কমছে বিক্রি, স্মার্টফোন ব্যবসা বন্ধ করতে চলেছে LG

lg-may-shut-down-smartphone-business-here-the-reason

LG নামটির সাথে পরিচিত নন এমন মানুষ খুব কমই আছে। এমনিতে সংস্থাটি টিভি, ফ্রিজ ইত্যাদি ইলেকট্রনিক্স অ্যাপ্লায়েন্স থেকে শুরু করে স্মার্টফোন, ইয়ারফোন এবং অন্যান্য অ্যাক্সেসরিজ তৈরির জন্য ভারত তথা বিশ্ববাজারে বেশ প্রসিদ্ধ। কিন্তু শোনা যাচ্ছে, দক্ষিণ কোরিয়ার চতুর্থ বৃহত্তম এই কোম্পানিটি বন্ধ করে দিতে পারে নিজেদের স্মার্টফোন ব্যবসা। আসলে, অতীতে এলজি (LG) দক্ষিণ কোরিয়ান টেক জায়ান্ট স্যামসাং (Samsung) বা অন্যান্য জনপ্রিয় চাইনিজ মোবাইল নির্মাতাদের সাথে তাল মিলিয়ে ব্যবসা করলেও, এখন তাদের মোবাইল ব্যবসা অনেকটাই পড়তির দিকে। কোম্পানির প্রিমিয়াম ফোনের ব্যবসা এখনও চললেও, মিডরেঞ্চ বাজার থেকে তারা প্রায় হারিয়ে গেছে বললেই চলে।

কোরিয়ান সংবাদ সংস্থা হেরাল্ডের সাম্প্রতিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, এলজি (LG), তার কর্মচারীদের একটি ই-মেলের মাধ্যমে মোবাইল ব্যবসা গুটিয়ে নেওয়ার কথা জানিয়েছে। সেক্ষেত্রে, সংস্থাটি তাদের ৬০% কর্মচারীদের অন্যান্য ব্যবসায় নিযুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই প্রসঙ্গে বলে রাখি, মোবাইলের ব্যবসা ছাড়াও এলজি-র ইলেকট্রনিক গুডস, সোলার এনার্জি, হাসপাতালের সরঞ্জাম তৈরি প্রভৃতি ব্যবসা আছে। অর্থাৎ মোবাইল ব্যবসার সাথে জড়িত কর্মীদের একাংশকে উল্লিখিত সমস্ত ব্যবসার সাথে জোড়ার পরিকল্পনা করছে সংস্থাটি। তবে, বাকি ৪০% কর্মচারীদের ভবিষ্যত সম্পর্কে সংস্থার সিইও অন-বং-সিওক কী ভাবছেন, সেকথা এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি।

প্রসঙ্গত, ২০২০-তে কোম্পানিটি LG Wing এবং ডুয়াল স্ক্রিন Velvet নামে দুটি প্রিমিয়াম ডিভাইস লঞ্চ করেছিল। কিন্তু দুটি ফোনই বাজার ধরতে ব্যর্থ হয়। তবে শুধু এই দুটি নতুন ফোনের জন্যই নয়, এলজি, গত ৫ বছরে স্মার্টফোনের ব্যবসায় প্রায় ৪.৫ বিলিয়ন ডলার লোকসান করেছে বলে জানা গিয়েছে। সেক্ষেত্রে, এত ক্ষতি হওয়ার কারণেই সংস্থাটি সংশ্লিষ্ট কারবার বন্ধ করার পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হচ্ছে এমনটাই মনে করছেন একাংশ।

এই মুহূর্তে দক্ষিণ কোরিয়ার কোম্পানিটি অন্যান্য কারবারে লাভের সম্ভাবনা ক্ষতিয়ে দেখছে। এখনও তাদের মোবাইল ডিসপ্লের ব্যবসা যথেষ্ট সচ্ছল। তবে সংস্থাটি আগামী দিনে সেলস মার্কেটিংয়ে প্রবেশ করতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে। এছাড়া রিপোর্ট বলছে, এলজি তার মোবাইলের কারবার পুরোপুরি বন্ধ করবে না। মোবাইল ডিভিশনে যুক্ত বাকি ৪০% কর্মচারীকে দিয়ে তারা প্রিমিয়াম ফোনের ব্যবসা চালাবে। তদুপরি এবছর সংস্থাটি তাদের রোলেবেল ডিসপ্লে ডিজাইনের ফ্ল্যাগশিপ ফোন বাজারে আনতে পারে এমন কথাও শোনা যাচ্ছে।