কেবল অপরাধ দমন নয়, পরিবেশের রক্ষার্থে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে ইলেকট্রিক বাইক

km3000-and-km4000-electric-bike-gifted-to-goa-police-to-fight-crime-protect-nature
কেবল অপরাধ দমন নয়, পরিবেশের রক্ষার্থে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে ইলেকট্রিক বাইক

গোয়ার পুলিশ বিভাগের হাতে মেড ইন ইন্ডিয়া KM3000 ও KM4000 ইলেকট্রিক বাইক তুলে দিল কবিরা মোবিলিটি (Kabira Mobility)। গত ফেব্রুয়ারিতে গোয়ার এই স্টার্টআপ সংস্থাটি ফুল ফেয়ারিং ডিজাইনের KM 3000 ইলেকট্রিক স্পোর্টস বাইক ও KM 4000 ইলেকট্রিক স্ট্রিটফাইটার বাইক লঞ্চ করেছিল। ব্যাটারি চালিত দু’টি মোটরসাইকেলের চাহিদা এতটা ছিল যে, মাত্র ৪ দিনের মধ্যেই KM 3000 ও KM 4000-এর প্রথম ব্যাচ আউট অফ স্টক হয়ে যায়।

এরইমধ্যে কবিরা মোবিলিটি ঘোষণা করে, তারা দেশজুড়ে বিভিন্ন রাজ্যের পুলিশ দফতরে তাদের ইলেকট্রিক মোটরসাইকেল ডেলিভারি শুরু করবে। সেইমতো ডিজিপি মুকেশ কুমার মিনার উপস্থিতিতে গোয়া পুলিশের হাতে তারা KM3000 ও KM4000 তুলে দিয়েছে।

এই প্রসঙ্গে কবিরা মোবিলিটির সিইও জয়বীর সিং সিওয়াচ বলেন, রাজ্য পুলিশ কর্তৃক বৈদ্যুতিক যান গ্রহণ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি পদক্ষেপ। কারণ এটি জনসাধারণকে বার্তা দেবে যে, প্রশাসন ইকো ফ্রেন্ডলি মোবিলিটি সলিউশনকে ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গিতে দেখছে। কেএম৩০০০ এবং কেএম৪০০০  রাজ্য পুলিশের জন্য উপযুক্ত, কারণ দু’টি বাইকই উচ্চ গতির এবং লম্বা ড্রাইভিং রেঞ্জ দিতে পারে। যার ফলে যেমন গাড়ি চালানোর খরচ কমে যাবে, তেমনি পরিবেশ রক্ষার্থে এটি অবদান রাখবে।

KM 3000 ও KM 4000 রেঞ্জ, টপ স্পিড

কবিরা মোবিলিটির কেএম৩০০০ এবং কেএম৪০০০ এক চার্জে যথাক্রমে ১২০ কিমি ও ১৫০ কিমি পথ চলতে পারে। কেএম৩০০০-এর সর্বোচ্চ গতিসীমা ১০০ কিমি/ঘন্টা ও কেএম৪০০০-এর ১২০ কিমি/ঘন্টা। ফলে নজরদারির জন্য খাঁকি উর্দিধারীদের কাছে এর থেকে ভাল বৈদ্যুতিক মোটরসাইকেল হতে পারে না। বাইক দু’টির ব্যাটারি ফায়ারপ্রুফ, যা নিরাপত্তাকে আলাদা উচ্চতায় নিয়ে গেছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷