JioPhone Next Sale: আজ থেকে বিক্রি শুরু জিও-র সস্তা ফোনের, দাম ও কোথা থেকে কিনবেন জেনে নিন

JioPhone Next স্মার্টফোনের দাম ৬,৪৯৯ টাকা হলেও, ইজি ইএমআই (easy EMI) অপশনের দৌলতে মাত্র ১,৯৯৯ টাকা ডাউন পেমেন্ট করে এটি পকেটস্থ করা যাবে

jiophone-next-sale-today-in-india-price-rs-6499-emi-scheme-specifications-feature-jiomart

আজ সেই মাহেন্দ্রক্ষণ, যেদিন প্রথমবার JioPhone Next সেলে বিক্রির জন্য উপলব্ধ হবে। Reliance Jio-র অফিসিয়াল ওয়েবসাইট, অ্যাপ (MyJio) সহ অফলাইন পার্টনার রিটেল স্টোর থেকে ফোনটি কেনা যাবে। আর সেল অফার হিসাবে এর সাথে চার ধরনের নো-কস্ট ইএমআই স্কিমের সুবিধা নিতে পারবেন ক্রেতারা। ফলে JioPhone Next স্মার্টফোনের দাম ৬,৪৯৯ টাকা হলেও, ইজি ইএমআই (easy EMI) অপশনের দৌলতে মাত্র ১,৯৯৯ টাকা ডাউন পেমেন্ট করে এটি পকেটস্থ করা যাবে। উল্লেখ্য, ইএমআই শোধ করার বিনিময়ে ক্রেতাদের ভয়েস কলিং এবং প্রত্যহ ২.৫ জিবি পর্যন্ত ডেটা অফার করার মত লোভনীয় প্রস্তাবও দিচ্ছে Jio। টেক জায়ান্ট Google এর সহযোগিতায় ডেভলপ করা এই ‘বাজেট ফ্রেন্ডলি’ স্মার্টফোন, এইচডি প্লাস ডিসপ্লে প্যানেল, ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা, ৩,৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি এবং কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ২১৫ প্রসেসর সহ এসেছে। আবার এতে, গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট, রিড অ্যালাউড এবং ট্রান্সলেট এর মতো ‘স্মার্ট’ ফিচারও থাকছে। সর্বোপরি, JioPhone Next হল সদ্য লঞ্চ হওয়া অ্যান্ড্রয়েড ভিত্তিক প্রগতি ওএস চালিত প্রথম স্মার্টফোন। আসুন JioPhone Next -এর দাম, সেল অফার এবং সম্পূর্ন স্পেসিফিকেশন দেখে নেওয়া যাক।

জিওফোন নেক্সট দাম ও ইএমআই (JioPhone Next Price, EMI)

ভারতে, জিওফোন নেক্সট এর দাম ৬,৪৯৯ টাকা ধার্য করা হয়েছে। এই ফোনকে কেনার সময় সম্পূর্ণ পেমেন্ট বা ইএমআই অপশনের সুবিধা গ্রহণ করা যাবে। খরিদ্দারীর ক্ষেত্রে ক্রেতারা যদি ইএমআই অপশন বেছে নেন, তবে শুরুতে ১,৯৯৯ টাকা ডাউন পেমেন্ট করতে হবে। আর বাকি টাকা ১৮ বা ২৪ মাস ধরে ইএমআই-এর মাধ্যমে পরিশোধ করা যাবে। এর জন্য চার ধরনের ইএমআই স্কিম উপলব্ধ, যাতে ভয়েস কল এবং ডেটার সুবিধা থাকবে।

জিওফোন নেক্সট স্মার্টফোন আজ অর্থাৎ ৪ নভেম্বর থেকে জিওমার্ট (JioMart) ডিজিটাল রিটেল স্টোর, সংস্থার অফিসিয়াল অ্যাপ ও ওয়েবসাইট (www.jio.com) থেকে কেনা যাবে। এছাড়া, হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমেও রেজিস্ট্রেশন করে ফোনটি বুক করা যাবে। এর জন্য ৭০১৮২৭০১৮২ নম্বরে ‘Hi’ লিখে পাঠাতে হবে। রেজিস্ট্রেশন সম্পূর্ণ হয়ে গেলে অর্ডারকারী একটি কনফার্মেশন মেসেজ পাবেন এবং তাকে জিওফোন নেক্সট সংগ্রহ করার জন্য নিকটবর্তী যেকোনো জিওমার্ট স্টোরে যেতে হবে।

এই EMI স্কিমগুলির অধীনে কেনা যাবে JioPhone Next

অলওয়েজ অন প্ল্যান: এই প্ল্যানটি বেছে নিলে ২৪ মাসের মেয়াদে মাসিক ৩০০ টাকা বা ১৮ মাসের মেয়াদে মাসিক ৩৫০ টাকা ইএমআই পরিশোধ করতে হবে। আর এই প্ল্যানের সাথে ৫ জিবি ডেটা এবং ১০০ মিনিট ভয়েস কলিং মিলবে।

লার্জ প্ল্যান: এই প্ল্যানে ২৪ মাসের মেয়াদে মাসিক ৪৫০ টাকা বা ১৮ মাসের মেয়াদে মাসিক ৫০০ টাকা কিস্তি দিতে হবে। এর সাথে প্রতিদিনের ১.৫ জিবি ডেটা এবং আনলিমিটেড ভয়েস কলিংয়ের বেনিফিট অফার করা হবে।

এক্সএল প্ল্যান: এক্সএল ইএমআই প্ল্যান বেছে নিলে, ইউজারদের ২৪ মাসের জন্য মাসিক ৫০০ টাকা বা ১৮ মাসের জন্য মাসিক ৫৫০ টাকা ইএমআই দিতে হবে। আর, পরিবর্তে রোজ ২ জিবি ডেটা এবং আনলিমিটেড ভয়েস কলিংয়ের সুবিধা পাওয়া যাবে।

ডাবল এক্সএল প্ল্যান : ডাবল এক্সএল প্ল্যানে, ২৪ মাসের মেয়াদে মাসিক ৫৫০ টাকা বা ১৮ মাসের মেয়াদে মাসিক ৬০০ টাকা ইএমআই দিতে হবে। যার পর ইউজাররা প্রত্যহ ২.৫ জিবি ডেটা এবং আনলিমিটেড ভয়েস কল করতে পারবেন।

JioPhone Next স্পেসিফিকেশন

জিওফোন নেক্সট, সদ্য লঞ্চ হওয়া অ্যান্ড্রয়েড ভিত্তিক প্রগতি ওএস দ্বারা চালিত হবে। এতে, কর্নিং গরিলা গ্লাস ৩ প্রটেকশন এবং অ্যান্টি-ফিঙ্গারপ্রিন্ট কোটিং সহ একটি ৫.৪৫ ইঞ্চির এইচডি প্লাস (৭২০x১,৪৪০ পিক্সেল) ডিসপ্লে রয়েছে। উন্নত পারফরম্যান্সের জন্য ফোনটি, ১.৩ গিগাহার্টজ ক্লক রেটের কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ২১৫ কোয়াড-কোর প্রসেসর সহ এসেছে। স্টোরেজ হিসাবে এতে, ২ জিবি র‌্যাম এবং ৩২ জিবি মেমোরি পাওয়া যাবে। তবে, মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজকে ৫১২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো হবে।

জিওফোন নেক্সট অটোমেটিক সফ্টওয়্যার আপগ্রেড ফিচার সহ আসবে, যা স্বয়ংক্রিয় ভাবে সফ্টওয়্যার আপডেট করতে থাকবে। আবার, ইন্টারনেট জনিত সমস্যাকে রোধ করতে এতে থাকছে সিকিউরিটি আপডেটের সুবিধাও।

JioPhone Next স্মার্টফোনে, ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার সেন্সর এবং ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা উপস্থিত। এই রিয়ার ক্যামেরায় পোট্রেট মোড, নাইট মোড এবং ব্লার ব্যাকগ্রাউন্ড এর মতো ফিচার সাপোর্ট করবে। তদুপরি, ফোনের ক্যামেরা অ্যাপে ‘ইন্ডিয়ান অগমেন্টেড রিয়েলিটি’ ফিল্টার প্রি-লোডেড থাকছে।

বহুল চর্চিত জিওফোন নেক্সট গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট সহ‌ এসেছে। ফলে, ফোনের সেটিংস ম্যানেজ করা থেকে অ্যাপ ওপেন করা পর্যন্ত প্রায় প্রতিটি কাজ ভয়েস কম্যান্ড দিয়ে করা সম্ভব। সাথে, ইউজাররা নিজেদের ভাষায় লেটেস্ট ক্রিকেট স্কোর, ওয়েদার আপডেট বা যে কোনো বিষয়ে তথ্যাদি জানতেও গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট ব্যবহার করতে পারবেন। আবার, এই সাশ্রয়ী মূল্যের ৪জি স্মার্টফোনে রিড অ্যালাউড এবং ট্রান্সলেট ফিচারও উপলব্ধ।

কানেক্টিভিটির জন্য ফোনে, ব্লুটুথ ভি৪,১, ওয়াই-ফাই, মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট, ডুয়েল সিম (ন্যানো) স্লট এবং ৩.৫ মিমি অডিও জ্যাক পাওয়া যাবে। এর সেন্সর অপশনের মধ্যে সামিল থাকছে, অ্যাক্সেলেরোমিটার সেন্সর, অ্যাম্বিয়েন্ট লাইট সেন্সর এবং প্রক্সিমিটি সেন্সর। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য JioPhone Next -এ ৩,৫০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে।

শুভেচ্ছা বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। তিনি একদিকে যেমন ফটোগ্রাফার, তেমনি পাশাপাশি লেখিকাও। এছাড়াও তার শখের মধ্যে আছে বই পড়া, গান গাওয়া, ছবি আঁকা এবং ওয়েব ডিজাইন। শুভেচ্ছা আমাদের টেকগাপ পরিবারের একজন নতুন সদস্য।