সস্তায় অর্ডার করেছিলেন আইফোন, বাড়িতে এল কফি টেবিল

man-orders-iphone-on-e-commerce-site-get-coffee-table

অনলাইনে যে জিনিস অর্ডার করেছিলাম আর বাড়িতে যে জিনিস ডেলিভারি দিয়ে গেল তার মধ্যে বিস্তর ফারাক। এমন অভিযোগের সংখ্যা এখন ভুড়িভুড়ি। বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মগুলিকেই এর জন্য আমরা কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে দিই। তবে ‘যত দোষ নন্দ ঘোষ’ এমনটা কিন্তু নয়৷ অনেক সময় এও দেখা গেছে, ক্রেতা প্রোডাক্টের ডেসক্রিপশন বা বর্ণনা না পড়েই সেটি অর্ডার করে ফেলেছেন। মনমতো পণ্য হাতে না পেয়ে তখন চলতে থাকে দোষারোপের পালা। তাই অনলাইনে কোনো জিনিস কেনার আগে প্রোডাক্ট লিস্টিংয়ের যাবতীয় খুঁটিনাটি পড়ে দেখার পরামর্শ দেওয়া হয়৷ অজ্ঞতাবশত সেটা না করেই ভুলের খেসারত দিল থাইল্যান্ডের এক কিশোর।

রিপোর্ট অনুসারে একটি ই-কমার্স সাইটে iPhone অনেক সস্তায় বিক্রি হচ্ছে দেখে লাক্সারি স্মার্টফোন পকেটস্থ করার আশায় কিশোরটি সেটি অর্ডার দিয়ে ফেলে। আধখাওয়া আপেলের লোগোযুক্ত সাধের আইফোন নিয়ে যখন সে নানা ভাবনায় মশগুল। তখনই ধাক্কাটা আসে। প্রোডাক্টের ডেলিভারি হওয়া মাত্রই সে বুঝতে পারে কিছু একটি গন্ডগোল আছে।

অ্যাপল স্মার্টফোনটি যে প্যাকেজে থাকার কথা ছিল সেটি পেল্লায় বড় হওয়ার পাশাপাশি প্যাকেজিংয়ের উচ্চতা প্রায় কিশোরটির সমান। সিল খুলতেই দেখা যায় আইফোনের বদলে সেখানে রয়েছে হুবহু আইফোনের মতো দেখতে একটি কফি টেবিল। কিশোরটি যে ছবিগুলি শেয়ার করেছে তা দেখে কফি টেবিলটি আইফোন ৮ এর রেপ্লিকা বললে খুব একটা ভুল হবে না। চারদিকে মেটালিক ফিনিশ, স্ক্রিন বোঝানোর জন্য মাঝখানে আয়তকার ডার্ক ফিনিশিং এবং নীচে আইফোনের অনুকরণে ক্যাপাসিটিভ টাচআইডি স্ক্যানার।

উল্লেখ্য, এটি প্রতারণা বা ভোক্তাদের জালিয়াতির ঘটনা নয় এবং ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মটির ভূমিকাও এখানে নগণ্য। প্রোডাক্টটি আইফোন আকৃতির কফি টেবিল হিসেবেই লিস্টেড ছিল। কিন্তু ডেসক্রিপশন না পড়ে অর্ডার দেওয়ায় কিশোরটির জন্য কাল হল। রিটার্ন বা রিপ্লেসমেন্টের কোনো অপশন সেখানে ছিল কীনা তা অবশ্য জানা যায়নি। তবে এই ঘটনা চোখে আঙুল তুলে দেখিয়ে দিল, অনলাইনে কোনো লাক্সারি প্রোডাক্টের দাম কম দেখে খুঁটিনাটি না পড়ে অনেকেই সেটি কিনবেন বলে মনস্থির করে ফেলেন। তাদের উচিত প্রোডাক্টের বর্ণনা ভালভাবে পড়ে তবেই অর্ডার করার চিন্তাভাবনা করা।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷