ভারতে লঞ্চ হল ১০৮ এমপি ক্যামেরার সবচেয়ে সস্তা ফোন Mi 10i, আছে 5G সাপোর্ট

mi-10i-launched-with-5g-support-price-in-india-20999-sale-date-specifications

কথা মত আজ ভারতে লঞ্চ হল Mi 10i। এটি কোম্পানির ভারতে মি ১০ সিরিজের দ্বিতীয় ফোন যেখানে ১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। মি ১০ আই হল কিছুদিন আগে চীনে লঞ্চ হওয়া Redmi Note 9 Pro 5G এর রিব্রান্ডেড ভার্সন। Mi 10i এর বিশেষ বিশেষ ফিচারের মধ্যে আছে স্ন্যাপড্রাগন ৭৫০জি প্রসেসর,  ৪,৮২০ এমএএইচ ব্যাটারি, ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট যুক্ত ডিসপ্লে ও সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। 5G সাপোর্টের সাথে আসা এই ফোনটি ভারতে OnePlus Nord, Samsung Galaxy M51 এর সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে।

Mi 10i এর দাম

ভারতে মি ১০ আই এর দাম শুরু হয়েছে ২০,৯৯৯ টাকা থেকে। এই দাম ফোনটির ৬ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজের। আবার এর ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের মূল্য যথাক্রমে ২১,৯৯৯ টাকা ও ২৩,৯৯৯ টাকা। ফোনটি মিডনাইট ব্ল্যাক, প্যাসিফিক সানরাইজ ও আটলান্টিক ব্লু কালারে ভারতে এসেছে। আগামী ৮ জানুয়ারি থেকে ফোনটির সেল শুরু হবে। তবে প্রাইম কাস্টমাররা ৭ জানুয়ারি থেকে ফোনটি কিনতে পারবেন। Mi 10i ফোনটি Amazon ও Mi.com থেকে পাওয়া যাবে।

লঞ্চ অফার হিসাবে ICICI ব্যাংক গ্রাহকরা ২,০০০ টাকা ডিসকাউন্ট পাবে। আবার জিও গ্রাহকদের জন্য ১০,০০০ টাকা পর্যন্ত বেনিফিট দেওয়া হবে।

জানিয়ে রাখি চীনে Redmi Note 9 Pro 5G তিনটি স্টোরেজ সহ লঞ্চ হয়েছিল। এর ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম ছিল ১,৫৯৯ ইউয়ান ( প্রায় ১৭,৯৫০ টাকা)। আবার ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ও ৮ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজে দাম যথাক্রমে ১,৭৯৯ ইউয়ান ( প্রায় ২০,২০০ টাকা) ও ১,৯৯৯ ইউয়ান ( প্রায় ২২,৪৪০ টাকা)।

Mi 10i এর স্পেসিফিকেশন

মি ১০ আই ফোনটি ভারতে TÜV Rheinland ব্লু রে সার্টিফায়েড ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০ x ২৪০০ পিক্সেল) ডিসপ্লে সহ এসেছে। এর আসপেক্ট রেশিও ২০:৯, রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ, ব্রাইটনেস ৪৫০ নিটস এবং টাচ স্যাম্পেলিং রেট ২৪০ হার্টজ। এর ডিসপ্লে ডিজাইন পাঞ্চ হোল, যার মধ্যে ১৬ মেগাপিক্সেল (এফ/২.৪৫) ফ্রন্ট ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। এই ক্যামেরায় নাইট মোড, বিউটি মোড আবার ডিসপ্লের প্রটেকশনের জন্য আছে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫। এই ডিসপ্লেতে HDR10+ সাপোর্ট করবে।

Mi 10i ফোনটিতে স্ন্যাপড্রাগন ৭৫০জি প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। আবার গ্রাফিক্সের জন্য আছে এড্রেনো ৬১৯ জিপিইউ। স্টোরেজ হিসাবে পাবেন ৮ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম ও ১২৮ জিবি পর্যন্ত ইন্টারনাল স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ বাড়ানো যাবে। ফোনটিতে তাপ নিয়ন্ত্রণের জন্য দেওয়া হয়েছে লিকুইডকুল টেকনোলজি।

ক্যামেরার কথা বললে এই ফোনে কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ আছে। যার প্রাইমারি ক্যামেরা ১০৮ মেগাপিক্সেল Samsung HM2 সেন্সর (এফ/১.৭৫)। এছাড়াও অন্য তিনটি ক্যামেরা হল ১২০ ডিগ্রি ফিলড অফ ভিউ সহ ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল সেন্সর (এফ/২.২), ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স ও ২ মেগাপিক্সেল পোর্ট্রেট ডেপ্থ অফ ফিল্ড সেন্সর। পিছনের ক্যামেরায় এইচডিআর, গুগল লেন্স, নাইট মোড ২.০, প্রো মোড, প্যানোরামা, কাঁচা মোড, 4K ভিডিও রেকর্ডিং ফিচার উপলব্ধ। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড এমআইইউআই ১২ ইন্টারফেস সহ এসেছে।

এই ফোনে আছে ৪,৮২০ এমএএইচ ব্যাটারি। যার সাথে ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। যেটি ৫৮ মিনিটে ফোনকে ফুল চার্জ করে দেবে। চার্জিংয়ের জন্য এতে আছে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট। এতে ডুয়েল স্টেরিও স্পিকার উপলব্ধ। আবার সিকিউরিটির জন্য আছে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ও ফেস আনলক। ফোনটি IP53 রেটিং প্রাপ্ত।