New Maruti Celerio: মধ্যবিত্তদের জন্য আগামীকাল নতুন গাড়ি আনছে মারুতি সুজুকি

ইতিমধ্যেই নতুন Maruti Celerio গাড়িটির বুকিং নেওয়া শুরু হয়ে গিয়েছে

maruti-celerio-india-launch-tomorrow-booking-starts-expected-price-features

১০ নভেম্বর অর্থাৎ আগামীকালই ভারতের বাজারে নয়া গাড়ি লঞ্চ করতে চলেছে জনপ্রিয় অটোমোবাইল সংস্থা মারুতি সুজুকি (Maruti Suzuki)। নয়া মারুতি সেলেরিও (Maruti Celerio) তৃতীয় প্রজন্মের উপর থেকে আগামীকাল সংস্থাটি পর্দা সরাতে চলেছে। ইতিমধ্যেই গাড়িটির বুকিং নেওয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। আসন্ন নতুন ভার্সনের Maruti Celerio-র ফিচার, ইঞ্জিন ও দাম জেনে নেওয়া যাক।

New Maruti Celerio: ফিচার (সম্ভাব্য)

নতুন মারুতি সেলেরিও গাড়ির স্মার্ট-প্লে স্টুডিও ইনফোটেইনমেন্ট সিস্টেমটি অ্যাপেল কারপ্লে এবং অ্যান্ড্রয়েড অটো প্রযুক্তি সহ আসতে পারে, সাথে থাকবে ৭ ইঞ্চির টাচস্ক্রিন। এছাড়াও নতুন ভার্সনের গাড়িটিতে পুশ স্টার্ট/স্টপ বটন, এসি ভেন্ট এবং নতুন ডিজাইন স্টিয়ারিং হুইলের দেখা মিলতে পারে। যাত্রীদের স্বাচ্ছন্দ্যের জন্য আগের তুলনায় গাড়িটির ভেতরে জায়গা বাড়ানো হতে পারে।

সুরক্ষাজনিত ফিচারগুলির মধ্যে সামনের সারিতে দুটো এয়ার ব্যাগ, ইভিডি প্রযুক্তির সাথে এবিএস ব্রেকিং সিস্টেম, ISOFIX অ্যাঙ্কর এবং রিভার্সিং সেন্সর্স ক্যামেরা সহ আসতে পারে নতুন সেলেরিও।

টিজার দেখে অনুমান করা হচ্ছে পুরানো মডেলের তুলনায় এটির সামনে এবং বডি প্যানেলে কিছু পরিবর্তন ঘটানো হতে পারে। যেমন নতুন ডিজাইন বাম্পার, ক্রোম বার সহ ডিম্বাকৃতি গ্রিলের সাথে দেখা মিলতে পারে গাড়িটির।

New Maruti Celerio: ইঞ্জিন ও মাইলেজ (সম্ভাব্য)

সুইফ্ট (Swift)-এর মত এতেও ১.২ লিটার পেট্রোল ইঞ্জিন থাকতে পারে, যা থেকে সর্বোচ্চ ৮৩ এইচপি শক্তি এবং ১১৫ এনএম টর্ক উৎপন্ন হবে। অথবা নতুন সেলেরিও গাড়িটিতে থাকতে পারে ১.০ লিটারের কে১০সি সিরিজের তিনটি সিলিন্ডার যুক্ত ডুয়েল-জেট ইঞ্জিন, যা এর মাইলেজ বৃদ্ধিতে প্রভাব ফেলবে (প্রায় ২৬ কিমি/লিটার)। দুটির মধ্যে যেকোনো একটি ইঞ্জিন ৫-স্পিড ম্যানুয়াল গিয়ার বক্স অথবা অটোমেটেড ম্যানুয়াল ট্র্যান্সমিশনের সাথে আসতে পারে।

New Maruti Celerio: দাম (সম্ভাব্য)

ভারতের বাজারে নতুন ভার্সনের সেলেরিও-র দাম ৪.৫০ লক্ষ টাকার কাছাকাছি রাখা হতে পারে। এর বিদ্যমান মডেলটির মূল্য ৪.৬৬ লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম) এবং এর টপ মডেলটির বর্তমান শোরুম প্রাইস ৬ লক্ষ টাকা। Celerio বাজারে আসার পর Hyundai Santro ও Tata Tiago গাড়ি দুটি হবে এর মূল প্রতিদ্বন্দ্বী।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।