সবাই কে চমকে দিয়ে বিশ্বের প্রথম কাস্টমাইজেবল ফোন MyZ লঞ্চ করলো Lava

lava-myz-customisable-phone-launched-in-india-what-is-it-and-price-details

ভারতে চীনা স্মার্টফোন কোম্পানিগুলির শাসন বলুন বা বিদেশি কোম্পানির ওপর নির্ভরতা কাটানোর ডাক, লাভার নতুন হ্যান্ডসেট স্বদেশী স্মার্টফোন ব্রান্ডগুলির হৃত গৌরব কতটা পুনরুদ্ধার করবে তার দিকেই আজ নজর ছিল সবার। যেকারণে পরিমিত ফিচারের সাথে Lava Z1, Z2, Z4, Z6 নামে চারটি বাজেট স্মার্টফোন লঞ্চ হতেই শুরু হয়ে যায় অঙ্ক কষার পালা। ধারেভারে বাজেট সেগমেন্টে লাভার এই নতুন ডিভাইস অন্যান্য ফোনের থেকে এগিয়ে, নাকি স্ট্রাটেজির অভাবে আত্মপ্রকাশের মঞ্চেই মুখ থুবড়ে পড়বে লাভার প্রত্যাবর্তন, এই নিয়েই যখন চর্চা চরমে তখন খেলা এখনও বাকি আছে এই ভঙ্গীতে, লাভা শেষে তার আস্তিন থেকে বার করলো এমনই একটি তাস, যা আগে কোনো সংস্থা করে দেখাতে পারেনি। বিশ্বের প্রথম কাস্টমাইজেশনের সুবিধাযুক্ত ফোন এবং তারপর Up MyZ নামক আপগ্রেড প্ল্যানের ঘোষনা করে লাভা যেন আজ আরও একবার ভারত সেরার ডাক দিল।

Lava MyZ কাস্টমাইজেবল ফোন কি?

আমরা জানি, প্রয়োজন অনুযায়ী ফোন চয়ন করার জন্য ব্র্যান্ডগুলি একটি স্মার্টফোনের বিভিন্ন ভ্যারিয়েন্ট অফার করে থাকে। এবার এই কৌশল অবলম্বন করেই লাভা তার কাস্টমাইজেবল ফোন নিয়ে আরও একধাপ এগিয়েছে। সংস্থার MyZ কাস্টমাইজেবল ফোন হল একটি এমন ধরণের ফোন, যেটি কেনার সময় গ্রাহক র‌্যামের পরিমান (২ জিবি/৩জিবি/৪জিবি/৬ জিবি) ও প্রয়োজনীয় স্টোরেজ (৩২জিবি/৬৪জিবি/১২৮জিবি) ইচ্ছাখুশি মত বেছে নিতে পারবেন। তেমনই মোবাইল ফটোগ্রাফির গুরত্ব নিরূপন করে গ্রাহকের কাছে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা (১৩+২) ও ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা (১৩+৫+২) পছন্দ করার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে৷ আবার সর্বশেষে রেড/ব্লু কালার চয়ন করা যাবে। অর্থাৎ ফোনটি র‌্যাম, ইন্টারনাল স্টোরেজ, ব্যাক ক্যামেরা, ফ্রন্ট ক্যামেরা, ও কালার, এই পাঁচটা কাস্টমাইজেবল প্যারামিটার অফার করবে।

Z2, Z4, ও Z6-এর মতো Lava Myz ফোনে ৬.৫ ইঞ্চি HD+ IPS ডিসপ্লে, মিডিয়াটেক G35 Soc, স্টক অ্যান্ড্রয়েড ১০ (২ জিবি ভ্যারিয়েন্টব্যতীত), ৫০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি, এবং ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট স্টান্ডার্ড হিসেবে থাকবে। কাস্টমার কি কম্বিনেশন পছন্দ করছেন, তার ওপর ভিত্তি করে Lava Myz-এর দাম শুরু হবে ৬,৯৯৯ টাকা থেকে এবং উচ্চতম স্পেসিফিকেশন যোগ করলে এর সর্বোচ্চ দাম হবে ১০,৫০০ টাকা। www.lavamobiles.com-এ লাভা ই-স্টোর ভিজিট করে চাহিদা অনুযায়ী MyZ কাস্টমাইজ করে ফোনটি অর্ডার দেওয়া যাবে। কোম্পানির তরফ থেকেই বাড়িতে ফোনটি পৌছে দেওয়া হবে। রিটেল আউটলেটেও কাস্টোমাইজেশনের সুবিধা শীঘ্রই উপলব্ধ হবে বলে লাভা জানিয়েছে।

পার্সোনাল কম্পিউটার বা ল্যাপটপে এতদিন ধরে আমরা র‌্যাম ও স্টোরেজ আপগ্রেড করার সুবিধা পেয়ে এসেছি। স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদেরও এরকম সুযোগ দেওয়ার জন্য Lava এবার আসরে নেমেছে। লাভার Z Up প্রোগামের আওতায় এখন Z2, Z4, Z6, ও MyZ মডেলে কেনার একবছরের মধ্যে এর র‌্যাম ও স্টোরেজ বাড়ানোর সুবিধা মিলতে চলেছে। তার খরচও খুব একটা বেশী হবে না। যেমন- ২ জিবি র‌্যাম + ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজযুক্ত ফোনকে  ৪ জিবি র‌্যাম + ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজে কনফিগার করতে গেলে ১,৯৪৯ টাকা ব্যয় করতে হবে। স্টোরেজ আপগ্রেডেশন চলাকালীন ফোনের ডাটার কোনোও ক্ষতি হবে না বলেও লাভা আশ্বস্ত করেছে। সার্ভিস সেন্টারে ফোনটি একঘন্টার মধ্যেই আপগ্রেড করা সম্ভব হবে বলে Lava জানিয়েছে।