ঘুমের ঘোরে গিলে ফেলেছিলেন আস্ত Apple AirPods, মরতে মরতে বাঁচলেন যুবক

man-swallowed-his-apple-airpod-while-sleeping-in-us

আনুষঙ্গিক হিসেবে হেডফোন বা ইয়ারফোনের প্রয়োজনীয়তা বা গুরুত্ব কিরকম – সে বিষয়ে আশা করি নতুন করে কিছু বলার নেই। সেক্ষেত্রে অনেক ইউজারই ওয়্যারলেস ইয়ারবাড বা Apple-এর AirPod পছন্দ করেন, কারণ এতে যেমন তার পেঁচিয়ে যাওয়ার ঝক্কি নেই, তেমনি আবার প্রোডাক্টটি তাড়াতাড়ি খারাপ হওয়ার সম্ভাবনা নেই। স্বাভাবিকভাবেই ইন্টারনেট বা স্মার্টফোনের মতই আমাদের মধ্যে অনেকেরই সর্বক্ষণের সঙ্গী হয়ে উঠেছে এই নতুন প্রযুক্তি যুক্ত ইয়ারফোনগুলি। কিন্তু আজ আমরা যে ঘটনাটির কথা বলব, তা শোনার পর আপনাদের চোখ তো কপালে উঠবেই একই সাথে আপনারা এই ওয়্যারলেস ইয়ারফোনগুলি সব সময় কাছে রাখার ব্যাপারে দুবার ভাবতে বাধ্য হবেন!

এমনিতে ঘুমের ঘোরে আমরা কত কিছুই না করে থাকি! কিন্তু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এক ব্যক্তি, সম্প্রতি ঘুমাতে ঘুমাতে গিলে ফেললেন আস্ত অ্যাপল এয়ার পড। রিপোর্ট অনুযায়ী, ওয়ার্স্টারের বাসিন্দা ৩৮ বছরের ব্র্যাড গৌথিয়ার (Brad Gauthier) গত মঙ্গলবার সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর এক গ্লাস জল পান করেন এবং কিছুক্ষণের মধ্যেই তার দম বন্ধ হয়ে আসতে শুরু করে। শুরু হয় কাশি এবং বুকে ব্যথাও। তবে শারীরিক অসুবিধা সত্ত্বেও তিনি দিনটি স্বাভাবিক ভাবেই কাটাতে থাকেন।

কিন্তু, এর মধ্যেই ব্র্যাড দেখেন যে তার জোড়া Airpods-এর একটি এয়ারপড হারিয়ে গেছে। এই ঘটনায় তাঁর পরিবার রসিকতা শুরু করে যে, ব্র্যাড হয়তো এয়ারপডটি গিলে ফেলেছেন। উদ্ভট লাগলেও এই রসিকতায় সায় দেন ওই ব্যক্তি নিজেও। তবে যখন তার বুকের ব্যথা আরও বাড়ে, তখন ব্র্যাড হাসপাতালে যেতে বাধ্য হন। এবং তার বুকের এক্স-রে করার পরে ব্র্যাড এবং ডাক্তার উভয়েই স্তব্ধ হয়ে পড়েন।

আসলে, চিকিৎসকরা প্রাথমিকভাবে অনুমান করেছিলেন যে ব্র্যাড হয়তো আগের রাতে প্রচুর খাবার খেয়েছিলেন এবং তার খাদ্যনালীতে কোনো খাবারের টুকরো আটকে গেছে। কিন্তু এক্স-রে রিপোর্টে দেখা যায় যে ব্র্যাড দুর্ঘটনাক্রমে একটি এয়ারপড গিলে ফেলেছেন যা সম্ভবত তিনি ঘুমানোর আগে কান থেকে খুলে রাখতে ভুলে গিয়েছিলেন।

আপাতত দৃষ্টিতে এই ঘটনাটি আমাদের জন্য মজার হলেও ব্র্যাডের গলা থেকে ওই এয়ারপডটিকে বের করতে চিকিৎসকদের কিছুটা বেগ পেতে হয়েছে। তবে এর জন্য অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন হয়নি, এন্ডোস্কোপিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে এয়ারপডটিকে বের করা হয়েছে। তবে সঠিক সময়ে এটি বের করা না গেলে ব্র্যান্ডের ফুসফুসে আঘাত লাগার এবং দম বন্ধ হয়ে মারা যাওয়ার সম্ভাবনা ছিল।

তবে এই ধরণের অদ্ভূত ঘটনার কথা প্রথমবার শোনা গিয়েছে এমন নয়! বছর দুয়েক আগে তাইওয়ানের এক যুবকও ঘুমের ঘোরে একই কান্ড ঘটিয়েছিলেন! সুতরাং, এয়ারপড ব্যবহারের সময় সচেতনতা অবলম্বন করুন। কারণ সামান্য অলসতা ডেকে আনতে পারে বড় বিপত্তি। তাছাড়া ঘন্টার পর ঘন্টা এয়ারপডে সময় কাটালে কানের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনাও প্রবল।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন