একবছরের মধ্যে বদলানো যাবে ফোনের স্টোরেজ, র‌্যাম! বিক্রি শুরু Lava Z1 এর

lava-z1-sale-starts-today-with-myz-and-zup-plan-price-specifications.jpg

প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষ্যে আজ থেকেই Lava -র MyZ এবং ZUp প্ল্যান ভারতে চালু হয়ে গেল। সেইসঙ্গে লাভার Z1 ফোনটিও ৫০০ টাকার স্পেশাল ডিসকাউন্টে উপলব্ধ হতে চলেছে। MyZ প্ল্যানের আওতায় ক্রেতা নিজের চাহিদা অনুযায়ী এখন পাঁচটি প্যারামিটারের ওপর ভিত্তি করে ফোনের স্পেসিফিকেশন পছন্দ করতে পারবেন। আবার ZUp প্ল্যান সামান্য কিছু টাকা খরচের মাধ্যমে গ্রাহককে তার লাভা ফোনের স্পেসিফিকেশন আপগ্রেড করার সুবিধা দেবে। বোঝার সুবিধার্থে এই দুটি বিষয় ভালভাবে ব্যাখ্যা করা যাক।

Lava MyZ

লাভার বাজেট স্মার্টফোন কেনার সময় এই প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে গ্রাহক র‌্যামের পরিমান (২ জিবি/৩জিবি/৪জিবি/৬ জিবি) ও প্রয়োজনীয় স্টোরেজ (৩২জিবি/৬৪জিবি/১২৮জিবি) ইচ্ছামত বেছে নিতে পারবেন। তেমনই মোবাইল ফটোগ্রাফির গুরত্ব তার কাছে কতখানি সেটির ওপর ভিত্তি করে গ্রাহককে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা (১৩+২) ও ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা (১৩+৫+২) পছন্দ করার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। সর্বশেষে কালার অপশনও চয়ন করা যাবে। অর্থাৎ ফোনটি র‌্যাম, ইন্টারনাল স্টোরেজ, ব্যাক ক্যামেরা, ফ্রন্ট ক্যামেরা, ও কালার কাস্টমাইজে করার সুবিধা পাওয়া যাবে। কাস্টোমাইজেশন সম্পূর্ণ হওয়ার পর তখন আপনার ফোনটিই হয়ে উঠবে MyZ ।

www.lavamobiles.com-এ লাভা ই-স্টোর ভিজিট করে চাহিদা অনুযায়ী কাস্টমাইজ করে লাভার ফোন অর্ডার দেওয়া যাবে। কোম্পানি বাড়িতে ফোনটি পৌছে দেবে। রিটেল আউটলেটেও কাস্টোমাইজেশনের সুবিধা শীঘ্রই উপলব্ধ হবে বলে লাভা জানিয়েছে।

Lava Zup

ZUp প্রোগামের আওতায় Lava Z2, Z4, Z6, ও MyZ মডেল কেনার একবছরের মধ্যে এর র‌্যাম ও স্টোরেজ বাড়ানোর সুবিধা মিলতে চলেছে। এরজন্য খরচও খুব একটা বেশী হবে না। যেমন- ২ জিবি র‌্যাম + ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজযুক্ত ফোনকে ৪ জিবি র‌্যাম + ৬৪ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজে কনফিগার করতে গেলে ১,৯৪৯ টাকা ব্যয় করতে হবে। স্টোরেজ আপগ্রেডেশন চলাকালীন ফোনের ডেটার কোনোও ক্ষতি হবে না বলেও লাভা আশ্বস্ত করেছে। সার্ভিস সেন্টারে ফোনটি একঘন্টার মধ্যেই আপগ্রেড করা সম্ভব হবে বলে Lava জানিয়েছে।

Lava Z1 এর স্পেসিফিকেশন ও দাম

লাভা জেড১-এর লঞ্চ প্রাইস ৫,৪৯৯ টাকা ছিল। তবে ৫০০ টাকার স্পেশাল ডিসকাউন্টে এটি এখন ৪,৯৯৯ টাকায় কেনা যাচ্ছে। এই বাজেট ফোনে আছে কর্নিং গোরিলা গ্লাস ৩ প্রোটেকশান যুক্ত ৫ ইঞ্চি ডিসপ্লে। ফোনটি চলবে মিডিয়াটেক অক্টা কোর হেলিও এ২০ প্রসেসরে এবং এতে২ জিবি র‌্যাম ও ১৬ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ দেওয়া হয়েছে। ফোনের সামনে ও পিছনে আছে ৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। এই ফোনের ব্যাটারির ক্যাপাসিটি ৩,১০০ এমএএইচ। চার্জিংয়ের জন্য আছে মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড গো এডিশনে (অ্যান্ড্রয়েডের লাইট ভার্সন) চলে।