চলে এল ‘মেড ইন ইন্ডিয়া’ ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপ Lauk

lauk-made-in-india-video-conferencing-app-launched

এই লকডাউনে ভিডিও কনফারেন্সিং প্ল্যাটফর্মের চাহিদা কতটা বেড়েছে, সে-বিষয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই। অনলাইন ক্লাস বা অফিসিয়াল কাজ, মিটিং ইত্যাদির জন্য বৈদেশিক ভিডিও কলিং অ্যাপ ছাড়াও, JioMeet-এর মত দেশীয় অ্যাপ্লিকেশনের ব্যবহার বেড়েছে। এবার বাজারে এসে গেলো ‘Lauk’ নামের আরো একটি ‘মেড ইন ইন্ডিয়া’ ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপ। এই অ্যাপ্লিকেশনটি তৈরি করেছেন প্রবীণ সাংবাদিক অনুরাঞ্জন ঝা।

আগেই বলেছি Lauk অ্যাপ্লিকেশনটি ভারতীয়দের জন্য এবং ভারতেই তৈরি। এতে end-to-end এনক্রিপশন রয়েছে অর্থাৎ ইউজারদের তথ্য সম্পূর্ণ সুরক্ষিত থাকে। এটি একটি সাধারণ ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপ্লিকেশন, যেখানে অনলাইন ক্লাস, লাইভ স্ট্রিমিং, ওয়েবিনার এবং অন্যান্য পরিষেবার জন্য লৌক ক্লাসরুম, লৌক স্টুডিও -এর মত অপশন আছে।

এছাড়া Lauk, মাল্টিডিভাইস ফিচার সাপোর্ট করে, অর্থাৎ একসাথে দুটির বেশি ডিভাইসে এটি ব্যবহার করা যাবে। অ্যাপটিতে অপশনাল পাসওয়ার্ড প্রোটেকশন ফিচার-ও রয়েছে। অ্যাপটির অ্যাক্সেস পেতে লৌকের ওয়েবসাইটে (www.lauk.in) ভিজিট করতে পারেন।

ঝা জানিয়েছেন, লৌকের সাবস্ক্রিপশনের জন্য ২৫০ টাকা থেকে ১৫০০ টাকা অবধি মাসে দিতে হবে। এক্ষেত্রে স্কুল, কলেজ এবং অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ইউজারদের জন্য বিশেষ ছাড় এবং প্যাকেজ থাকবে। তিনি মনে করেন এই অ্যাপ্লিকেশন প্রধানমন্ত্রীর আত্মনির্ভর ভারত বা ভোকাল ফর লোকাল প্রচেষ্টার ফলশ্রুতি!

জানা গিয়েছে, খুব শীঘ্রই তারা অন্যান্য ভারতীয় ডেভেলপদের কাছে ‘API’ অর্থাৎ অ্যাপ্লিকেশন প্রোগ্রামিং ইন্টারফেস সরবরাহ করবে, যাতে তারা লৌকের পরিকাঠামো এবং প্রযুক্তি ব্যবহার করে নিজস্ব ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপ করতে পারে।