধ্যমে উপরের তথ্যকে আরো স্পষ্টভাবে বুঝিয়ে বলা সম্ভব। ট্রাই প্রদত্ত পরিসংখ্যান অনুযায়ী বর্তমানে মোট ওয়্যারলেস ব্যবহারকারীর মধ্যে ৩৬.৬৪ শতাংশ মানুষ রিলায়েন্সের পরিষেবার আওতায় রয়েছেন। অন্যদিকে ওয়্যারলেস উপভোক্তার হিসেবে এয়ারটেল ও ভিআইয়ের বাজার শেয়ার যথাক্রমে ২৯.৬০ ও ২৩.৫৯ শতাংশ। মাত্র ৯.৮৯ শতাংশ বাজার দখল করে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা বিএসএনএল উক্ত তালিকায় অনেক পিছনে অবস্থান করছে।

এদিকে এপ্রিল মাসের তুলনায় দেশে ওয়্যারলাইন পরিষেবা গ্রাহক পরিমাণে কিছুটা উন্নতি হয়েছে। সার্বিক হিসেবে প্রায় ১.৩০ মিলিয়ন উপভোক্তা মাসখানেকের ব্যবধানে নতুন ওয়্যারলাইন সংযোগ গ্রহণ করেছেন। পরিসংখ্যান থেকে এটাও জানা গিয়েছে যে শহর ও গ্রামীণ এলাকায় ওয়্যারলাইন সংযোগ ব্যবহারকারীর পরিমাণ মোট হিসেবের যথাক্রমে ৯০.৯৩ ও ৯.০৭ শতাংশ।

ব্রডব্যান্ড উপভোক্তাদের পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার তালিকাতেও রিলায়েন্স রয়েছে এক নম্বরেই। এয়ারটেল, ভোডাফোন-আইডিয়া, ও বিএসএনএল রয়েছে যথাক্রমে দ্বিতীয়, তৃতীয় এবং চতুর্থ স্থানে। পরিসংখ্যান অনুযায়ী মে মাসে উপরোক্ত চার সংস্থার আওতায় থাকা ব্রডব্যান্ড উপভোক্তার সংখ্যা যথাক্রমে ৪৩৪.২৩, ১৯২.৭৩, ১১৯.৬৪ এবং ২২.৪৭ মিলিয়ন।

উল্লেখ্য, গ্রাহক হারানোর প্রতিযোগিতার মাঝেই এয়ারটেল প্রিপেইড ব্যবহারকারীদের জন্য ন্যূনতম রিচার্জ বিকল্পের দাম ৪৯ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৭৯ টাকা করেছে। এছাড়া সংস্থাটি নিজেদের পোস্টপেইড পরিষেবার দাম বাড়াতেও বাধ্য হয়েছে। এই সমস্ত সিদ্ধান্ত আগামীদিনে তাদের ব্যবসায় যে প্রভাব ফেলবে, তা ইতিবাচক না নেতিবাচক হবে সেটা সময়ই বলবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020