বাজারে এল Kawasaki এর নতুন ক্রুজার বাইক Vulcan S BS6

kawasaki-2020-vulcan-s-bs6-launched-in-india-check-price-and-specifications

জাপানী মোটরবাইক সংস্থা Kawasaki ভারতে লঞ্চ করলো সংস্থার মিডল ওয়েট ক্রুজার বাইক 2020 Vulcan S BS6 । BS6 নিয়মাবলী চালু হবার পর বহু সংস্থাই তাদের পুরানো মডেলগুলির ইঞ্জিন আপডেট করে বাজারে এনেছে। একই পথে হেঁটে Kawasaki গতবছর লঞ্চ হওয়া Vulcan S BS4 মডেলটিকে BS6 ভ্যারিয়েন্টে ভারতের বাজারে আনলো। বাইকটির দাম রাখা হয়েছে ৫.৭৯ লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম)। প্রসঙ্গত, গত বছর Vulcan S BS4 লঞ্চ করা হয়েছিল ৫.৪৯ লক্ষ টাকায়। Vulcan S BS6 বাইকটি মেটালিক ফ্ল্যাট র (Raw) গ্রেস্টোন, এই একটিমাত্র রঙে উপলব্ধ হবে। তবে অনুমান করা হচ্ছে, 2020 Vulcan S BS6 পরে এক বা একাধিক রঙের বিকল্পে পাওয়া যেতে পারে।

বাইকটিতে মেকানিক্যাল বা কসমেটিক পরিবর্তন খুব একটা করা হয়নি। যেমন- BS4 মডেলটির মতো BS6 ভ্যারিয়েন্টে ৬৪৯ সিসির প্যারালাল-টুইন ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে। ইঞ্জিনটি ৭৫০০ আরপিএমে ৫৯.৯৪ ব্রেক হর্সপাওয়ার এবং ৬৬০০ আরপিএমে ৬২.৪ ন্যানোমিটার টর্ক জেনারেট করতে পারে।

আবার Vulcan S এর BS4 মডেলটির মতন এটিতে ওভাল শেপড হেডল্যাম্প, পিনাট শেপড ফুয়েল ট্যাঙ্ক, স্প্লিট সিট দেওয়া হয়েছে। বাইকটি ERGO-FIT (Adjustable riding position – Handle, Seat and Foot peg)। Kawasaki দাবী করেছে, আরোহীর উচ্চতা যদি ৫.৮ ইঞ্চির কমও হয়, তবুও বাইকটি চালাতে তার কোনো অসুবিধা হবেনা৷ আসলে কম উচ্চতাসম্পন্ন ব্যক্তি ক্রুজার শ্রেণীর বাইক চালাতে গিয়ে নানা অসুবিধার সম্মুখীন হয়। এক্ষেত্রে, Vulcan S BS6 ক্রুজার বাইকটি আরোহী স্বাচ্ছন্দেই চালাতে পারবেন।

বাইকটিতে ৪০ এমএম টেলিস্কোপিক ফর্ক সাসপেনশন এবং অফসেট রিয়ার মনোশক ব্যবহার করা হয়েছে। বাইকটির সামনের চাকায় ৩০০ মিমি ডুয়াল পিস্টন ডিস্ক ব্রেক এবং পেছনের চাকায় ২৫০ মিমি সিঙ্গল পিস্টন ডিস্ক ব্রেক দেওয়া হয়েছে। বাইকের ফুয়েল ট্যাঙ্কের ক্যাপাসিটি ১৪ লিটার। এছাড়া বাইকটির অন্যান্য ফিচার যেমন সেমি ডিজিট্যাল ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার, এলইডি হেডল্যাম্প ও টেইল ল্যাম্প, টার্ন ইন্ডিকেটার প্রভৃতি BS4 মডেলটির মতো অপরিবর্তিত আছে।